Inqilab Logo

বুধবার, ১৮ মে ২০২২, ০৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ১৬ শাওয়াল ১৪৪৩ হিজরী

শেরপুরে অজ্ঞাত সেই মহিলার মরদেহের পরিচয় মিলেছে, স্বামী আটক

শেরপুর জেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ২২ জানুয়ারি, ২০২২, ১০:১০ পিএম

শেরপুর জেলার সদর উপজেলার কামারিয়া ইউনিয়নের নিজ আন্ধারিয়া গ্রাম থেকে ২২ জানুয়ারি শনিবার সকাল ৯টার দিকে উদ্ধার হওয়া অজ্ঞাত এক মহিলার বস্তাবন্দী লাশের পরিচয় মিলেছে। নূরেজা বেগম (৪০) নামের ওই মহিলা নকলা উপজেলার ইসিবপুর গ্রামের নূর ইসলামের মেয়ে ও কায়দা গ্রামের আজহার আলীর স্ত্রী। সে দুই সন্তানের জননী।

কিভাবে খুন হয়েছে দা এখনো জানা যায়নি। তবে স্বামী আজহার আলীকে আটক করে নকলা থানায় জিজ্ঞাসাবাদ করেছে পিবিআই ও জেলা গোয়েন্দা পুলিশ।

প্রত্যক্ষদর্শী ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, সদর উপজেলার নিজ আন্ধারিয়া গ্রামের জনৈক কৃষক ফরমান আলীর চাষ করা ইরি বোরো ক্ষেতের পার্শ্বে শুক্রবার রাতের কোন এক সময়ে নিহত নুরেজার মরদেহ হত্যার পর গুম করার উদ্দেশ্যে মরদেহ বস্তাবন্দী করে ফেলে রেখে যায়। শনিবার সকাল ৭টার দিকে কৃষক ফরমান আলী তার ক্ষেতে ইরি বোরো চারা রোপণ করতে গিয়ে ওই অজ্ঞাত মহিলার বস্তাবন্দী লাশ দেখতে পেয়ে শেরপুর সদর থানায় খবর দেয়।

পরে খবর পেয়ে শেরপুরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) মোহাম্মদ হান্নান মিয়া, সদর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি তদন্ত) বন্দে আলী, উপ-পরিদর্শক (এসআই) মোফাখখির উদ্দিন, এসআই রুবেল, এসআই আশরাফ সঙ্গীয় ফোর্সসহ ঘটনাস্থল গিয়ে লাশ উদ্ধার করে সূরতহাল রিপোর্ট তৈরি শেষে ময়না তদন্তের জন্য শেরপুর জেলা সদর হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করেছে।

এর পর থেকেই পুলিশ, পিবিআই ও জেলা গোয়েন্দা পুলিশ তদন্তে নামে। এক পর্যায়ে পরিচয় পাওয়া যায় অজ্ঞাত মহিলার। এর পরেই সন্দেহ হয় স্বামী আজহারের প্রতি। তাই তাকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত নকলা থানায় জিজ্ঞাসাবাদ চলছে। হত্যার কারণ বা অন্য কোন তথ্য এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত পাওয়া যায়নি। এখন পর্যন্ত কোন মামলাও হয়নি।

এব্যাপারে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) মোহাম্মদ হান্নান মিয়া বলেন, পুলিশ নিশ্চিত হওয়ার পরই তা জানানো হবে। বিষয়টির তদন্ত এখন প্রাথমিক পর্যায়ে রয়েছে। তবে আজহার আলীর দ্বিতীয় স্ত্রী এটা। তার বর্তমানেও দুটি স্ত্রী ছিলো। এর পরেও সে আরো একাধিক বিয়ে করেছে বলে স্থানীয়রা জানান।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ