Inqilab Logo

শুক্রবার, ২০ মে ২০২২, ০৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ১৮ শাওয়াল ১৪৪৩ হিজরী

ভয়াবহ দাবানল ক্যালিফোর্নিয়ায়! আতঙ্কে বাড়িছাড়া বহু মানুষ

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৩ জানুয়ারি, ২০২২, ১২:০০ এএম

গত বছরের শেষে দাবানলে ছারখার হয়েছিল আমেরিকার ক্যালিফোর্নিয়া সংলগ্ন বিস্তৃত অঞ্চল। কয়েক সপ্তাহের মধ্যে ফের দাবানলের কবলে ক্যালিফোর্নিয়ার বিগ সার। গত শুক্রবার থেকে দাউদাউ করে জ্বলতে শুরু করেছে আগুন, যাকে এখনও নিয়ন্ত্রণে আনা যায়নি। দ্রুত এলাকা ছাড়তে নির্দেশ দেয়া হয়েছে এলাকার বাসিন্দাদের। নির্দেশ মেনে দলে দলে মানুষ বাড়ি ছেড়ে অন্যত্র চলে যাচ্ছেন বলে জানা গেছে।
জানা গেছে, কলোরাডো খাত সংলগ্ন অরণ্যে প্রথমে আগুন লাগে। পরে সেই আগুন দ্রুত ছড়িয়ে পড়তে থাকে। প্রায় আড়াইশো একর এলাকায় ছড়িয়ে পড়েছে আগুনের লেলিহান শিখা। ফলে বাড়ছে আতঙ্ক। দাবানলকে ডাকা হচ্ছে ‘কলোরাডো ওয়াইল্ডফায়ার’ নামে। সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়েছে আগুনের ভিডিও। দেখে শিউরে উঠছেন নেটিজেনরা।
ইতোমধ্যেই আবহাওয়াবিদরা পূর্বাভাসে জানিয়েছেন, ওই এলাকায় প্রবল বাতাস বইবে পরবর্তী সারাদিন ধরেই। ফলে আরো দ্রুত আগুন ছড়িয়ে পড়তে পারে। ইতোমধ্যেই বিপর্যয় এড়াতে হাইওয়ে ১-এর অনেকটা অংশই বন্ধ করে দেয়া হয়েছে।
গত বছরের একেবারে শেষেও দাবানলে কলোরাডো প্রদেশের বহু ঘরবাড়ি পুড়ে ছারখার হয়ে যায়। সব মিলিয়ে প্রায় ছ’শোটির মতো ঘরবাড়ির ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়। যদিও প্রাণহানির খবর মেলেনি, আগে থেকে এলাকা খালি করে দেওয়ায়। রাতারাতি প্রায় কোনও প্রস্তুতি ছাড়াই এলাকা ছাড়েন এলাকার বাসিন্দারা। দাবানলে সবচেয়ে বেশি ক্ষতি হয় ডেনভার ও বোল্ডার কাউন্টির মধ্যবর্তী দুই শহর লুইভিল ও সুপিরিয়রের।
কেন বারবার এভাবে দাবানলের প্রকোপ লক্ষ করা যাচ্ছে? এর জন্য গ্লোবাল ওয়ার্মিংকেই দায়ী করছেন বিজ্ঞানীরা। গ্লোবাল ওয়ার্মিংয়ের ধাক্কায় আবহাওয়ার যে পরিবর্তন সৃষ্টি হয়েছে তারই ফলশ্রুতি এ ধরনের প্রাকৃতিক বিপর্যয়। সূত্র : সিবিএস সানফ্রান্সিসকো।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন