Inqilab Logo

ঢাকা, মঙ্গলবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১০ আশ্বিন ১৪২৫, ১৪ মুহাররাম ১৪৪০ হিজরী‌

নরওয়েতে পরমাণু বোমা হামলার হুমকি রাশিয়ার

রাশিয়ার হুমকি প্রত্যাখ্যান নরওয়ের প্রতিরক্ষামন্ত্রীর

প্রকাশের সময় : ৩ নভেম্বর, ২০১৬, ১২:০০ এএম

ইনকিলাব ডেস্ক : যুক্তরাষ্ট্রের মেরিন সেনা মোতায়েনের অনুমতি দেওয়ায় নরওয়েতে পারমাণবিক বোমা হামলার হুমকি দিয়েছে রাশিয়া। রাশিয়ার সিনিয়র এক রাজনীতিক সম্প্রতি দেশটির এক টেলিভিশনে এ হুমকি দেন বলে খবরে বলা হয়। রাশিয়ার হুমকি ও সমালোচনা প্রত্যাখ্যান করে নরওয়ের প্রতিরক্ষামন্ত্রী ইনে এরিকসেন বলেন, ভারনেস অঞ্চলে মার্কিন-মেরিন সেনা মোতায়েনের বিষয়টি এখনো পরীক্ষামূলক। এ ছাড়া বিষয়টি আগামী বছর আবার পুনর্মূল্যায়ন করা হবে। খবরে বলা হয়, গত সপ্তাহে নরওয়ে ৩৩০ জন মার্কিন-মেরিন সেনা নিয়ে ঘাঁটি করার অনুমতি দিয়েছে। নরওয়ের এমন সিদ্ধান্তে ক্ষুব্ধ হয়েছে রাশিয়া। এরই পরিপ্রেক্ষিতে এমন হুমকি দিলেন দেশটির ওই রাজনীতিক। রাশিয়ার প্রতিরক্ষা ও নিরাপত্তাবিষয়ক কমিটির ডেপুটি চেয়ারম্যান জ্যেষ্ঠ রাজনীতিবিদ ফ্রান্টস ক্লিন্টসেভিচ দেশটির টেলিভিশন চ্যানেল টিভি২-কে বলেন, মার্কিন-মেরিন ৩৩০ সেনাকে নরওয়েতে মোতায়েন করাকে সামরিক ক্ষেত্রে সরাসরি হুমকি হিসেবে দেখছে ক্রেমলিন। ফ্রান্টস ক্লিন্টসেভিচ স্থানীয় এক সংবাদমাধ্যমকে বলেন, মার্কিন-মেরিন সেনাবিষয়ক জটিলতা নরওয়ে এবং নরওয়েবাসীর জন্য খুবই বিপজ্জনক। রুশ এই রাজনীতিবিদ আরো বলেন, এর আগে কখনোই নরওয়েকে আমাদের কৌশলগত অস্ত্রের লক্ষ্যবস্তুর তালিকায় রাখা হয়নি। কিন্তু বর্তমান উদ্ভূত পরিস্থিতিতে, নরওয়ের জনগণকে ভুগতে হবে। সামরিক হুমকির পরিপ্রেক্ষিতে আমরা অবশ্যই উত্তর দেব। এমন উত্তর দেওয়ার জন্যও আমাদের কিছু জিনিস আছে। এর আগে চলতি বছরের শুরুতে নরওয়ে, ব্রিটেন, নেদারল্যান্ডসের সামরিক বাহিনীর সঙ্গে সামরিক মহড়ায় অংশ নেয় মার্কিন-মেরিন সেনারা। এক্সারসাইজ কোল্ড রেসপন্স ১৬ নামক এই মহড়া নরওয়ের ন্যামসস এলাকায় অনুষ্ঠিত হয়। ১৯৪৯ সালে ন্যাটোতে যোগ দেয় নরওয়ে। তবে ওই সময় তৎকালীন সোভিয়েত ইউনিয়নকে (বর্তমান রাশিয়া) তারা নিশ্চিত করেছিল, কখনোই দেশটির বিদেশি সেনা মোতায়েন করা হবে না। টিআর,ওয়েবসাইট।



 

Show all comments
  • মকবুল হোসাইন ১৯ মে, ২০১৭, ১২:২৭ পিএম says : 0
    নরওয়ে কে আমেরিকা চামচার মর্যাদা দিলেই নরওয়ের চাওয়া পূর্ন হবে।।।
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ