Inqilab Logo

বুধবার, ২৫ মে ২০২২, ১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ২৩ শাওয়াল ১৪৪৩ হিজরী
শিরোনাম

কমলাপুর রেলওয়ে স্টেশনে সতর্কতা

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২৫ জানুয়ারি, ২০২২, ১২:০৬ এএম

মহামারি করোনাভাইরাসের নতুন ধরন ওমিক্রনে আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ছে। ওমিক্রনের বিস্তার রোধে কমলাপুর রেলওয়ে স্টেশনেও নেয়া হয়েছে কঠোর সতর্কতামূলক ব্যবস্থা। করোনা সংক্রমণের প্রথমদিক থেকেই রেলওয়ে কর্তৃপক্ষ বেশ তৎপর ছিল। এর মধ্যে ওমিক্রন শনাক্ত হওয়ায় আবারও অর্ধেক যাত্রী পরিবহন শুরু হয় ট্রেনে। স্বাস্থ্যবধি নিয়ে ফের নড়েচড়ে বসে কমলাপুর রেলওয়ে কর্তৃপক্ষ।

ইতোমধ্যে করোনাভাইরাসের নতুন ধরন ওমিক্রনের সংক্রমণ রোধে সরকার ঘোষিত বিধিনিষেধ মেনে চলাচল করছে রেল। মোট আসন সংখ্যার অর্ধেক যাত্রী নিয়ে চলছে আন্তঃনগর রেল। গত ১৫ জানুয়ারি থেকে নতুন সিদ্ধান্ত কার্যকর হয়েছে। আন্তঃনগর ট্রেন পরিচালনার ক্ষেত্রে রেলওয়ের কর্মকর্তা-কর্মচারী ও যাত্রীদের স্বাস্থ্যগত নিরাপত্তার স্বার্থে সামাজিক দূরত্ব ও মাস্ক ব্যবহার নিশ্চিতের মাধ্যমে টিকিট বিক্রিতে কয়েকটি সংশোধন আনা হয়েছে। রেলপথ মন্ত্রণালয় অনুমোদিত ইমার্জেন্সি কোটা ও ম্যানুয়াল অনুযায়ী কোটা ব্যতীত আন্তঃনগর ট্রেনের টিকিট বিক্রিতে সব ধরনের কোটা ব্যবস্থা রহিত করা হয়েছে।
কমলাপুর স্টেশনের স্টেশন ম্যানেজার মোহাম্মদ মাসুদ সারোয়ার জানান, সরকার ঘোষিত বিধিনিষেধ মেনে চলার ওপর সর্বোচ্চ গুরুত্ব দেয়া হচ্ছে। সবগুলো ট্রেনে যাত্রা শুরুর আগে এবং শেষে জীবাণুনাশক দিয়ে পরিষ্কার করা হয়। গতকাল সোমবার কমলাপুর রেলওয়ে স্টেশন ঘুরে দেখা যায়, মাস্ক ছাড়া কাউকে কমলাপুর রেলওয়ে স্টেশনে ঢুকতে দিচ্ছেন না রেলওয়ের নিরাপত্তাকর্মীরা। আবার স্টেশনের ভেতরে কেউ মাস্ক ছাড়া আছে কি না সেটিও দেখছেন তারা। যদিও স্টেশন এলাকায় প্রবেশের সময় মাস্ক পরলেও ভেতরে এসে অনেক যাত্রীকে মাস্ক খুলে রাখতে দেখা গেছে। স্টেশনের ভেতরে প্রবেশ করতে হলে প্রত্যেক যাত্রীকেই টিকিট প্রদর্শন করতে হচ্ছে। টিকিট ছাড়া প্রবেশের অনুমতি দেয়া হচ্ছে না। ভ্রমণ শেষে টিকিট ছাড়া কোনো যাত্রীকে পেলেই ভাড়াসহ জরিমানা করা হচ্ছে। স্বাস্থ্যবিধি মানার বিষয়ে সাধারণ যাত্রীদের হ্যান্ড মাইকে সচেতন করা হচ্ছে। এর ক্ষতিকর দিক এবং মাস্ক না পরলে কী হতে পারে এসব নিয়ে বলছেন দায়িত্বপ্রাপ্তরা।
যাত্রীরা জানান, আগের চেয়ে এখন পরিবেশ বেশ ভালো। স্টেশনের লোকজন মাস্ক ছাড়া কাউকেই ভিতরে প্রবেশ করতে দিচ্ছেন না। টিকিট নিয়ে স্বাস্থ্যবিধি মেনেই স্টেশনের ভিতরে প্রবেশ করতে হচ্ছে। বিনা টিকিটেই প্রবেশ করলে জরিমানা করা হচ্ছে। হাত ধোয়ার ব্যবস্থাও রাখা হয়েছে।
স্টেশনের এক কর্মকর্তা বলেন, স্টেশন এলাকায় গুটিকয়েক লোক মাস্কবিহীন থাকলেও বেশিরভাগই মাস্ক পরেছেন। তবে ভেতরে প্রবেশ করতে হলে অবশ্যই মাস্ক পরতে করতে হবে। প্রবেশের সময় স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে সবাইকে অনুরোধ করছি। হ্যান্ড স্যানিটাইজার রয়েছে। হাত ধোয়ার ব্যবস্থা করা হয়েছে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: কমলাপুর রেলওয়ে স্টেশনে সতর্কতা
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ