Inqilab Logo

মঙ্গলবার, ১৭ মে ২০২২, ০৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ১৫ শাওয়াল ১৪৪৩ হিজরী
শিরোনাম

দৈনন্দিন জীবনে ইসলাম

| প্রকাশের সময় : ২১ জানুয়ারি, ২০২২, ১২:০৪ এএম

প্রশ্ন : আমার বাবা আমরা এক ভাই, দুই বোন ও আমার মাকে রেখে ১১ বছর আগে মারা যান। আমার বয়স ছিল ১৯ বছর, দুই বোনের বয়স যথাক্রমে ৯ ও ১৪ বছর। আমাদের আয়ের কোনো উৎস ছিল না। তখন থেকে আমি মা ও দুই বোনের ভরণপোষণ চালিয়ে আসছি। ইতোমধ্যে দুই বোনের বিয়ে দিয়েছি এবং তাদের গয়নাসহ যা যা লাগে সব দিয়েছি। সমস্যাটা হলো আমার মা এখনো দুই বোনকে অনেক কিছু দিতে বলেন। কিন্তু না দিতে পারায় মা ভীষণ অসন্তুষ্ট। মাকে সন্তুষ্ট রাখতে হলে দুই বোনকে সন্তুষ্ট রাখতে হবে। এখন আমার কী করা উচিত?
উত্তর : যে কোনো মূল্যে আপনার মাকে সন্তুষ্ট রাখা আপনার কর্তব্য। তবে যদি মা এমন কোনো কঠিন বা অযৌক্তিক বিষয় আপনার কাছে আশা করেন, যা আপনার পক্ষে সম্ভব নয়, তাহলে এটি শরিয়তের নির্দেশ না হলে অমান্য করলেও আপনার গোনাহগার হবেন না। এতে যদি মা অসন্তুষ্ট হন তবুও করার কিছু নেই। কিন্তু আপনি যথাসাধ্য চেষ্টা করছেন এবং মা’র সন্তুষ্টির প্রত্যাশা রাখেন, আপনার আচরণ এমন হতে হবে। মা’র সাথে কিছুতেই দুর্ব্যবহার করা যাবে না। সর্বোচ্চ চেষ্টা করতে হবে তাকে তার পাওনা সম্মান ও আদর দিতে। যে বিষয়টি আপনি পারছেন না, এর ফলে যে অসন্তুষ্টিটুকু মা’র হয়, আশাকরি এ জন্য আল্লাহ আপনাকে পাকড়াও করবেন না। এখানে একটা বিষয় উল্লেখ্য যে, আপনি মূল পৈত্রিক সম্পত্তিতে বোনদের অংশ দিয়েছেন কি না। যদি না দিয়ে থাকেন তাহলে দিয়ে দিন। আর যদি এসবের বিনিময়ে কোনোকিছু তাদের দেয়ার জন্য মা এমন করে থাকেন তাহলে ব্যাপার ভিন্ন। তখন হিসাব ও সমঝোতা করে সব সমাধান করতে হবে। উত্তরের সবগুলো কথা ও পয়েন্ট আপনাদের সমস্যার সাথে মিলিয়ে দেখুন। প্রয়োজনে বিজ্ঞ মুফতি ও আলেমের সহায়তা নিন।
প্রশ্ন : কোনো মুসলমানকে সালাম দেওয়ার সময় হাত কপালে ঠেকানো যাবে কি? অমুসলিম প্রতিবেশীর দেওয়া খাবার গ্রহণ করা যায় কি?
উত্তর : সালাম দেওয়ার সময় হাত উঠানো বা কপালে ঠেকানো নিতান্তই অর্থহীন ব্যাপার। মুখে ‘আসসালামু আলাইকুম’ স্পষ্ট করে বলাই সালাম। হাত উঠানো বা কপালে ঠেকানো দেশিয় রীতি, সুন্নত বা শরীয়তের বিধান নয়। এসব রীতি যথাসম্ভব বর্জনীয়। অমুসলিম প্রতিবেশীর দেওয়া হালাল উপাদানে তৈরি খাবার গ্রহণ করা যায়। হারামের সংমিশ্রণ ও নৈতিক সমস্যা থাকলে গ্রহণ করা ঠিক হবে না।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ইসলাম


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ