Inqilab Logo

রোববার, ০৩ জুলাই ২০২২, ১৯ আষাঢ় ১৪২৯, ০৩ যিলহজ ১৪৪৩ হিজরী
শিরোনাম

শেষ ধাপের ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে জয় মুখে দেখলো না সিলেটে নৌকার কোন প্রার্থীই

সিলেট ব্যুরো | প্রকাশের সময় : ৮ ফেব্রুয়ারি, ২০২২, ৩:০৬ পিএম

সপ্তম ও শেষ ধাপের মধ্য দিয়ে শেষ হয়েছে দেশে দশম ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন। শেষ ধাপের ইউপি নির্বাচন আওয়ামী লীগের ভরাডুবি ঘটেছে সিলেট বিভাগে। গতকাল সোমবার অনুষ্ঠিত এ নির্বাচনে সিলেটের একটি ও সুনামগঞ্জের তাহিরপুরে উপজেলার সাতটি ইউনিয়নেই ক্ষমতাশীল দল আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থীদের একজনই জয় মুখ দেখেনি। ৮টির মধ্যে ৪ টিতে আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী এবং ৪টিতে বিজয়ী হয়েছেন স্বতন্ত্র প্রার্থী বিএনপি নেতারা। সোমবার সিলেট জেলার জৈন্তাপুর উপজেলার নিজপাট ইউনিয়ন এবং সুনামগঞ্জ জেলার তাহিরপুর উপজেলার শ্রীপুর উত্তর, শ্রীপুর দক্ষিণ, বড়দল উত্তর, বড়দল দক্ষিণ, বাদাঘাট, তাহিরপুর সদর ও বালিজুরি ইউনিয়নে ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়। বিক্ষিপ্ত কিছু ঘটনা ছাড়া শান্তিপূর্ণভাবে সকাল ৮টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত অনুষ্টিত হয় ৮টি ইউনিয়নের ৮০ টি কেন্দ্রে ভোট গ্রহণ। ভোটাররা ব্যাপক আগ্রহ নিয়ে পছন্দের প্রার্থীকে ভোট দিতে উপস্থিত হন। প্রতিটি কেন্দ্রে পুরুষ ভোটারদের পাশাপাশি নারী ভোটারদের উপস্থিতি ছিল লক্ষ্যণীয়। সিলেটের জৈন্তাপুরে ৯টি কেন্দ্রের কোথাও কোনো অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটেনি। স্বতন্ত্র প্রার্থী বিএনপি নেতা মো. ইন্তাজ আলী ৬ হাজার ১০ ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন চেয়ারম্যান। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী চশমা মার্কা নিয়ে আব্দুল মালিক ৪ হাজার ১শত ২১ ভোট পেয়েছেন। নিজপাট ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে ী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন ৮ জন প্রার্থ। এদিকে, সুনামগঞ্জের তাহিরপুর উপজেলার সাতটি ইউনিয়নে সকাল ৮টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত ৭১টি কেন্দ্রে ভোট গ্রহণ অনুষ্টিত হয় শান্তিপূর্ণভাবে। বিজয়ীদের মধ্যে আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী ৪ জন এবং ৩ জন বিএনপি নেতা রয়েছেন। প্রাপ্ত ফলাফলে দেখা যায়, বাদাঘাট ইউনিয়নে নিজাম উদ্দিন (ঘোড়া) প্রতীকে আ.লীগ বিদ্রোহী ১১৫০৭টি ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী বর্তমান চেয়ারম্যান আফতাব উদ্দিন (আনারস) প্রতীকে ১১১৬০ভোট পেয়েছেন। বালিজুরী ইউনিয়নে আজাদ হোসেন ( আনারস) প্রতীকে ৬হাজার ১শ ৬২ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী আ.লীগ প্রার্থী মো.আতাউর রহমান নৌকা প্রতিকে ৪ হাজার ৪শ০১ ভোট পেয়েছেন। দক্ষিণ বড়দল ইউনিয়নে ইউনুছ মিয়া (মোটর সাইকেল) প্রতীকে ৫২৪৯ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিন্দ্বন্দ্বী সবুজ আলম (চশমা) প্রতীকে ২৫১৪ ভোট পেয়েছেন। তাহিরপুর সদর ইউনিয়নে জুনাব আলী বিএনপি বিদ্রোহী (ঘোড়া) প্রতীকে ৩হাজার ১শ৩৬ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী বর্তমান চেয়ারম্যান বোরহান উদ্দিন (চশমা) প্রতীকে ৩ হাজার ৭৬ ভোট পেয়েছেন। উত্তর বড়দল ইউনিয়নে মাসুক মিয়া (ঘোড়া) প্রতীকে ৭ হাজার ৭শ ৬৬ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী জামাল উদ্দিন নৌকা প্রতীকে ৫ হাজার ৯শ ২৪ ভোট পেয়েছেন। দক্ষিণ শ্রীপুর ইউনিয়নে আলী আহমদ মুরাদ (ঢোল) প্রতীকে ৩ হাজার ৭৬ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী মহসিন রেজা মানিক (আনারস) প্রতীকে ২ হাজার ২শ ৯৮ ভোট পেয়েছেন। উত্তর শ্রীপুর ইউনিয়নে উপজেলা বিএনপির সহ-সভাপতি আলী হায়দার (চশমা) প্রতীকে ৬ হাজার ৮শ ৯৭ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী আবুল খায়ের (নৌকা) প্রতীকে ৬ হাজার ২শ ৭ ভোট পেয়েছেন। তাহিরপুর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান এবং জেলা আওয়ামী লীগের কৃষি ও সমবায় বিষয়ক সম্পাদক করুণা সিন্ধু চৌধুরী বাবুল বলেন, ভোট উৎসবে স্থানীয় জনমতের প্রতিফলিত ঘটেছে।

 

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ইউপি নির্বাচন

৯ ফেব্রুয়ারি, ২০২২

আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ