Inqilab Logo

বুধবার, ১৮ মে ২০২২, ০৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ১৬ শাওয়াল ১৪৪৩ হিজরী

জিয়াউর রহমানের জন্মবার্ষিকীতে নেটিজেনদের বিনম্র শ্রদ্ধা

সোশ্যাল মিডিয়া ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৯ জানুয়ারি, ২০২২, ৮:২২ পিএম

বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল-বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা, মুক্তিযুদ্ধের জেড ফোর্সের অধিনায়ক, সাবেক প্রেসিডেন্ট ও বহুদলীয় গণতন্ত্রের প্রবর্তক শহীদ জিয়াউর রহমানের ৮৬তম জন্মবার্ষিকী আজ। ১৯৩৬ সালের এই দিনে তিনি বগুড়ার গাবতলীর বাগবাড়ীতে জন্মগ্রহণ করেন বাংলাদেশী জাতীয়তাবাদের এই প্রবক্তা।

মুক্তিযুদ্ধের অগ্রসৈনিক এবং যুদ্ধ পরবর্তী দেশ গড়ার এই কারিগরের জন্মদিনে সারাদেশে তাকে শ্রদ্ধা জানিয়ে নানা কর্মসূচিতে পালিত হচ্ছে। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমেও তাঁর প্রতি বিনম্র শ্রদ্ধা ও ভালোবাসা জানাচ্ছে নেটিজেনরা। তাঁর বর্ণাঢ্য কর্মজীবনের কথা স্বরণ করে সৃষ্টিকর্তার কাছে দোয়া প্রার্থনা করছে।

শ্রদ্ধা জানিয়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন বিভাগের অধ্যাপক, বরেণ্য লেখক-কলামিস্ট ড. আসিফ নজরুল ফেইসবুকে লিখেছেন, ‘নিরন্তর কুৎসা আর মিথ্যাচার একটুও ম্লান করতে পারেনি তার প্রতি মানুষের ভালোবাসা। দেশপ্রেম, সৎসাহস, সততা আর দায়িত্বশীলতার মানদন্ডে তিনি ছিলেন অনন্য একজন। শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমানের জন্মদিন আজ। শ্রদ্ধা, ভালোবাসায় স্মরণ করছি উনাকে।’

জিয়াউর রহমানের সাথে একটি ছবি পোস্ট করে ক্যাপশনে জনপ্রিয় সঙ্গীতশিল্পী রুমানা মোর্শেদ কনকচাঁপা লিখেছেন, ‘‘শুভ জন্মদিন বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দলের প্রতিষ্ঠাতা, সফল রাষ্ট্রনায়ক, শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমান। এই মহান নেতা আমাদের স্কুল মাদারটেক আব্দুল আজিজ উচ্চবিদ্যালয় পরিদর্শনে এসেছিলেন। আমি আমার স্কুলের বন্ধুদের নিয়ে গাইছিলাম প্রখ্যাত কিংবদন্তি কণ্ঠশিল্পী শ্রদ্ধেয় শাহনাজ রহমতুল্লাহ আপার সেই গান ‘প্রথম বাংলাদেশ আমার শেষ বাংলাদেশ জীবন বাংলা আমার মরণ বাংলাদেশ’.... ’’

জিয়াউর রহমানকে নিয়ে জনপ্রিয় কণ্ঠশিল্পী আসিফ আকবরের গাওয়া একটি গান ফেইসবুকে শেয়ার করে ক্যাপশনে লিখেছেন, ‘শুভ জন্মদিন শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমান। বিনম্র শ্রদ্ধা হে বীর সেনানী। বাংলাদেশ ধন্য তোমার জন্য হে মহান নেতা… ভালবাসা অবিরাম…’

এমডি আলমগীর মিজি লিখেছেন, ‘মহান স্বাধীনতার ঘোষক, বহুদলীয় গণতন্ত্রের পূণ:প্রবর্তক, মুক্তিযুদ্ধে জেড ফোর্সের অধিনায়ক, আধুনিক বাংলাদেশের রূপকার সাবেক প্রেসিডেন্ট শহীদ জিয়াউর রহমান (বীর উত্তম)-এর ৮৬তম জন্মবার্ষিকী আজ। ১৯৩৬ সালের ১৯ জানুয়ারি তিনি বগুড়ার গাবতলী উপজেলায় নিভৃত পল্লী বাগবাড়ীর এক সম্ভ্রান্ত মুসলিম পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন। দূরদর্শী, দেশপ্রেম, সাহস, বীরত্ব, সততা, কর্মতৎপর, জনঘনিষ্ঠ, ঔদার্য ও আড়ম্বরহীন এক কিংবদন্তি মহান রাষ্ট্রনায়ক হিসেবে জিয়াউর রহমান ইতিহাসে অবিস্মরণীয় হয়ে থাকবেন। ১৯৮১ সালে কতিপয় বিপথগামী সামরিক কর্মকর্তাদের হাতে প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমান চট্টগ্রাম সার্কিট হাউসে মর্মান্তিকভাবে শহীদ হন।’

জাহিদ হোসাইন জিতু লিখেছেন, ‘শুভ জন্মদিন মহান স্বাধীনতার ঘোষক, বহুদলীয় গণতন্ত্রের পূণ:প্রবর্তক, মুক্তিযুদ্ধে জেড ফোর্সের অধিনায়ক, আধুনিক বাংলাদেশের রূপকার সাবেক রাষ্ট্রপতি শহীদ জিয়াউর রহমান বীর উত্তম। সক্রেটিস বলেছেন,তিনিই উৎকৃষ্ট শাসক যিনি অনিচ্ছুক শাসক। ১৯৭৫সালের ৭ই নভেম্বর সিপাহী জনতার ঐক্যের মাধ্যমে ভারতের দাসত্ব, একদলীয় শাসনের গহ্বর থেকে বাংলাদেশ মুক্ত হয়। প্রথমবারের মত এদেশের মাটিতে ভারতীয় আধিপত্যবাদ পরাজিত হয়। মেজর জিয়ার ইচ্ছায় নয়, বাংলার জনতা তাকে এ দেশের শাসক বানিয়েছিলো। সেদিন নাফ থেকে তেঁতুলিয়া উদাস কমল, ভাবুক কমল হলো জনতার জিয়া। শুভ জন্মদিন ক্ষনজন্মা বীর, অনুকরনীয় স্বচ্ছ নেতৃত্বের ব্যাক্তিত্ব, জাতীয়তাবাদের অনুকরণীয় আদর্শ।’

দোয়া প্রার্থনা করে ফিরোজ আলম রানা লিখেছেন, ‘বাংলাদেশের স্বাধীনতার ঘোষক, রণাঙ্গনের অকুতোভয় বীর মুক্তিযোদ্ধা, জেড ফোর্সের অধিনায়ক, মুক্তিযুদ্ধকালীন সেক্টর কমান্ডার, বাংলাদেশের সাবেক সফল সেনা প্রধান, বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল-বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা, বহুদলীয় গণতন্ত্রের প্রবক্তা, আধুনিক ও স্বনির্ভর বাংলাদেশের রূপকার, সার্কের স্বপ্নদ্রষ্টা, মুসলিম বিশ্বের অন্যতম নেতা ও বিশ্ব নন্দিত নেতা, শ্রদ্ধেয় শহীদ জিয়াউর রহমান (বীরউত্তম) সাহেবের ৮৬ তম জন্মবার্ষিকীতে উনার কর্মময় জীবনের প্রতি রইলো গভীর শ্রদ্ধা ও ভালোবাসা.... মহান আল্লাহ্ তায়ালা জাতির এ শ্রেষ্ঠ সন্তানকে জান্নাতুল ফেরদৌস নসীব করুক, উনার পরিবারের সহায় হোক, আমিন।’

আক্ষেপ করে শহিদ আফ্রিদি নোমান লিখেছেন, ‘মহানায়ক জিয়াউর রহমানের জন্মদিনের এমন ক্ষণে দেশমাতা ভালো নেই! শুভ জন্মদিন জনতার জিয়াউর রহমান। সুস্থ্য হোক বাংলাদেশ।’



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: জিয়াউর রহমানের জন্মবার্ষিকী
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ