Inqilab Logo

রোববার, ২৯ মে ২০২২, ১৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ২৭ শাওয়াল ১৪৪৩ হিজরী

ছড়াচ্ছে করোনা, দুই হাজার ইঁদুর মারবে হংকং

অনলাইন ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৯ জানুয়ারি, ২০২২, ৩:৩৫ পিএম

হ্যামস্টার, ইঁদুরের একটি প্রজাতি। বিভিন্ন পশুপাখির দোকান থেকে ওই প্রাণির মাধ্যমে করোনা ছড়াচ্ছে বলে অভিযোগ। তাই তাদের মারা হবে।

দেখতে অনেকটা ধেড়ে ইঁদুরের মতো। নাম হ্যামস্টার। ছোট্ট এই প্রাণির মাধ্যমেই হংকংয়ে করোনা ছড়াচ্ছে বলে অভিযোগ। যে কারণে প্রায় দুই হাজার হ্যামস্টার মারার সিদ্ধান্ত নিয়েছে হংকং প্রশাসন। যদিও পশুপ্রেমী একাধিক সংগঠন এই সিদ্ধান্তের বিরোধিতা করেছে।

ঘটনার সূত্রপাত একটি পশু বিক্রির দোকান থেকে। সম্প্রতি সেই দোকানের মালিক এবং একাধিক ক্রেতা করোনায় আক্রান্ত হন। উৎস খুঁজতে গিয়ে দেখা যায়, ওই দোকানের একধিক হ্যামস্টার করোনায় আক্রান্ত। প্রশাসনের বক্তব্য, এর থেকেই স্পষ্ট, পশুর থেকে মানুষের মধ্যে করোনার সংক্রমণ ঘটছে। এরপরেই ওই দোকানের সমস্ত ক্রেতাকে সতর্ক করে দেওয়া হয়। বলা হয়, গত কয়েক সপ্তাহের মধ্যে যারাই ওখান থেকে হ্যামস্টার কিনেছেন, তাদের প্রশাসনের কাছে তা ফেরত দিয়ে যেতে হবে। হ্যামস্টারদের মুখ দিয়ে আদর করা যাবে না। সমস্ত ক্রেতাকে আইসোলেশনে থাকতে হবে।

অন্য দোকান থেকেও যারা হ্যামস্টার কিনেছেন, তাদের ক্ষেত্রেও একই নিষেধাজ্ঞা জারি হয়েছে। প্রশাসন ঠিক করেছে, করোনার সংক্রমণ বন্ধ করতে দুই হাজার হ্যামস্টারকে মেরে ফেলা হবে। তবে তাদের মানবিক প্রক্রিয়ায় মারা হবে। যাতে কষ্ট কম হয়।

ইউএস সেন্টার ফর ডিজিস কন্ট্রোল অ্যান্ড প্রিভেনশনের গবেষকদের অবশ্য বক্তব্য, প্রাণির মাধ্যমে মানুষের শরীরে করোনার সংক্রমণ ঘটছে, এমন তথ্য এখনো তাদের হাতে আসেনি। হংকংয়ের দাবির বৈজ্ঞানিক সত্যতা নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে।

বস্তুত, পশুপ্রেমী সংগঠনগুলির দাবি, বৈজ্ঞানিক প্রমাণ ছাড়া কেন এত প্রাণিহত্যা হবে? তাদের আরো প্রশ্ন, মানুষ করোনায় আক্রান্ত হলে তাদের চিকিৎসা হয়, প্রাণি আক্রান্ত হলে তাদের মেরে ফেলার অধিকার কে দিয়েছে? সূত্র: রয়টার্স, এপি।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: হংকং


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ