Inqilab Logo

মঙ্গলবার, ২৮ জুন ২০২২, ১৪ আষাঢ় ১৪২৯, ২৭ যিলক্বদ ১৪৪৩ হিজরী

ভারতের সাথে বিতর্কিত ভূখণ্ড নিয়ে সমীক্ষা করল নেপাল

অনলাইন ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৩০ জানুয়ারি, ২০২২, ১:১৪ পিএম

সম্প্রতি খবর প্রকাশিত হয়েছে, দাবি করা ভূখণ্ডগুলির বাসিন্দাদের নিয়ে একটি ‘বেসরকারি সমীক্ষা’ চালিয়েছে কাঠামান্ডুর স্ট্যাটিস্টিক্স বুরো।

উত্তরাখণ্ডের পিথোরাগড় জেলার লিপুলেখ পাস, লিম্পিয়াদুরা এবং কালাপানি টপ তাদের ভূখণ্ড বলে ঘোষণা করে সংবিধান সংশোধন করেছিল নেপালের আগের প্রধানমন্ত্রী কে পি শর্মা ওলির সরকার। তার পরে অনেক জল গড়িয়েছে, নানা রাজনৈতিক টালবাহানার পরে শের বাহাদুর দেউবার প্রধানমন্ত্রিত্বে নেপালি কংগ্রেসের যে সরকার প্রতিষ্ঠা হয়েছে, তাকে ভারত-প্রেমী বলেই বিশ্বাস করে দিল্লির পররাষ্ট্রমন্ত্রণালয়। কিন্তু সম্প্রতি একটি সংবাদে দিল্লির আস্থাতেও বোধ হয় টোল খেল।

সম্প্রতি খবর প্রকাশিত হয়েছে, দাবি করা ভূখণ্ডগুলির বাসিন্দাদের নিয়ে একটি ‘বেসরকারি সমীক্ষা’ চালিয়েছে কাঠামান্ডুর স্ট্যাটিস্টিক্স বুরো। সরকারি এই সংস্থার তরফে এই খবর স্বীকার করে জানানো হয়েছে, তারা কার্যত জনগণনাই করেছে ওখানে। যে হেতু সেখানে কর্মীরা সশরীরে গিয়ে জনগণনা করতে পারবে না, তাই পরোক্ষ উপায়ে তাদের সমীক্ষা করতে হয়েছে। এই কাজে তারা ভারতে কাজ করতে যাওয়া নেপালি শ্রমিক, ওই এলাকার বাসিন্দাদের যে সব আত্মীয় নেপালে থাকে, তাঁদের সঙ্গে কথা বলে এবং নিজেদের দেশের গোয়েন্দা বুরোর কাছ থেকে পাওয়া তথ্যের ভিত্তিতে সমীক্ষা করেছে।

দু’বছর আগে নেপালের তৎকালীন প্রধানমন্ত্রী ওলির ঘোষণার পরে ভারতের সঙ্গে তাদের সম্পর্ক তপ্ত হয়ে উঠেছিল। তার পরে সেই সম্পর্ক অনেকটা ঠান্ডা হয়েছে। কিন্তু নতুন খবরে ভারত কী ভাবে প্রতিক্রিয়া জানায়, সেটা দেখার। সূত্র: এবিপি।

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ভারত- নেপাল
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ