Inqilab Logo

মঙ্গলবার, ২৮ জুন ২০২২, ১৪ আষাঢ় ১৪২৯, ২৭ যিলক্বদ ১৪৪৩ হিজরী
শিরোনাম

ভূঞাপুরে বালু ব্যবসাকে কেন্দ্র করে দফায় দফায় সংঘর্ষ

টিয়ারসেল নিক্ষেপ ও অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন

ভূঞাপুর (টাঙ্গাইল) উপজেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ২ ফেব্রুয়ারি, ২০২২, ৬:৪৮ পিএম

টাঙ্গাইলের ভূঞাপুরে বালু ঘাটের আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্রে নিকরাইল ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি ও নৌকার পরাজিত প্রার্থী মুহাম্মদ আব্দুল মতিন সরকার ও একই ইউনিয়নের বহি:ষ্কৃত সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও নবনির্বাচিত মাসুদুল হক মাসুদ গ্রুপের মধ্যে দফায় দফায় সংঘর্ষ, গুলি ও ককটেল বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় উভয়পক্ষের কমপক্ষে ১৫ থেকে ২০ জন আহত হয়েছেন।

বুধবার (৩১ জানুয়ারি) উপজেলার নিকরাইল ইউনিয়নের পলশিয়া গ্রামের বাগানবাড়ী ঘাটে দুপুরের দিকে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। খবর পেয়ে ভূঞাপুর থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে ৭ রাউন্ড টিয়ার শেল নিক্ষেপ করে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনেন। আহতদের মধ্যে বেশ কয়েকজনকে টাঙ্গাইল শেখ হাসিনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল ও ভূঞাপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

স্থানীয়রা জানান, বালু ঘাটের আধিপত্য বিস্তার নিয়ে যমুনা নদীর তীরবর্তী বাগান বাড়ি এলাকায় দুপুরের দিকে জড়ো হতে থাকে নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান মাসুদুল হক মাসুদ ও সাবেক চেয়ারম্যান মতিন সরকার গ্রুপের লোকজন। পরে উভয় গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষ বাধে। ঘটে গুলির ঘটনাও। দুই গ্রুপের মধ্য ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া হয়। এসময় মতিনের বাগান বাড়ির বালুর ঘাটের তিনটি ভেকু ভাঙচুর করেছে বলে জানায় স্থানীয়রা।

ভূঞাপুর থানা অফিসার ইনচার্জ মোহাম্মদ আব্দুল ওহাব জানান, আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে মতিন ও মাসুদ গ্রুপের লোকজনের মাঝে সংঘর্ষের খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ আনতে ৭ রাউন্ড টিয়ারসেল নিক্ষেপ করে। তিনি আরও জানান, দু'পক্ষের সংঘর্ষে বেশ কয়েকজন আহত হয়েছে। ঘটনাস্থলে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। গুলির ঘটনা শুনেছেন বলেও জানান তিনি।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: টাঙ্গাইল


আরও
আরও পড়ুন