Inqilab Logo

মঙ্গলবার, ১৭ মে ২০২২, ০৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ১৫ শাওয়াল ১৪৪৩ হিজরী

রংপুর বিভাগে ২৪ ঘণ্টায় ২৫৪ জনের করোনা পজেটিভ শনাক্ত

রংপুর থেকে স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২৪ জানুয়ারি, ২০২২, ৪:২৪ পিএম | আপডেট : ৪:২৫ পিএম, ২৪ জানুয়ারি, ২০২২

গত ২৪ ঘণ্টায় রংপুর বিভাগে আরও ২৫৪ জন করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছে। যা শনাক্তের হার ৪৩ দশমিক ৫৭ শতাংশে।
সোমবার (২৪ জানুয়ারি) এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন স্বাস্থ্য অধিদফতরের রংপুর বিভাগীয় পরিচালক ডাঃ আবু মোঃ জাকিরুল ইসলাম।
তিনি জানিয়েছেন, গত ২৪ ঘণ্টায় রংপুর বিভাগের আট জেলায় ৫৮৩ জনের নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। এতে রংপুরে ৮০ জন, দিনাজপুরে ৭৫ জন, নীলফামারীতে ১৭ জন, ঠাকুরগাঁওয়ে ৩৬ জন, পঞ্চগড়ে ১৯ জনসহ গাইবান্ধায় ১১ জন, লালমনিরহাটে ১১ জন এবং কুড়িগ্রাম জেলায় ৫ জনের করোনা পজিটিভ শনাক্ত হয়েছে।
এর আগের দিন শুক্রবার বিভাগে ১৬৪ জন করোনা রোগী শনাক্ত হয়। শনাক্তের হার ছিল ২৮ দশমিক ৯২ শতাংশ। বর্তমানে বিভাগে করোনা আক্রান্ত মোট ২৯ জনকে হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে। এর মধ্যে সংকটাপন্ন ৮ রোগীকে আইসিইউ-তে রাখা হয়েছে।
পরিচালক আরও জানান, রংপুর বিভাগে করোনায় সবচেয়ে বেশি আক্রান্ত ও মৃত্যু হয়েছে দিনাজপুরে। এ জেলায় সর্বোচ্চ আক্রান্ত ১৫ হাজার ৩০৭ এবং ৩৩৩ জন মারা গেছেন। দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ২৯৩ জনের মৃত্যু হয়েছে বিভাগীয় জেলা রংপুরে। এ জেলায় আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১২ হাজার ৮৫৩-তে।
জেলা হিসাবে সবচেয়ে কম মারা গেছেন (৬৩ জন) গাইবান্ধায়। এ জেলায় করোনা শনাক্ত হয়েছে ৪ হাজার ৯৫৩ জনের। ঠাকুরগাঁওয়ে মৃত্যু ২৫৬ ও শনাক্ত ৭ হাজার ৮২৭, নীলফামারীতে মৃত্যু ৮৯ ও শনাক্ত ৪ হাজার ৫৬২, পঞ্চগড়ে মৃত্যু ৮১ ও শনাক্ত ৩ হাজার ৮৯৬, কুড়িগ্রামে মৃত্যু ৬৯ ও শনাক্ত ৪ হাজার ৬৮৪ এবং লালমনিরহাট জেলায় মৃত্যু ৬৯ ও আক্রান্ত ২ হাজার ৮০৯ জন।
তিনি আরও জানিয়েছেন, ২০২০ সালের মার্চে করোনার সংক্রমণ শুরুর পর থেকে এখন পর্যন্ত বিভাগে মোট ৩ লাখ ১৩ হাজার ২২৯ জনের নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। এর মধ্যে ৫৬ হাজার ৮৯১ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। আট জেলায় মৃত্যু হয়েছে ১ হাজার ২৫৩ জনের। এখন পর্যন্ত বিভাগে সুস্থ হয়েছেন ৫৪ হাজার ৫৯২ জন।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: করোনা


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ