Inqilab Logo

রোববার, ২৬ জুন ২০২২, ১২ আষাঢ় ১৪২৯, ২৫ যিলক্বদ ১৪৪৩ হিজরী
শিরোনাম

রংপুরে ভিকটিম সাপোর্ট সেন্টারে তরুণীর মৃত্যুর ঘটনায় মামলা দায়ের

প্রেমিক আকাশ গ্রেফতার

রংপুর থেকে স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২৫ জানুয়ারি, ২০২২, ৬:০১ পিএম

রংপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের কোতোয়ালি থানার ভিকটিম সাপোর্ট সেন্টারে তরুণী নিহতের ঘটনায় হত্যা মামলা দায়ের হয়েছে এবং প্রেমিক মিথুন ওরফে আকাশকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। সোমবার বিকালে জেলার গঙ্গাচড়া উপজেলা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। এঘটনায় তিন সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। গ্রেফতারকৃত মিথুন ওরফে আকাশ গঙ্গাচড়া উপজেলার ধামুর গ্রামের ইবাদত আলীর ছেলে। সে প্রেমিকা রুহিকে নিজের ভুয়া নাম ও ঠিকানা দিয়েছিল।

পুলিশ জানিয়েছে, ঝিনাইদহ জেলার হরিনাকুন্ড থানার হরিয়ারঘাট গ্রামের সেকেন্দার আলীর মেয়ে রুহি (১৯) এর সঙ্গে গ্রেফতারকৃত মিথুন ওরফে আকাশের ফেসবুকের মাধ্যমে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। এসময় আকাশ তাকে ভুয়া নাম ও ঠিকানা দেয়। গত বছরের মার্চে রুগি ঝিনাইদহ থেকে মিথুন ওরফে আকাশের সঙ্গে দেখা করতে রংপুরে আসেন। এসময় স্থানীয়রা তাকে ঘোরাঘুরি করতে দেখে ৯৯৯ এ ফোন দিলে পুলিশ সেখান থেকে তাকে উদ্ধার করে ভিকটিম সাপোর্ট সেন্টারে নিয়ে যায়। পরে তাকে তার স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করেন।

এরপর গত শনিবার (২২ জানুয়ারি) রুহি আবারও মিথুন ওরফে আকাশের সঙ্গে দেখা করতে আসেন। এক পর্যায়ে আকাশের মুঠোফোন বন্ধ পেয়ে ওই এলাকায় ঘোরাঘুরি করতে থাকে। শনিবার রাত সাড়ে তিনটার দিকে ৯৯৯ এ খবর পেয়ে হারাগাছ থানা পুলিশ তাকে উদ্ধার করে কোতয়ালী থানার ভিকটিম সাপোর্ট সেন্টারে নিয়ে যায়। সেখানে থাকা অবস্থায় রোববার দুপুরে গলায় ওড়না পেঁচিয়ে সিলিং ফ্যানের সঙ্গে আত্মহত্যা করেন রুহি। পরে তার লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হয়।

রুহির পিতা সেকেন্দার আলী খবর পেয়ে সোমবার রাতে রংপুরে আসেন এবং এ ঘটনায় তিনি বাদী হয়ে কোতোয়ালি থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। এ ঘটনায় দায়িত্বে অবহেলার দায়ে পুলিশের এএসআই নাদিরা ও কনস্টেবল আফরুজা বেগমকে প্রত্যাহার করা হয়েছে।

ঘটনা তদন্তে উপ-পুলিশ কমিশনার (অপরাধ) আবু মারুফ হোসেনকে প্রধান করে তিন সদস্য বিশিষ্ট তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। কমিটির অন্য সদস্যরা হলেন- উপ-পুলিশ কমিশনার (ট্রাফিক) মেনহাজুল আলম, সহকারী পুলিশ কমিশনার (সিটিএসবি) মাহবুব-উল-আলম।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: রংপুর


আরও
আরও পড়ুন