Inqilab Logo

রোববার, ২২ মে ২০২২, ০৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ২০ শাওয়াল ১৪৪৩ হিজরী

বিপিএম-পিপিএম পাচ্ছেন ২৩০ পুলিশ সদস্য

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২১ জানুয়ারি, ২০২২, ৪:২৬ পিএম

২০২০ ও ২০২১ সালে কর্মস্থলে অসীম সাহসিকতা ও বীরত্বপূর্ণ কাজের স্বীকৃতিস্বরূপ চার ক্যাটাগরিতে মোট ২৩০ পুলিশ সদস্যকে বাংলাদেশ পুলিশ পদক (বিপিএম) ও প্রেসিডেন্ট পুলিশ পদক (পিপিএম) দেওয়া হচ্ছে। বৃহস্পতিবার (২০ জানুয়ারি) প্রেসিডেন্টের আদেশক্রমে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের জননিরাপত্তা বিভাগের সিনিয়র সহকারী সচিব (পুলিশ-২ শাখা) সিরাজাম মুনিরা স্বাক্ষরিত প্রজ্ঞাপনে এই তথ্য জানানো হয়।
প্রজ্ঞাপনে বলা হয়, অসীম সাহসিকতা ও বীরত্বপূর্ণ কাজের স্বীকৃতি হিসেবে ২০২০ সালে ১৫ জন পুলিশ সদস্যকে বাংলাদেশ পুলিশ পদক (বিপিএম) ও ২৫ জনকে প্রেসিডেন্ট পুলিশ পদক (পিপিএম) দেওয়া হয়েছে। গুরুত্বপূর্ণ মামলার রহস্য উদ্ঘাটন, অপরাধ নিয়ন্ত্রণ, দক্ষতা, কর্তব্যনিষ্ঠা, সততা ও শৃঙ্খলামূলক আচরণের মাধ্যমে প্রশংসনীয় অবদানের জন্য ২৫ জন পুলিশ সদস্যকে বাংলাদেশ পুলিশ পদক (বিপিএম-সেবা) ও ৫০ জনকে প্রেসিডেন্ট পুলিশ পদক (পিপিএম-সেবা) দেওয়া হয়েছে।

আরেকটি প্রজ্ঞাপনে একইভাবে বলা হয়েছে, অসীম সাহসিকতা ও বীরত্বপূর্ণ কাজের স্বীকৃতি হিসেবে ২০২১ সালে ১৫ জন পুলিশ সদস্যকে বাংলাদেশ পুলিশ পদক (বিপিএম) ও ২৫ জনকে প্রেসিডেন্ট পুলিশ পদক (পিপিএম) দেওয়া হয়েছে। গুরুত্বপূর্ণ মামলার রহস্য উদ্ঘাটন, অপরাধ নিয়ন্ত্রণ, দক্ষতা, কর্তব্যনিষ্ঠা, সততা ও শৃঙ্খলামূলক আচরণের মাধ্যমে প্রশংসনীয় অবদানের জন্য ২৫ জন পুলিশ সদস্যকে বাংলাদেশ পুলিশ পদক (বিপিএম-সেবা) ও ৫০ জনকে প্রেসিডেন্ট পুলিশ পদক (পিপিএম-সেবা) দেওয়া হয়েছে।

পুলিশ সদর দপ্তর সূত্রে জানা যায়, বিপিএম সাহসিকতা ও সেবা এবং পিপিএম সাহসিকতা ও সেবা-এই চারটি ক্যাটাগরিতে প্রতিবছর এই পুরস্কার দেওয়া হয়। প্রতিবছর পুলিশ সপ্তাহের বার্ষিক পুলিশ প্যারেডে সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের এ পদক পরিয়ে দেন প্রধানমন্ত্রী। যারা এ পদকে ভূষিত হন তাদের নামের শেষে পিপিএম-পিপিএম উপাধি যুক্ত হয়। প্রতিবছর জানুয়ারিতে পুলিশ সপ্তাহ অনুষ্ঠিত হলেও করোনাভাইরাসের কারণে গত বছর তা হয়নি। এবার পুলিশ সপ্তাহ উদযাপনের সিদ্ধান্ত হওয়ায় ইতোমধ্যেই পুলিশ সদর দপ্তর ব্যাপক প্রস্তুতি নিয়েছে। আগামী ২৩ জানুয়ারি রাজারবাগ পুলিশ লাইনস মাঠে আয়োজিত পুলিশ সপ্তাহের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ভার্চুয়ালি যুক্ত থাকবেন।

বিপিএম-পিপিএম পাচ্ছেন ২৩০ পুলিশ সদস্য
ইনকিলাব ডেস্ক : ২০২০ ও ২০২১ সালে কর্মস্থলে অসীম সাহসিকতা ও বীরত্বপূর্ণ কাজের স্বীকৃতিস্বরূপ চার ক্যাটাগরিতে মোট ২৩০ পুলিশ সদস্যকে বাংলাদেশ পুলিশ পদক (বিপিএম) ও প্রেসিডেন্ট পুলিশ পদক (পিপিএম) দেওয়া হচ্ছে। বৃহস্পতিবার (২০ জানুয়ারি) প্রেসিডেন্টের আদেশক্রমে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের জননিরাপত্তা বিভাগের সিনিয়র সহকারী সচিব (পুলিশ-২ শাখা) সিরাজাম মুনিরা স্বাক্ষরিত প্রজ্ঞাপনে এই তথ্য জানানো হয়।
প্রজ্ঞাপনে বলা হয়, অসীম সাহসিকতা ও বীরত্বপূর্ণ কাজের স্বীকৃতি হিসেবে ২০২০ সালে ১৫ জন পুলিশ সদস্যকে বাংলাদেশ পুলিশ পদক (বিপিএম) ও ২৫ জনকে প্রেসিডেন্ট পুলিশ পদক (পিপিএম) দেওয়া হয়েছে। গুরুত্বপূর্ণ মামলার রহস্য উদ্ঘাটন, অপরাধ নিয়ন্ত্রণ, দক্ষতা, কর্তব্যনিষ্ঠা, সততা ও শৃঙ্খলামূলক আচরণের মাধ্যমে প্রশংসনীয় অবদানের জন্য ২৫ জন পুলিশ সদস্যকে বাংলাদেশ পুলিশ পদক (বিপিএম-সেবা) ও ৫০ জনকে প্রেসিডেন্ট পুলিশ পদক (পিপিএম-সেবা) দেওয়া হয়েছে।

আরেকটি প্রজ্ঞাপনে একইভাবে বলা হয়েছে, অসীম সাহসিকতা ও বীরত্বপূর্ণ কাজের স্বীকৃতি হিসেবে ২০২১ সালে ১৫ জন পুলিশ সদস্যকে বাংলাদেশ পুলিশ পদক (বিপিএম) ও ২৫ জনকে প্রেসিডেন্ট পুলিশ পদক (পিপিএম) দেওয়া হয়েছে। গুরুত্বপূর্ণ মামলার রহস্য উদ্ঘাটন, অপরাধ নিয়ন্ত্রণ, দক্ষতা, কর্তব্যনিষ্ঠা, সততা ও শৃঙ্খলামূলক আচরণের মাধ্যমে প্রশংসনীয় অবদানের জন্য ২৫ জন পুলিশ সদস্যকে বাংলাদেশ পুলিশ পদক (বিপিএম-সেবা) ও ৫০ জনকে প্রেসিডেন্ট পুলিশ পদক (পিপিএম-সেবা) দেওয়া হয়েছে।

পুলিশ সদর দপ্তর সূত্রে জানা যায়, বিপিএম সাহসিকতা ও সেবা এবং পিপিএম সাহসিকতা ও সেবা-এই চারটি ক্যাটাগরিতে প্রতিবছর এই পুরস্কার দেওয়া হয়। প্রতিবছর পুলিশ সপ্তাহের বার্ষিক পুলিশ প্যারেডে সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের এ পদক পরিয়ে দেন প্রধানমন্ত্রী। যারা এ পদকে ভূষিত হন তাদের নামের শেষে পিপিএম-পিপিএম উপাধি যুক্ত হয়। প্রতিবছর জানুয়ারিতে পুলিশ সপ্তাহ অনুষ্ঠিত হলেও করোনাভাইরাসের কারণে গত বছর তা হয়নি। এবার পুলিশ সপ্তাহ উদযাপনের সিদ্ধান্ত হওয়ায় ইতোমধ্যেই পুলিশ সদর দপ্তর ব্যাপক প্রস্তুতি নিয়েছে। আগামী ২৩ জানুয়ারি রাজারবাগ পুলিশ লাইনস মাঠে আয়োজিত পুলিশ সপ্তাহের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ভার্চুয়ালি যুক্ত থাকবেন।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ