Inqilab Logo

শনিবার, ২৫ জুন ২০২২, ১১ আষাঢ় ১৪২৯, ২৪ যিলক্বদ ১৪৪৩ হিজরী

একটানা ব্যবহারে ‘বিরতি ঘণ্টা’ বাজাবে ইনস্টাগ্রাম

অনলাইন ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৬ ফেব্রুয়ারি, ২০২২, ১১:৫৭ পিএম

সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমগুলো হয়ে উঠেছে নিত্য জীবনের সঙ্গী। কাজের মাঝে একটু পর পর ফেসবুক, ইনস্টাগ্রামে ঢুঁ না মারলে যেন চলেই না। তবে এই একটু ঢুকে ঘণ্টার পর ঘণ্টা কেটে যায় নিউজফিড স্ক্রোল করতে করতে। এদিকে অন্য কাজেরও ক্ষতি হচ্ছে।

বিশেষ করে যারা কিশোর-কিশোরী, পড়ার সময়টুকুর বেশিরভাগই ব্যয় করে ফেলছেন এসব সাইটে। এ ছাড়াও সোশ্যাল মিডিয়ায় অতিরিক্ত সময় কাটানোর প্রভাব পড়তে পারে শরীরে। এবার ব্যবহারকারীদের সেই ক্ষতি রুখতে সক্রিয় হচ্ছে ইনস্টাগ্রাম। ইনস্টাগ্রাম নিয়ে এলো বিরতির ঘণ্টা বা ‘টেক এ ব্রেক’ ফিচার।

টানা বেশকিছুক্ষণ ইনস্টাগ্রাম ব্যবহার করার পর প্রয়োজন হয় বিরতির। কিন্তু নতুন নতুন পোস্ট, নো রিপিট কনটেন্ট, মিম কিংবা চকচকে ইন্টারফেসের মাঝে হারিয়ে যায় সেই ভাবনা। টানা ৩০ মিনিট-একঘণ্টা ইনস্টাগ্রামে কাটিয়ে ফেলেন ব্যবহারকারীরা। এবার সেই বিরতি নেওয়ার কথা বলতে আসবে পপ আপ নোটিফিকেশন। আরজি জানানো হবে বিরতি নেওয়ার।

যেভাবে ইনস্টাগ্রাম ব্যবহারকারীকে বিরতি নেওয়ার কথা জানাবে-
কোনো ব্যবহারকারী একটানা আধাঘণ্টা বা তার বেশি সময় ইনস্টাগ্রাম ব্যবহার করলে আর্টিফিসিয়াল ইনটালিজেন্সের মাধ্যমে পপ আপ নোটিফিকেশন আসবে। সেখানেই জানানো হবে এবার বিরতি নেওয়া প্রয়োজন। কারণ একটানা অনেকক্ষণ সোশ্যাল মিডিয়া ব্যবহার করছেন।

তবে এই ফিচার ব্যবহার করার জন্য আগে থেকে তা অন করতে হবে ব্যবহারকারীকে। তারা এই ফিচার অন না করলে পপ আপ নোটিফিকেশন মিলবে না।

কতক্ষণ ব্যবহারের পর বিরতি নেওয়ার নোটিফিকেশন আসবে, তাও ঠিক করতে পারবেন ইউজাররা। ১০, ২০ নাকি ৩০ মিনিট টানা ব্যবহারের পর এই নোটিফিকেশন আসবে, তাও আগে থেকে নির্ধারণ করে ফেলা যাবে।

উল্লেখ্য, ২০২১ সালের নভেম্বরেই এই ফিচার চালু করার কথা ছিল। কিন্তু ৩ মাস পর তা চালু করা হল। তবে আপাতত কেবল আইওএস ব্যবহারকারীদের জন্য এটি এসেছে। খুব শিগগির অ্যান্ড্রোয়েড ব্যবহারকারীরাও পাবেন এই সুবিধা।

‘টেক এ ব্রেক’ প্রথম মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য, আয়ারল্যান্ড, কানাডা, নিউজিল্যান্ড এবং অস্ট্রেলিয়াতে চালু করা হয়েছিল। বর্তমানে এটি বিশ্বব্যাপী সবার জন্য উপলব্ধ।

সূত্র: টাইমস অব ইন্ডিয়া



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ইনস্টাগ্রাম


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ