Inqilab Logo

বুধবার, ১৮ মে ২০২২, ০৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ১৬ শাওয়াল ১৪৪৩ হিজরী

বিধ্বস্ত অঞ্চলে পৌঁছানো যাচ্ছে না

সুনামি বিধ্বস্ত টোঙ্গায় ত্রাণের জাহাজ পাঠাচ্ছে নিউজিল্যান্ড

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২০ জানুয়ারি, ২০২২, ১২:০৪ এএম

সুনামি বিধ্বস্ত টোঙ্গার অতি প্রয়োজনীয় বিশুদ্ধ পানি এবং অন্য সরবরাহ নিয়ে দেশটিতে যাচ্ছে নিউ জিল্যান্ড নৌবাহিনীর দুইটি জাহাজ। শুক্রবার জাহাজ দুইটির টোঙ্গায় পৌঁছানোর কথা রয়েছে। গত শনিবার অগ্ন্যুৎপাতের কারণে সৃষ্ট সুনামি আঘাত হানার পর মঙ্গলবার প্রথমবারের মতো ক্ষয়ক্ষতির তথ্য প্রকাশ করেছে টোঙ্গা সরকার। এতে বলা হয় দেশটি নজিরবিহীন দুর্যোগে আক্রান্ত হয়েছে। দুই স্থানীয় এবং এক ব্রিটিশ নাগরিকের মৃত্যুর তথ্য নিশ্চিত করা হয়েছে। নিউ জিল্যান্ড নৌবাহিনীর জাহাজ এইচএমএনজেডএস আয়োতিরোয়া’র ক্যাপ্টেন সিমন গ্রিফিথস বলেন, ‘টোঙ্গার মানুষের জন্য বিপুল পানি নিয়ে রওনা হচ্ছি।’ গ্রিফিথস জানান, তার জাহাজে আড়াই লাখ লিটার পানি রয়েছে। এছাড়া দিনে আরও ৭০ হাজার লিটার উৎপাদনের ক্ষমতা রয়েছে। পাশাপাশি অন্য সরঞ্জামও রয়েছে। শনিবার প্রথমে সাগরে পানির তলার আগ্নেয়গিরিতে অগ্ন্যুৎপাত হয়। তারপরেই ভয়াবহ সুনামি আছড়ে পড়ে টোঙ্গা দ্বীপে। যার জেরে ভয়াবহ ক্ষতিগ্রস্ত হয় মূলত দ্বীপের পশ্চিমাংশ। তবে গোটা দ্বীপেই কমবেশি ক্ষতি হয়েছে। বিশেষজ্ঞরা জানিয়েছেন, অগ্ন্যুৎপাতের পর ৫০ ফুট ঢেউ আছড়ে পড়ে টোঙ্গার পশ্চিম উপকূলে। এর ফলে পশ্চিম উপকূলের বসতিগুলো কার্যত পানির তলায় তলিয়ে গেছে। ম্যাঙ্গো, ফোনোইফুয়া, নমুকা দ্বীপুঞ্জ কার্যত ধ্বংস ধ্বংস হয়ে গেছে। ম্যাঙ্গোয়ার একটি বাড়িও আস্ত নেই। ফোনোইফুয়ায় দুটি বাড়ি এখনো দাঁড়িয়ে আছে বলে খবর মিলেছে। নমুকাতেও ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। মঙ্গলবার দেশটির প্রধানমন্ত্রী অফিস ক্ষয়ক্ষতি নিয়ে প্রথম বিবৃতি পেশ করেছে। ডয়চে ভেলে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: সুনামি বিধ্বস্ত টোঙ্গায় ত্রাণের জাহাজ পাঠাচ্ছে নিউজিল্যান্ড
আরও পড়ুন
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ