Inqilab Logo

বুধবার, ১৮ মে ২০২২, ০৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ১৬ শাওয়াল ১৪৪৩ হিজরী

সেনার দখলে বুরকিনা ফাসো

অনলাইন ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৫ জানুয়ারি, ২০২২, ১:৪৯ পিএম

সোমবার জাতীয় টেলিভিশনে বিবৃতি দিয়ে শাসনক্ষমতা দখলের কথা জানিয়েছে বুরকিনা ফাসোর সেনার একাংশ। প্রেসিডেন্ট তাদের হাতে বন্দি।

রোববার সকালে সেনা ব্যারাকে বিদ্রোহ শুরু হয়েছিল। মাত্র একদিনের মধ্যে বিদ্রোহী সেনা রাষ্ট্রক্ষমতা দখল করল। সোমবার তারা জানিয়ে দিয়েছে, আপাতত দেশের সংবিধান বাতিল করা হচ্ছে। সেনা নিজেদের মতো করে শাসনব্যবস্থা তৈরি করবে। সংস্কারের মাধ্যমে ফের যাতে গণতান্ত্রিক নির্বাচনের দিকে এগনো যায়, সে চেষ্টাই চালাবে সেনা সরকার।

সোমবার জাতীয় টেলিভিশনে উপস্থিত হয়েছিলেনবিদ্রোহী সেনার একাংশ। সেখানে লেফটন্যান্ট কর্নেল পল হেনরি স্যানদাওগো দামিবার সই করা একটি বিবৃতি পাঠ করা হয়। সেখানেই ক্ষমতা দখলের কথা স্পষ্ট করে জানানো হয়। পাশাপাশি প্রেসিডেন্ট রোচ কাবোরকে গ্রেপ্তারের কথাও জানানো হয়। প্রেসিডেন্টের ভবনেই তাকে গ্রেপ্তার করে রাখা হয়েছে বলে জানানো হয়েছে।

সোমবার সকালেই সেনা ক্ষমতা দখলের কথা জানিয়েছিল। কিন্তু প্রেসিডেন্টে দল তা মানতে চায়নি। তারা বলেছিল, একটি ব্যারাকে সামান্য বিদ্রোহ হয়েছে। সেনা অভ্যুত্থান ঘটেনি। প্রেসিডেন্ট গ্রেপ্তার হওয়ার বিষয়টিও তারা অস্বীকার করেছিল। তবে বলা হয়েছিল, প্রেসিডেন্টের উপর প্রাণঘাতি আক্রমণের চেষ্টা হয়েছে। বস্তুত, প্রেসিডেন্টও সোমবার সকালে একটি টুইট করে পরিস্থিতি দ্রুত স্বাভাবিক করার আর্জি জানান।

রাতের মধ্যে স্পষ্ট হয়ে যায়, সেনা অভ্যুত্থান ঘটেছে। সেনা ক্ষমতা দখল করে নিয়েছে। বুরকিনা ফাসোর পার্শ্ববর্তী দেশ মালিতেও ২০২০ সালে সেনা অভ্যুত্থান ঘটেছে। দুইটি দেশই সন্ত্রাসবাদী আক্রমণ নিয়ে জর্জরিত। সূত্র: রয়টার্স, এএফপি।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: বুরকিনা ফাসো

২২ ফেব্রুয়ারি, ২০২২
২৫ জানুয়ারি, ২০২২

আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ