Inqilab Logo

বৃহস্পতিবার, ২৬ মে ২০২২, ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ২৪ শাওয়াল ১৪৪৩ হিজরী
শিরোনাম

আমেরিকাকে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে আবারও ক্ষেপণাস্ত্র উৎক্ষেপণ উত্তর কোরিয়ার

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৫ জানুয়ারি, ২০২২, ৫:২৫ পিএম

আমেরিকাকে কার্যত বুড়ো আঙুল দেখিয়ে আবারও ক্ষেপণাস্ত্র উৎক্ষেপণ করল উত্তর কোরিয়া। এই ঘটনায় কোরীয় উপদ্বীপে সংঘাতের আশঙ্কা আরও জোরাল হয়েছে বলে মনে করছেন বিশ্লেষকরা।

দক্ষিণ কোরিয়ার সংবাদ সংস্থাকে উদ্ধৃত করে এএনআই জানিয়েছে, মঙ্গলবার পূর্ব সাগরে (সি অফ জাপান) দুটি ক্রুজ মিসাইল ছোঁড়ে কিমের সেনা। সিওলের রাডারে সেই ঘটনা ধরা পড়েছে। বলে রাখা ভাল, জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদের প্রস্তাব অনুযায়ী উত্তর কোরিয়ার ব্যালিস্টিক মিসাইল উৎক্ষেপণের উপর নিষেধাজ্ঞা রয়েছে। কিন্তু ক্রুজ মিসাইলের পরীক্ষার ক্ষেত্রে তেমন কোনও বিধিনিষেধ নেই। ফলে এক্ষেত্রে জাতিসংঘকে অমান্য করেছে পিয়ংইয়ং তা বলা যাবে না।

উল্লেখ্য, উত্তর কোরিয়ার একনায়ক কিম জং উনকে বাগে আনতে লাগাতার চেষ্টা করছে আমেরিকা। আর্থিক নিষেধাজ্ঞার পাশাপাশি ওয়াশিংটনের নির্দেশে দেশটির বিরুদ্ধে ‘অন্তর্ঘাত’ চলছে বলেও অভিযোগ। কিন্তু কিমের পাশে দাঁড়িয়ে সেই সমস্ত প্রয়াস ভেস্তে দিচ্ছে চীন ও রাশিয়া। সম্প্রতি মিসাইল উৎক্ষেপণ নিয়ে জাতিসংঘে পিয়ংইয়ংয়ের বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞার প্রস্তাব আনে আমেরিকা। কিন্তু মস্কো ও বেইজিংয়ের আপত্তিতে আপাতত সেই প্রস্তাব ঠান্ডাঘরে।

চলতি মাসেই একের পর এক ব্যালিস্টিক মিসাইল ছুঁড়ে শক্তি প্রদর্শন করে কিমের ফৌজ। পিয়ংইয়ংয়ের ব্যালিস্টিক মিসাইল উৎক্ষেপণের খবর নিশ্চিত করে দক্ষিণ কোরিয়া ও জাপান। উত্তর কোরিয়ার এই অতিসক্রিয়তায় উদ্বেগ প্রকাশ করে দুই প্রতিবেশী দেশ। তারপরই বিষয়টি নিয়ে ফের রুদ্ধদ্বার বৈঠকে বসতে চলেছে জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদ।

বৃহস্পতিবার বৈঠকের আগে উত্তর কোরিয়ার এহেন আগ্রাসী পদক্ষেপার নিন্দা করার দাবি জানান রাষ্ট্রসংঘে নিযুক্ত আমেরিকার দূত লিন্ডা থমাস। তিনি জানান যে আমেরিকা, ব্রিটেন, ফ্রান্স ও জাপান-সহ একাধিক দেশ কিমের ব্যালিস্টিক মিসাইল উৎক্ষেপণের নিন্দা করেছে। সূত্রের খবর, জাতিসংঘে পিয়ংইয়ংয়ের উপর আরও কড়া আর্থিক নিষেধাজ্ঞা জারি করার প্রস্তাব দেয় আমেরিকা। কিন্তু সেই প্রস্তাবে তীব্র আপত্তি জানিয়েছে নিরাপত্তা পরিষদের দুই স্থায়ী সদস্য চীন ও রাশিয়া। সূত্র: সিএনএন।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন