Inqilab Logo

বৃহস্পতিবার, ১৯ মে ২০২২, ০৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ১৭ শাওয়াল ১৪৪৩ হিজরী

আয়ারল্যান্ড উপকূলে মহড়া চালাবে রাশিয়া

ব্রিটিশ সরকারের অভিযোগকে গুজব উল্লেখ করে প্রত্যাখ্যান

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৫ জানুয়ারি, ২০২২, ১২:০১ এএম

ইউক্রেনে রাশিয়ার সম্ভাব্য হামলার অজুহাতে মস্কোর বিরুদ্ধে পাশ্চাত্যের সমরসজ্জা শক্তিশালী করার অংশ হিসেবে হল্যান্ড সরকার বুলেগেরিয়ায় এফ-৩৫ জঙ্গিবিমান পাঠিয়েছে। ডাচ সরকার এর কারণ হিসেবে কোনো রাখঢাক না রেখে ইউক্রেন পরিস্থিতি নিয়ে সৃষ্ট উদ্বেগের কথা খোলাখুলিভাবে ঘোষণা করেছে। ডাচ সরকার আরা বলেছে, দেশটি ইউক্রেনে সামরিক উপদেষ্টা পাঠানোর পাশাপাশি দেশটিকে আরো বেশি সমরাস্ত্র দিয়ে সহযোগিতা করতে প্রস্তুত রয়েছে। এদিকে প্রায় ২০০ সৈন্য নিয়ে স্পেনের একটি রণতরী কৃষ্ণসাগর অভিমুখে যাত্রা করেছে। ইউক্রেন-রুশ সীমান্তে উত্তেজনা বেড়ে যাওয়ার প্রেক্ষাপটে ওই অঞ্চলে ন্যাটো জোটের অবস্থান শক্তিশালী করার লক্ষ্যে এ পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে। মার্কিন নেতৃত্বাধীন সামরিক জোট ন্যাটোর ওয়েবসাইটে প্রকাশিত বিবৃতিতে বলা হয়েছে, স্পেনের রণতরীটি কৃষ্ণসাগরে এই জোটের নৌবহরে যোগ দেবে যেখানে আগে থেকেই তুরস্ক ও ইতালির যুদ্ধজাহাজ রয়েছে। অন্যদিকে রাশিয়ার বিরুদ্ধে শক্তিমত্তা প্রদর্শনের জন্য পশ্চিমা দেশগুলো যখন কিয়েভ অভিমুখে সমরাস্ত্রের ভাণ্ডার খুলে দিয়েছে তখন রাশিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় বলেছে, দেশটি আয়ারল্যান্ড উপকূলে একটি সামরিক মহড়া চালাবে। আগামী ফেব্রুয়ারি মাসের গোড়ার দিকে তাজা গোলাগুলি ব্যবহার করে এ মহড়া অনুষ্ঠিত হবে। আসন্ন এ মহড়ায় ঠিক কতো রুশ সেনা অংশ নেবে তা জানানো না হলেও দেশটির প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় বলেছে, আয়ারল্যান্ডের উপকূল থেকে ২৪০ কিলোমিটার দক্ষিণ-পশ্চিমে আন্তর্জাতিক পানিসীমায় এ মহড়া অনুষ্ঠিত হবে। রাশিয়া ইউক্রেনে আগ্রাসন চালিয়ে দেশটিকে দখল করে নিতে চায় বলে অভিযোগ করছে আমেরিকাসহ পশ্চিমা দেশগুলো যদিও রাশিয়া এ অভিযোগ সরাসরি নাকচ করে দিয়েছে। অপরদিকে, রাশিয়া ইউক্রেনে একজন রুশ-পন্থি নেতাকে ক্ষমতায় বসানোর চেষ্টা করছে বলে ব্রিটিশ সরকার যে অভিযোগ করেছে তাকে ‘গুজব’ উল্লেখ করে প্রত্যাখ্যান করেছে মস্কো। রাশিয়া বলেছে, ন্যাটোভুক্ত দেশগুলো রাশিয়ার সঙ্গে উত্তেজনা বাড়ানোর চেষ্টা করছে। রুশ পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এক টুইটার বার্তায় বলেছে, ব্রিটিশ সরকার যে গুজব ছড়িয়েছে তা থেকে আরেকবার প্রমাণিত হয়েছে যে, ন্যাটোভুক্ত দেশগুলো ইউক্রেন ইস্যুতে উত্তেজনা ছড়ানোর চেষ্টা করছে। টুইটার বার্তায় আরো বলা হয়েছে, “আমরা ব্রিটিশ পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়কে অর্থহীন কথাবার্তা ছড়ানো থেকে বিরত থাকার আহ্বান জানাচ্ছি।” এর আগে শনিবার ব্রিটিশ পররাষ্ট্র দপ্তর দাবি করেছিল, তাদের কাছে এমন তথ্য রয়েছে যে, রাশিয়া ইউক্রেন দখলের পরিকল্পনা করার পাশাপাশি একজন রুশ-পন্থি নেতাকে কিয়েভের ক্ষমতায় বসানোর চেষ্টা করছে। ব্রিটিশ পররাষ্ট্র দপ্তর কোনো প্রমাণ উপস্থাপন ছাড়া আরো জানায়, ইউক্রেনের সাবেক রুশ-পন্থি সংসদ সদ্য ইয়েভহেন মুরাইয়েভকে কিয়েভের ক্ষমতায় বসানোর জন্য সম্ভাব্য প্রার্থী হিসেবে বাছাই করা হয়েছে। তাস, আরটি।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: আয়ারল্যান্ড উপকূলে মহড়া চালাবে রাশিয়া
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ