Inqilab Logo

রোববার, ২২ মে ২০২২, ০৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ২০ শাওয়াল ১৪৪৩ হিজরী

অপেক্ষা ২০২৬ সাল!

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৮ জানুয়ারি, ২০২২, ১২:০৪ এএম

জাপানের গাড়ি নির্মাতা কোম্পানি টয়োটা মোটরস জানিয়েছে, তাদের নতুন ল্যান্ডক্রুজার এসইউভি গাড়ির সরবরাহ দিতে আরও প্রায় চার বছর লেগে যেতে পারে। সে জন্য গ্রাহকদের তারা ইতিমধ্যে এ বিষয়ে সতর্ক করে দিয়েছে। তবে সরবরাহে এত সময় লাগার কারণ বৈশ্বিক সরবরাহসঙ্কট নয়। আবার ঠিক কী কারণে তাদের এত দেরি হচ্ছে, সেটাও তারা স্পষ্ট করে বলেনি।
জাপানে বিভিন্ন কারখানায় টয়োটার কর্মীরা করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। সে কারণে জাপানের অন্তত ১১টি কারখানায় উৎপাদন হ্রাস করা হবে বলে ঘোষণা দিয়েছে টয়োটা। নিজেদের ওয়েবসাইটে প্রকাশিত এক বিবৃতিতে টয়োটা বলেছে, ল্যান্ডক্রুজার শুধু জাপানে নয়, সারা বিশ্বেই জনপ্রিয়। সে জন্য এই গাড়ির গ্রাহকের হাতে পৌঁছে দিতে দীর্ঘ সময় লেগে যাবে বলে তারা দুঃখ প্রকাশ করেছে।
গত মাসে টয়োটা আরেক ঘোষণায় বলেছিল, বৈশ্বিক সরবরাহসঙ্কটের কারণে জাপানের কিছু কারখানায় গাড়ির উৎপাদন কমাতে হয়েছে। এ ছাড়া গত বছরের শেষ দিকে তারা জানিয়েছিল, বিশ্বব্যাপী চিপস্বল্পতার কারণে গাড়ির উৎপাদন ৪০ শতাংশ পর্যন্ত কমে যেতে পারে। এদিকে এই উৎপাদনসঙ্কটের খবর বেরোনোর পরপরই টোকিওর শেয়ারবাজারে টয়োটার শেয়ারের দাম ২ দশমিক ৭ শতাংশ পর্যন্ত কমেছে।
করোনা সংক্রমণের প্রথম ঢেউয়ে জাপান বেশ সুরক্ষিত ছিল। এমনকি দ্বিতীয় ঢেউয়ের সময়ও তেমন কিছু হয়নি দেশটির। কিন্তু এবার করোনাভাইরাসের ওমিক্রণ প্রজাতির সংক্রমণ করোনার তৃতীয় ঢেউ জাপানে বেশ ভালোভাবেই আঘাত করেছে। প্রতিদিনই দেশটিতে বিপুলসংখ্যক মানুষ আক্রান্ত হচ্ছেন। সে জন্য উৎপাদনসঙ্কটে পড়েছে টয়োটা। সূত্র : বøুমবার্গ, মোটর ওয়ান ডটকম।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ