Inqilab Logo

শুক্রবার, ২৭ মে ২০২২, ১৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ২৫ শাওয়াল ১৪৪৩ হিজরী
শিরোনাম

প্রশ্ন : ইসলামি শরীয়াহ মোতাবেক বিনা কারনে কোনো স্ত্রী কি তার স্বামীকে তালাক দিতে পারবে? যদি স্ত্রী তার পরকিয়ার জন্য এই তালাক দেয়। কুরআনের আইনে এই ডিভোর্স হবে কিনা?

হুমায়ুন রাজ
ইমেইল থেকে

প্রকাশের সময় : ২৮ জানুয়ারি, ২০২২, ৮:৫৩ পিএম

উত্তর : দেশীয় আইনে বিনা কারণে বা মিথ্যা কারণ দেখিয়ে কোর্টের মাধ্যমে স্ত্রী স্বামীকে তালাক দিতে পারে। ইসলামী আইনে কিছু শর্ত পূরণ না করা পর্যন্ত এভাবে তালাক দিতে পারে না। পরকীয়ার জন্য তালাক দেওয়া না দেওয়া সমান। দেশীয় আইনে এভাবে তালাক দেওয়া যায়। শরীয়তের আইনে দেওয়া যায় না। তবে, শরীয়ত বর্তমানে মানুষ মানে না। দেশীয় আইন বা নিজের মন যা চায়, সেভাবেই তালাককে ব্যবহার করে। এসব না করে পালিয়ে যাওয়াই উত্তম। এতে কবীরা গুনাহ হবে, কিন্তু ঈমান নষ্ট হবে না। আর যদি নিজের শখ পূরণের জন্য শরীয়তের আইনকে অস্বীকার করে বা কৌশলে অপব্যবহার করে তাহলে, এই লোকটি আর মুসলমান থাকে না।
উত্তর দিয়েছেন : আল্লামা মুফতি উবায়দুর রহমান খান নদভী
সূত্র : জামেউল ফাতাওয়া, ইসলামী ফিক্হ ও ফাতওয়া বিশ্বকোষ।
প্রশ্ন পাঠাতে নিচের ইমেইল ব্যবহার করুন।
[email protected]

ইসলামিক প্রশ্নোত্তর বিভাগে প্রশ্ন পাঠানোর ঠিকানা
[email protected]



 

Show all comments
  • মোঃ রহমান ২৯ জানুয়ারি, ২০২২, ৬:৪৩ এএম says : 0
    অনেকদিন থেকে আপনার উত্তর পড়ি। মানুষের আজগুবি সব আর আপনার বিচক্ষণ উত্তর। তবে আগে কখনো মেজাজ হারাতে দেখিনি।
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ