Inqilab Logo

মঙ্গলবার, ২৪ মে ২০২২, ১০ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ২২ শাওয়াল ১৪৪৩ হিজরী
শিরোনাম

অস্ট্রিয়া থেকে রাইফেল কেনে হাইডেলব্যার্গের বন্দুকধারী

অনলাইন ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৭ জানুয়ারি, ২০২২, ১১:৫৮ এএম

দিনদুয়েক আগে হাইডেলব্যার্গ বিশ্ববিদ্যালয়ে ১৮ বছর বয়সি তরুণ বন্দুকধারী লেকচার হলে ঢুকে গুলি চালায়। একজন মারা যান এবং চারজন আহত হন। তারপর পুলিশের সামনেই বন্দুকধারী আত্মহত্যা করে। সেই বন্দুকধারী সম্পর্কে আরো তথ্য দিলো পুলিশ।

পুলিশ জানিয়েছে, ওই তরুণ সাতদিন আগে অস্ট্রিয়া থেকে তিনটি বন্দুক কেনে। দুইটি বন্দুক ডিলারের থেকে কেনে এবং একটি বন্দুক সে একজন ব্যক্তির কাছ থেকে কিনেছিল। বন্দুক রাখার জন্য কোনো জার্মান লাইসেন্স তার কাছে ছিল না। দুইটি বন্দুক ও প্রচুর গুলি নিয়ে সে হাইগেলব্যার্গ বিশ্ববিদ্যালয়ে যায়। দুইটি বন্দুক ঘটনাস্থল থেকে উদ্ধার করেছে পুলিশ। সেই সঙ্গে ১৫০ রাউন্ড গুলিও পাওয়া গেছে। তৃতীয় বন্দুকটি অস্ট্রিয়ার পুলিশ উদ্ধার করেছে। সে অস্ট্রিয়ায় গিয়ে যেখানে ছিল, সেখান থেকে বন্দুকটি পাওয়া গেছে।

বিশ্ববিদ্যালয়ে সে একটি ট্যাক্সি নিয়ে যায়। তারপর সোজা গিয়ে ঢোকে লেকচার হলে এবং গুলি চালায়। পুলিশের বক্তব্য, কেন ওই তরুণ গুলি চালিয়েছিল, তা এখনো স্পষ্ট নয়। ওই তরুণ নব্য নাৎসি সংগঠন 'দ্য থার্ড পাথ'-এর সদস্য ছিল কিনা, তা তদন্ত করে দেখা হচ্ছে। এই সংগঠনটি ২০১৯ সালে বন্ধ করে দেয়া হয়েছে। তখন ওই তরুণ অপ্রাপ্তবয়স্ক ছিল। সে দীর্ঘদিন ধরে মানসিক অবসাদে ভুগছিল কিনা, তাও দেখা হচ্ছে।

পুলিশের আবেদন, এই ঘটনা নিয়ে কেউ যেন কোনো ভুল তথ্য বা গুজব না ছড়ান। নব্য নাৎসি সংগঠনের সঙ্গে তরুণের জড়িত থাকা নিয়ে সামাজিক মাধ্যমে কিছু পোস্ট করা হয়েছিল। পুলিশ ওই যুবকের সামাজিক মাধ্যমের পোস্ট খতিয়ে দেখেছে, সেখানে চরম দক্ষিণপন্থি মনোভাবের কোনো পরিচয় পাওয়া যায়নি। তার গুলিতে নিহত ও আহতদের সঙ্গেও তার কোনো সম্পর্ক খুঁজে পাওয়া যায়নি। সূত্র: ডয়চে ভেলে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ