Inqilab Logo

রোববার, ০৩ জুলাই ২০২২, ১৯ আষাঢ় ১৪২৯, ০৩ যিলহজ ১৪৪৩ হিজরী

খাগড়াছড়িতে নৌকার ভরাডুবি, দুই প্রার্থীর জামানত বাজেয়াপ্ত

অনলাইন ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৮ ফেব্রুয়ারি, ২০২২, ১১:১৯ এএম

খাগড়াছড়ি জেলার পানছড়ি উপজেলায় নৌকা প্রতীকের প্রার্থীদের ভরাডুবি হয়েছে। গতকাল সোমবার (৭ ফেব্রুয়ারি) সপ্তম ধাপে ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছে। পাঁচ ইউনিয়নের মাত্র একটিতে জয় পেয়েছে ক্ষমতাসীন দলের প্রার্থী।

উপজেলার চেঙ্গি ইউনিয়নের চেয়ারম্যান প্রার্থী মনিন্দ্র লালা ত্রিপুরা নৌকা প্রতীকে পেয়েছেন ৯৬ ভোট এবং লৌগাং ইউনিয়নের মিলন কান্তি সাহা নৌকা প্রতীকে পেয়েছে ৭২২ ভোট।

মোট ভোটের আট ভাগের এক অংশ না হওয়ায় এ দুইটি ইউনিয়নের নৌকা প্রতীকের চেয়ারম্যান প্রার্থীদের জামানত বাজেয়াপ্ত হবে।

এছাড়া ৩নং পানছড়ি সদর ইউনিয়নের দুইটি ভোট কেন্দ্রের ব্যালট ছিনতাই এবং জাল ভোট দেয়ার অভিযোগে নির্বাচন স্থগিত করা হয়েছে। এ ইউনিয়নেও এগিয়ে রয়েছে স্বতন্ত্র প্রার্থী।

উপজেলা নির্বাচনী ফলাফল কন্ট্রোল রুম সূত্রে জানা গেছে, ১নং লৌগাং ইউনিয়নে অটোরিক্সা প্রতীকে ৩ হাজার ৯০২ ভোট পেয়ে জয় কুমার চাকমা বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী স্বতন্ত্র প্রার্থী সমর বিকাশ চাকমা পেয়েছে ২ হাজার ৮০৪ ভোট।

২নং চেঙ্গি ইউপিতে মোটরসাইকেল প্রতীকে আনন্দ জয় চাকমা ১ হাজার ৪৬০ ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী স্বতন্ত্র প্রার্থী নিহার বিন্দু চাকমা পেয়েছে ১ হাজার ২৮০ ভোট।

৪নং লতিবান ইউপিতে স্বতন্ত্র প্রার্থী ভুমিধর রোয়াজা চশমা প্রতীকে ২ হাজার ৭১২ ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন। নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী স্বতন্ত্র প্রার্থী সত্য প্রিয় চাকমা পেয়েছে ২ হাজার ৬৭৩ ভোট।

৫নং উল্টাছড়ি ইউপিতে মো. আহির উদ্দিন নৌকা প্রতীকে ৪ হাজার ৩০২ ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী স্বতন্ত্র প্রার্থী বিজয় চাকমা পেয়েছে ৩ হাজার ৭৫৯ ভোট।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ইউপি নির্বাচন


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ