Inqilab Logo

বুধবার, ২৫ মে ২০২২, ১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ২৩ শাওয়াল ১৪৪৩ হিজরী

ভারতের হোয়াইটওয়াশ লজ্জা

স্পোর্টস রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২৫ জানুয়ারি, ২০২২, ১২:০০ এএম

এক ম্যাচে কতকিছু হলো। ডি কক সেঞ্চুরি করলেন। কোহলি ফিফটি পেয়ে উদযাপন করলেন গ্যালারিতে বসে থাকা মেয়েকে উদ্দেশ্য করে। আরেকবার তিনি পুড়লেন সেঞ্চুরি আক্ষেপেও। কিন্তু অনেক কাছে গিয়েও জেতা হলো না ভারতের। গতপরশু রাতে তিন ম্যাচ সিরিজের শেষটিতে ৪ রানে হেরেছে সফরকারীরা। সিরিজের সবগুলো ম্যাচ হেরে হয়েছে হোয়াইটওয়াশ। এর আগে টেস্ট সিরিজেও ২-১ ব্যবধানে হেরেছিল তারা। তাই বলা চলে, অনেকটা শূন্য হাতেই দক্ষিণ আফ্রিকা থেকে ফিরতে হচ্ছে ভারতকে। কেপ টাউনে টস হেরে ব্যাট করতে নামা প্রোটিয়াদের শুরুটা অবশ্য ভালো হয়নি। ৮ রানে দারুণ ফর্মে থাকা ইয়ানেমান মালানকে হারায় তারা। এরপর স্কোরবোর্ডে ৭০ রান যোগ করার আগেই ৩ উইকেট হারায় দক্ষিণ আফ্রিকা। এরপর রাসি ভ্যান ডার ডুসেনের সঙ্গে ১৪৪ রানের জুটি গড়েন কুইন্টন ডি কক। ৪ চার ও ১ ছক্কায় ৫৯ বলে ৫২ রান করে ডুসেন আউট হয়ে যান। কিন্তু সেঞ্চুরি তুলে নেন ডি কক। ১২ চার ও ২ ছক্কায় ১৩০ বলে ১২৪ রান করেন তিনি। যশপ্রীত বুমরাহর বলে শিখর ধাওয়ানের হাতে ক্যাচ তুলে দিয়ে সাজঘরে ফেরত যান ডি কক। ৩৮ বলে ৩৯ রান আসে ডেভিড মিলারের ব্যাট থেকেও। শেষদিকে অবশ্য ধীর হয়ে যায় দক্ষিণ আফ্রিকানদের রানের গতি। শেষ ১৫ ওভারে ৭ উইকেট হারিয়ে মাত্র ৭৩ রান তুলে তারা। ইনিংসের এক বল বাকি থাকতেই ২৮৭ রানে অলআউট হয়ে যায় দক্ষিণ আফ্রিকা। জবাব দিতে নেমে শুরুটা ভালো হয়নি ভারতেরও। দলীয় ১৮ রানেই আউট হন লোকেশ রাহুল। এরপর শিখর ধাওয়ানের সঙ্গে ৯৮ রানের জুটি গড়েন বিরাট কোহলি। ৬১ রান করে ধাওয়ান ও ৬৫ রান করে আউট হন কোহলি। এরপর ঋষভ পান্তও গোল্ডেন ডাক মেরে সাজঘরে ফেরত যান তিনি। সূর্যকুমার যাদবের ব্যাটে ৩৯ ও দীপক চাহারের ব্যাটে আসে ৫৪ রান। কিন্তু তাতেও নিজেদের জয় আনতে পারেনি ভারত। ইনিংসের ৪ বল বাকি থাকতে ২৮৩ রানে অলআউট হয় ভারত। তাতেই চার রানের হার আর হোয়াইট ওয়াশের লজ্জা পেতে হয় দলটিকে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ভারতের হোয়াইটওয়াশ লজ্জা

২৫ জানুয়ারি, ২০২২
আরও পড়ুন