Inqilab Logo

রোববার, ২৯ মে ২০২২, ১৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ২৭ শাওয়াল ১৪৪৩ হিজরী
শিরোনাম

মেয়েদের বদলে স্যানিটারি ন্যাপকিন পাচ্ছে স্কুলের ছাত্ররা!

অনলাইন ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৫ জানুয়ারি, ২০২২, ১:৩৬ পিএম

এবার স্যানিটারি ন্যাপকিন নিয়েও দুর্নীতির অভিযোগ উঠল বিহারে। সরকারি প্রকল্পে স্যানিটারি ন্যাপকিন খাতে স্কুল পড়ুয়া মেয়েদের নির্দিষ্ট পরিমাণ অর্থ প্রদান করে থাকে নীতীশ কুমার সরকার। কিন্তু বিহারের একটি স্কুলে দেখা গেল সেই টাকা ছাত্ররাও পাচ্ছে। ঘটনার কথা জানতে পেরে তাজ্জব বনে গিয়েছেন জেলার স্কুল শিক্ষা দপ্তরের কর্মকর্তারাও। অভিযোগের সত্যতা যাচাই করতে তদন্ত কমিটি গড়া হয়েছে।

অদ্ভুত ঘটনাটি ঘটেছে বিহারের সরণ জেলার মানঝি ব্লকের হালকরি উচ্চ বিদ্যালয়ে। ওই কো-এড স্কুলের প্রধানশিক্ষক সম্প্রতি বিহারের বিদ্যালয় শিক্ষা দপ্তরকে অভিযোগ পত্র লেখেন। সেখানে বলা হয়, সম্প্রতি স্যানিটারি ন্যাপকিন খাতের অর্থ স্কুলে নিয়মিত আসছে না। এরপরেই স্কুলে এই বিষয়ে বেনিয়মের কথাও জানান প্রধান শিক্ষক। লেখেন, তার চোখের আড়ালে স্কুলের ৭ জন ছাত্রকে স্যানিটারি প্যাডের জন্য নিয়ম বহির্ভূতভাবে বছরে ১৫০ টাকা করে দেওয়া হচ্ছে।

হালকরি উচ্চ বিদ্যালয়ে প্রধান শিক্ষকের অভিযোগ, ২০১৬- ২০১৭ শিক্ষাবর্ষ থেকেই নাকি স্কুলে এই বেনিয়ম চলছে। তিনি সম্প্রতি যা জানতে পেরেছেন। প্রধান শিক্ষকের অভিযোগের কথা স্বীকার করেছেন জেলার শিক্ষা কর্মকর্তা অজয় কুমার সিং। তিনি জানিয়েছেন, দুই সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। কমিটি যদি অভিযোগের প্রমাণ পায় তবে উপযুক্ত ব্যবস্থা নেওয়া হবে। সংশ্লিষ্ট সরকারি আধিকারিকদেরও ছাড়া হবে না।

প্রসঙ্গত, ২০১৫ সালের ফেব্রুয়ারি মাসে বিহারে মুখ্যমন্ত্রী নীতীশ কুমার সরকারি স্কুলে বিনামূল্যে মেয়েদের স্যানিটারি প্যাড দেওয়ার কথা ঘোষণা করেছিলেন। মুখ্যমন্ত্রী কিশোরী স্বাস্থ্য কার্যক্রম নামক এই প্রকল্পের আওতায় সপ্তম শ্রেণি থেকে দশম শ্রেণির ছাত্রীদের স্যানিটারি প্যাড কেনার জন্য সরকারি তরফে বার্ষিক ১৫০ টাকা অনুদান দেওয়া হয়ে থাকে। এই প্রকল্পে এখনও পর্যন্ত ৬০ কোটি টাকা খরচ করেছে সরকার। সরকারি স্কুলের ৩৭ লক্ষ ছাত্রী প্রকল্পের সুবিধা পেয়েছেন। সূত্র: টাইমস নাউ।

 

 

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ভারত


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ