Inqilab Logo

বুধবার, ১৮ মে ২০২২, ০৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ১৬ শাওয়াল ১৪৪৩ হিজরী

পুলিশি বাধায় নির্ধারিত সময়ের আগেই শেষ হলো ছাত্রদলের প্রতীকী অনশন

বিশ্ববিদ্যালয় রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২৫ জানুয়ারি, ২০২২, ২:১৫ পিএম

সিলেটের শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে চলমান শিক্ষার্থীদের আন্দোলন ও দাবির প্রতি সংহতি জানিয়ে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে প্রতীকী অনশনে বসেছিল জাতীয়তাবাদী ছাত্রদল। তবে পুলিশি বাঁধায় তা নির্ধারিত সময়ের আগেই তা শেষ করতে বাধ্য হন সংগঠনটির নেতাকর্মীরা।
জানা যায়, মঙ্গলবার (২৫ জানুয়ারি) পূর্ব ঘোষণা অনুযায়ী সকাল ৯টা থেকে শহীদ মিনারে অনশনে বসেন ছাত্রদলের নেতাকর্মীরা। বেলা ৩টা পর্যন্ত তাদের এই কর্মসূচি চালিয়ে যাওয়ার ঘোষণা ছিল। দুপুর ১২টার সময় পুলিশ তাদের কর্মসূচি চালিয়ে যেতে বাঁধা প্রদান করলে নির্ধারিত সময়ের আগেই অনশন শেষ করে ছাত্রদল।

বাধা দেওয়ার বিষয়টি সত্য নই বলে পুলিশের শাহবাগ থানার ওসি মওদুদ হাওলাদার বলেন, কোভিড-১৯ পরিস্থিতিতে স্বাস্থ্যবিধির কারণে আমরা তাদেরকে কর্মসূচি শেষ করতে অনুরোধ করি। তারা সেটি মেনে শেষ করে চলে গিয়েছে।

তবে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রদলের আহ্বায়ক রাকিবুল ইসলাম রাকিব জানান ভিন্ন কথা। তিনি বলেন, আমরা স্বাস্থ্যবিধি মেনে শাবিপ্রবি শিক্ষার্থীদের প্রতি সমর্থন জানিয়ে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে সকাল ৯ টা থেকে প্রতীকী অনশন শুরু করি। বিকাল ৩ টা পর্যন্ত আমাদের অনশন কর্মসূচি ছিল। কিন্তু পুলিশ দশটা থেকে আমাদের বাঁধা দিতে থাকে। এক পর্যায়ে তারা অনশন গুটিয়ে না নিলে হামলা করে পণ্ড করে দেয়ার হুমকি দেয়। তাদের মারমুখী মনোভাবের কারণে আমরা অনশন পৌনে ১২ টায় শেষ করে শহীদ মিনার ত্যাগ করি।

ছাত্রদল সভাপতি ফজলুর রহমান খোকন বলেন, শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের দাবির প্রতি সংহতি জানিয়ে আমরা অনশন কর্মসূচি করছিলাম। পুলিশের বাঁধার কারণে তা নির্ধারিত সময়ের আগে শেষ করতে হয়েছে। তিনি বলেন, ছাত্রদল মনে করে শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষার্থীদের দাবি যৌক্তিক। আমরা দাবি জানাচ্ছি অবিলম্বে তাদের দাবি মেনে নেয়া হোক এবং বিশ্ববিদ্যালয়টিতে শিক্ষার সুষ্ঠু পরিবেশ ফিরিয়ে আনা হোক।

এর আগে অনশনে শাবিপ্রবি শিক্ষার্থীদের উপর হামলার প্রতিবাদে ভিসি ফরিদ উদ্দীন আহমেদের অপসারণ ও শিক্ষার্থীদের নামে দায়েরকৃত মামলা প্রত্যাহারের দাবি জানায় ছাত্রদল।

অনশনে ভিসি পদত্যাগ না করা পর্যন্ত আন্দোলন চালিয়ে যাওয়ার হুঁশিয়ারি দিয়ে ছাত্রদল সভাপতি বলেন, দ্রুত সময়ের মধ্যে আমরা এই অমানবিক ভিসির পদত্যাগ দাবি করছি। এই ভিসি পদত্যাগ না করা পর্যন্ত আমাদের আন্দোলন জারি থাকবে।

অনশন কর্মসূচি উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী ছাত্রদল কেন্দ্রীয় সংসদের সভাপতি ফজলুর রহমান খোকন, সাধারণ সম্পাদক ইকবাল হোসেন শ্যামল,সিনিয়র সহ-সভাপতি কাজী রওনকুল ইসলাম শ্রাবণ, সিনিয়র যুগ্ম সম্পাদক আমিনুর রহমান আমিন,সাংগঠনিক সম্পাদক সাইফ মাহমুদ জুয়েল, সহ-সভাপতি জাকিরুল ইসলাম জাকির, আশরাফুল আলম ফকির লিংকন হাফিজুর রহমান ,মামুন খান,,মাজেদুল ইসলাম রুমন,মোঃ মোক্তাদির হোসেন তরু, সাজিদ হাসান বাবু,মাহমুদুল হাসান বাপ্পী,ওমর ফারুক কাওসার, মিজানুর রহমান সজীব,মোস্তাফিজুর রহমান,কে এম মুসাব্বির শাফি,যুগ্ম সম্পাদক শাহনেওয়াজ, মুহিনউদ্দীন রাজু, তানজিল হাসান,রিয়াদ ইকবাল হোসাইন,তবিবুর রহমান সাগর,মিজানুর রহমান শরীফ, আব্দুল্লাহ আল জোবায়ের বাবু,মাহবুব মিয়া,মারুফ এলাহী রনি,সহ-সাধারণ সম্পাদক কেএম সাখাওয়াত হোসেন, জামিল হোসেন,মাইনুদ্দিন নিলয়,শাহাদাত হোসেন,সেলিনা সুলতানা জুই ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রদলের আহ্বায়ক মোঃ রাকিবুল ইসলাম রাকিব,সদস্য সচিব মোঃ আমানউল্লাহ আমান।
ঢাকা মহানগর পূর্ব ছাত্রদলের আহবায়ক, খালিদ হাসান জ্যাকি,ঢাকা মহানগর দক্ষিণ ছাত্রদলের আহবায়ক পাভেল সিকদার, সদস্য সচিব নিয়াজ মাহমুদ নিলয়,ঢাকা মহানগর পশ্চিম ছাত্রদলের আহবায়ক, মহসিন সিদ্দিকী রনি এবং ঢাকা মহানগর উত্তর ছাত্রদলের আহবায়ক,জসিম সিকদার রানা,সদস্য সচিব রুহুল আমিন সোহেল।



 

Show all comments
  • MD.Uzzal Hossain ২৬ জানুয়ারি, ২০২২, ৯:৩১ এএম says : 0
    Trade Fair & Book Fair ae Covin-19 nai...............................
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: প্রতিবাদ

২৩ এপ্রিল, ২০২২
৮ মার্চ, ২০২২

আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ