Inqilab Logo

শুক্রবার, ২৭ মে ২০২২, ১৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ২৫ শাওয়াল ১৪৪৩ হিজরী
শিরোনাম

ফ্লাইট বন্ধ করা নিয়ে চীন-মার্কিন মুখোমুখি

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৪ জানুয়ারি, ২০২২, ১২:০৬ এএম

চীনের সঙ্গে যুক্তরাষ্ট্রের বিরোধের পারদ ক্রমেই চড়ছে। এ অবস্থায় যুক্তরাষ্ট্রের এয়ারলাইনসগুলোর ফ্লাইট বন্ধ করে দিয়েছে চীন। এর প্রতিশোধ হিসেবে যুক্তরাষ্ট্রও চীনের ৪৪টি ফ্লাইট বাতিল করেছে। মার্কিন পরিবহন বিভাগ এক আদেশে এ নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে। ফলে চীনের চারটি এয়ারলাইনস ক্ষতিগ্রস্ত হবে। এর আগে ডেল্টা এয়ারলাইনস, ইউনাইটেড এয়ারলাইনস ও আমেরিকান এয়ারলাইনসের কিছু যাত্রীর সংক্রমণ শনাক্ত হওয়ায় এসব প্রতিষ্ঠানের অভ্যন্তরীণ ফ্লাইট নিষিদ্ধ করে চীন। দেশটির এ পদক্ষেপকে অন্য দেশের উড়োজাহাজ পরিচালনা সংস্থার বিষয়ে হস্তক্ষেপ হিসেবে দেখছে যুক্তরাষ্ট্র। মার্কিন পরিবহন বিভাগ জানিয়েছে, যুক্তরাষ্ট্রের বিভিন্ন এয়ারলাইনসের ৪৪টি ফ্লাইট বাতিলে চীনের পদক্ষেপ জনস্বার্থবিরোধী। ফলে যুক্তরাষ্ট্রও এর প্রতিশোধমূলক ব্যবস্থা নেবে। চীনের নিয়ন্ত্রক সংস্থার নিয়মগুলো অন্যায্য উল্লেখ করে যুক্তরাষ্ট্রের কর্তৃপক্ষ বলছে, ফ্লাইটের আগে যেসব যাত্রীর কভিড পরীক্ষার ফলাফল নেগেটিভ এসেছে কিন্তু এর সাতদিন পর আবার পজিটিভ আসে, তাহলে তাদের ভবিষ্যৎ ফ্লাইট বাতিল হতে পারে। এমন অবস্থায় ৩০ জানুয়ারি থেকে ২৯ মার্চ পর্যন্ত এয়ার চায়না, চায়না ইস্টার্ন এয়াললাইনস, চায়না সাউদার্ন এয়ারলাইনস ও জিয়ামেন এয়ারলাইনসর ফ্লাইট চলাচল সীমিত করার নির্দেশ দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। ফ্লাইট নিয়ে বিরোধ দেশ দুটির মধ্যে নতুন নয়। এর আগে ২০২০ সালে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের সময় মহামারীর শুরুর দিকেও চীনের ফ্লাইট বন্ধের হুমকি দেয়া হয়েছিল। নানা আলোচনার পর কেবল ইউনাইটেড ও ডেল্টা এয়ারলাইনসকে সীমিত সংখ্যক ফ্লাইট পরিচালনার অনুমতি দেয়া হয়েছিল। সেই একই অবস্থার অবতারণা হয়েছে গত বছরের আগস্টে। ডিসেম্বরে এসে আরো স্পষ্ট হয় এ-সংক্রান্ত বিরোধ। এপি।

 

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ফ্লাইট

২৮ এপ্রিল, ২০২২

আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ