Inqilab Logo

ঢাকা, শনিবার, ৩০ মে ২০২০, ১৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭, ০৬ শাওয়াল ১৪৪১ হিজরী

বিশ্ব ভালোবাসা দিবসকে কেন্দ্র করে নিরাপত্তা জোরদার

প্রকাশের সময় : ১৪ ফেব্রুয়ারি, ২০১৬, ১২:০০ এএম

উমর ফারুক আলহাদী : তথাকথিত বিশ্ব ভালোবাসা দিবস উপলক্ষে আজ রোববার (১৪ ফেব্রুয়ারি) রাজধানীজুড়ে নেয়া হয়েছে বিশেষ নিরাপত্তাব্যবস্থা। বিশেষ করে মহানগরীর বিনোদন কেন্দ্রগুলোতে থাকছে র‌্যাব-পুলিশের বাড়তি নিরাপত্তা ব্যবস্থা। বিশেষ করে বাংলা একাডেমি, শাহবাগ মোড়, রমনা ও শিশুপার্ক এবং ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়কে ঘিরে থাকছে কঠোর নিরাপত্তা বেষ্টনী। যেকোনো ধরনের নাশকতা ও অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে মোতায়েন থাকবে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর বিপুলসংখ্যক সদস্য। পুলিশের পাশাপাশি র‌্যাব ও গোয়েন্দা পুলিশের সদস্যরা নিরাপত্তা রক্ষায় নজরদারি করবে। র‌্যাব ও পুলিশের কর্মকর্তারা বলছেন, সাধারণত ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাস, শাহবাগ, রমনা পার্কসহ রাজধানীর বিনোদন কেন্দ্রগুলোতে যুবক-যুবতীদের সমাগম বেশি হয়ে থাকে। এ কারণে এসব এলাকায় নেয়া হয়েছে বাড়তি নিরাপত্তা। এ ছাড়া যেসব জায়গায় কনসার্টের আয়োজন থাকবে, সেখানেও নজরদারি রাখা হবে। পরিস্থিতি বুঝে নিরাপত্তা দেওয়া হবে। বিশেষ করে উন্মুক্ত স্থানের অনুষ্ঠানগুলোয় সতর্কতার সঙ্গে নিরাপত্তা বাড়ানো হবে। তবে গোয়েন্দা পুলিশের একটি সূত্র জানায়, ভালোবাসা দিবস উপলক্ষে ক্রাইম কনফারেন্সে গত বৃহস্পতিবার ডিএমপি কমিশনার তেমন কোনো নির্দেশনা দেননি। এ দিবস নিয়ে পুলিশের তেমন কোনো মাথাব্যথাও নেই। এ দিবস যার যার মতো করে পালন করবে। তবে উন্মুক্ত স্থানগুলোতে অশ্লীল কোনো কিছু করতে দেওয়া হবে না বলে গোয়েন্দা কর্মকর্তারা সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।
এ প্রসঙ্গে পুলিশ কমিশনার আসাদুজ্জামান মিয়া বলেন, বিনোদনের নামে কিংবা বিভিন্ন অনুষ্ঠানে পুলিশের কড়া নজরদারি থাকবে। তিনি বলেন, কোনো ধরনের অশ্লীলতা বরদাস্ত করা হবে না। বিনোদনের নামে অশ্লীল কর্মকা- করলে কঠোর ব্যবস্থা নেয় হবে।
র‌্যাবের গণমাধ্যম শাখার পরিচালক মুফতি মাহমুদ খান বলেন, র‌্যাবের পক্ষ থেকে কয়েক স্তরের নিরাপত্তার ব্যবস্থা থাকবে। প্রীতিকর ও অশ্লীল ঘটনা যাতে কেউ ঘটাতে না পারে সে জন্য র‌্যাবের একাধিক গোয়েন্দা টিম কাজ করছে। তিনি বলেন, টহল টিমের পাশাপাশি পোশাকে ও সাদা পোশাকে র‌্যাব সদস্যরা নিরাপত্তা রক্ষায় নিয়োজিত রয়েছে। বিশেষ করে এ দিনটিকে কেন্দ্র করে কোনো উগ্র জঙ্গিগোষ্ঠী যাতে কোনো নাশকতা ঘটাতে না পারে সে জন্য র‌্যাবের সকল সদস্য কাজ করছেন। শুধু তাই নয়, কেউ কোথাও অশ্লীল কিছু করতে না পারে, সে দিকেও নজরদারি রয়েছে। এজন্য র‌্যাব সদস্যরা রাজধানীজুড়ে সজাগ রয়েছে। এদিন র‌্যাবের প্রায় হাজারখানেক সদস্য রাজধানীতে টহল দেবে।
ঢাকা মহানগর পুলিশের গণমাধ্যম শাখার অতিরিক্ত উপ-কমিশনার এস এম জাহাঙ্গীর আলম সরকার বলেন ‘বিশ্ব ভালোবাসা দিবস উপলক্ষে তরুণ-তরুণীরা ঘোরাঘুরি করেন। বন্ধু-বান্ধব মিলে বিভিন্ন জায়গায় আড্ডা মারেন। এটাকে কেন্দ্র করে তেমন কোনো অপ্রীতিকর পরিস্থিতির সৃষ্টি হয় না। এরপরেও যেহেতু উঠতি বয়সী ছেলেমেয়েদের একটা বিরাট আয়োজন রয়েছে এ দিনটিতে। এজন্য আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরা গোটা এলাকায় বাড়তি নজরদারি রাখবে।
র‌্যাবের একজন গোয়েন্দা কর্মকর্তা বলেন, এবার বিভিন্ন বিনোদন কেন্দ্রে কিংবা কনসার্ট প্রোগামে উগ্রপন্থীরা সুযোগ নিতে চেষ্টা করতে পারে, তাদের কর্মতৎপরতা বিবেচনায় রেখে নিরাপত্তা ও নজরদারি বাড়ানো হয়েছে। ওই গোয়েন্দা কর্মকর্তা আরো জানান, রাজধানীর আশপাশ এলাকা গাজীপুর টঙ্গী, সাভার এবং বিভিন্ন বিভাগীয় শহরে র‌্যাবের গোয়েন্দা তৎপরতা বাড়ানো হয়েছে। এছাড়া র‌্যাবের সব কয়টি ব্যাটালিয়ন সতর্ক রয়েছে। এক প্রশ্নের জবাবে ওই কর্মকর্তা জঙ্গি নাশকতার আশঙ্ক নেই, তবে এ বিষয়টিও আমরা বিবেচনায় রেখেই কাজ করে যাচ্ছি। কোনো মহল যাতে কোনো সুযোগ নিতে না পারে সে জন্য এই সতর্কতা।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: বিশ্ব ভালোবাসা দিবসকে কেন্দ্র করে নিরাপত্তা জোরদার
আরও পড়ুন
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ