Inqilab Logo

বৃহস্পতিবার, ১৯ মে ২০২২, ০৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ১৭ শাওয়াল ১৪৪৩ হিজরী

আলমারি গুছিয়ে আয়

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৩ জানুয়ারি, ২০২২, ১২:০১ এএম

ঘর গোছানোর নেশা অনেকেরই রয়েছে। বিশেষ করে আলমারি। সব কিছু জায়গা মতো না থাকলে যেন কিছুতেই শান্তি পাওয়া যায় না। নিজের আলমারি তো অনেকেই গোছান। ইচ্ছে হলে অন্যের আলমারিও গুছিয়ে দেন। আর এই কাজ করেই মাসে প্রায় ৬০ হাজার টাকা রোজগার করছেন এক তরুণী। না, মিথ্যে নয় সত্যিই!

ব্রিটেনের লেইসেস্টারে থাকেন এলা ম্যাকমাহোন। বয়স ১৯। এই বয়সেই মাসে তার যা রোজগার বাংলাদেশি মুদ্রায় তা প্রায় ৬০ হাজার টাকার সমান। কী করেন এলা? সুন্দর করে অন্যের আলমারি গুছিয়ে দেন। আর তার বদলেই এই অর্থ পান। এখনও পড়াশোনা করছেন এলা। তার পাশাপাশি আলমারি গোছানোর কাজ দিব্যি চালিয়ে যাচ্ছেন। যা আয় হচ্ছে, তার কিছু টাকা নিজের ও পড়াশোনার জন্য খরচ করেন। বাকিটা জমিয়ে রেখে দেন বাড়ি তৈরি করার জন্য।

এলার এ কাজের খবর ইতিমধ্যেই নানা সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত হয়েছে। এক সংবাদমাধ্যমকে সাক্ষাতকার দিতে গিয়ে ১৯ বছরের তরুণী জানান, ছোটবেলা থেকেই তার ঘর গোছানো স্বভাব। বিশেষ করে আলমারি। ঘণ্টার পর ঘণ্টা এই কাজ করতে পারেন তিনি। এটাই তার নেশা, যা এখন পেশায় পরিণত হয়েছে।
আগে এমনিই আত্মীয়-বন্ধুদের আলমারি গুছিয়ে দিতেন এলা। ধীরে ধীরে অচেনা লোকের আলমারি গুছিয়ে দিতে শুরু করেন। আর তার জন্য অর্থ নিতে থাকেন। এভাবেই তার সুখ্যাতি ছড়িয়ে পড়ে। সবার প্রথমে আলমারি থেকে অপ্রয়োজনীয় পোশাকগুলি বাদ দেন এলা। তারপর রং মিলিয়ে সমস্ত কিছু রাখেন। অপ্রয়োজনীয় পোশাকগুলো আবার নিয়ে গিয়ে দুস্থদের দিয়ে দেন। এখন অন্তত ২০ জন রেগুলার ক্লায়েন্ট রয়েছে এলার। যারা দু’সপ্তাহ অন্তর এলাকে আলমারি গোছাতে ডাকেন। প্রতি ঘণ্টায় ১৫০০ থেকে ২০০০ টাকা আয় করেন ১৯ বছরের তরুণী। সূত্র : ডেইলি মেইল।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ