Inqilab Logo

ঢাকা, সোমবার ২৪ জুন ২০১৯, ১০ আষাঢ় ১৪২৬, ২০ শাওয়াল ১৪৪০ হিজরী।

নারায়ণগঞ্জে আয়করদাতা ২৫ হাজার

প্রকাশের সময় : ৩ নভেম্বর, ২০১৬, ১২:০০ এএম

নারায়ণগঞ্জ থেকে স্টাফ রিপোর্টার : দেশের উন্নতি করতে হলে নৈতিক দায়িত্ব পালন করে আয়কর দিতে হবে। যিনি নৈতিক দায়িত্ব পালনে অবহেলা করবেন তিনি এই দেশের সন্তান হতে পারেন না বলে মন্তব্য করেছেন নারায়ণগঞ্জ-৫ আসনের সংসদ সদস্য একেএম সেলিম ওসমান। মঙ্গলবার (১ নভেম্বর) সকালে নারায়ণগঞ্জ ক্লাবের কমিউনিটি সেন্টারে নারায়ণগঞ্জ কর-অঞ্চলের আয়োজনে আয়কর মেলার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এমন দাবি করেন। সংসদ সদস্য সেলিম ওসমান আরো বলেন, ঘুষের টাকা, হারাম টাকা ট্যাক্স দেয়া যাবে না। সঠিক পথে আয় করে দেশের উন্নয়নের জন্য সেই আয়ের একটি অংশ দিতে হবে। নারায়ণগঞ্জে ২৫ হাজার মানুষ ট্যাক্স দেয় ৭০ হাজার মানুষ দেয় না, তাদের ভেতরে ভয়। একবার দিলে মনে হয় আর বের হওয়া যাবে না। বার বার দিতে হবে। এখানে মেলা হচ্ছে পণ্য বিক্রির জন্য নয়, মানুষকে বুঝানোর জন্য।
তিনি কর অফিসের কর্মকর্তাদের উদ্দেশে বলেন, নারায়ণগঞ্জে ৪০টি ব্যবসায়ী সংগঠন একছাদের নিচে। বাংলাদেশ কেন পৃথিবীর অন্যকোন স্থানে এক ছাদের নিচে এত ব্যবসায়ী সংগঠন নেই। একদিন মেলা করে সরকারকে দেখালেন, পত্রপত্রিকায় ছবি আনলেন কিন্তু সাধারণ মানুষ বুঝলো না কর কি? কেন দেয়। তাহলে তারা এই কর দেয়া থেকে পিছিয়ে থাকবে। তাই সকল ব্যবসায়ীদের সাথে বসতে হবে, সাধারণ মানুষকে বুঝাতে হবে। এই অনুষ্ঠান ক্লাবের কমিউনিটি সেন্টারে না হয়ে গ্রীন লনে হতে পারতো বা স্টেডিয়ামে দরকার হলে ব্যবসায়ীরা স্পন্সর করতো, সহযোগিতা করতো। কিন্তু কর অফিসের কর্মকর্তারা কোন যোগাযোগই করেন নাই।
তিনি আরো বলেন, নারায়ণগঞ্জ থেকে কত কর উঠে, সেই কর নারায়ণগঞ্জের কোন উন্নয়ন খাতে যায় কোন কিছুই উল্লেখ করে নাই। এটি মানুষ দেখলে উৎসাহিত হবে। ব্যবসায়ীদের চাপ দিলে ব্যবসায়ীরা কঠোর হবে। আপন হবার চেষ্টা করেন তাতে সাফল্য লাভ করতে পারবেন। টানবাজার, নয়ামাটির ব্যবসায়ীদের যেভাবে চাপ দেয়া হয় খাতাপত্র বের করে হিসাব দেখা হয়। আমি বললে আপনার ট্যাক্স অফিসের লোকজন রাস্তায় নামতে পারবে না। সংসদ সদস্য সেলিম ওসমান ব্যবসায়ীদের উদ্দেশে বলেন, আপনারা ভয় করবেন না। ভয়ে কোন সরকারী অফিসারের পকেট ভারী না করার আহ্বান জানান তিনি।
বিশেষ অতিথির বক্তব্যে জেলা প্রশাসক রাব্বী মিয়া বলেছেন, কর আদায়ের কর্মকর্তারা সকল পর্যায়ে মানুষের কাছে যেতে হবে। তাদের ঘরে ঘরে গিয়ে বুঝাতে হবে। অন্যান্য প্রতিষ্ঠান থেকে সরকারী কর্মকর্তাদের বিশাল দায়িত্ব। মানুষের কল্যাণে তাদের কাজ করতে হয়। সরকার সকল সরকারী কর্মচারীদের বেতন বৃদ্ধি করেছেন। এখন কোন কর্মচারী যদি বেতন কম বলে দুর্নীতি করে তাহলে সেটা হয়ে যাবে মিরজাফরী।
জেলা প্রশাসক সরকারী কর্মকর্তাদের সাবধান করে বলেন, দুর্নীতির জন্য কোন আপোষ নেই। নারায়ণগঞ্জ কোন সরকারী কর্মকর্তা বা কর্মচারী বিশৃঙ্খলা করলে তাকে ছাড় দেয়া হবে না। আলোচনা সভা শেষে ফিতা কেটে, বেলুন এবং পায়রা উড়িয়ে মেলা উদ্বোধন করেছেন নারায়নগঞ্জ-৫ আসনের সংসদ সদস্য ও বিকেএমইএ’র সভাপতি একেএম সেলিম ওসমান।
কর অঞ্চল-নারায়ণগঞ্জের কর কমিশনার মোঃ রেজাউল করিম চৌধুরীর সভাপতিত্বে আরো উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন) মোস্তাফিজুর রহমান, এফবিসিসিআইর পরিচালক প্রবীর কুমার সাহা, চেম্বার অব কর্মাস এন্ড ইন্ডাস্ট্রির সভাপতি খালেদ হায়দার খান কাজল।
তারাবো পৌরসভার মেয়র হাসিনা গাজী, নারায়ণগঞ্জ-৫ আসনের সংসদ সদস্য সেলিম ওসমানের সহধর্মিণী নাসরিন ওসমান, বিকেএমইএ’র সহ-সভাপতি (অর্থ) জিএম ফারুক, আয়কর উপদেষ্টা তারাপদ আচার্য, বাংলাদেশ ইয়ার্ন মার্চেন্টস এসোসিয়েশনের সভাপতি লিটন সাহা, নারায়ণগঞ্জ ক্লাবের সাবেক সভাপতি এম সোলেয়মান, জামাল সোপ ফ্যাক্টরির মালিক কাশেম জামালসহ আরো অনেকে।


আয়কর মেলায় আগ্রহের কেন্দ্রবিন্দু ই-ফাইলিং বুথ
অর্থনৈতিক রিপোর্টার : রাজধানীর আয়কর মেলার ৫৫ নম্বর স্টলটি ই-ফাইলিং বুথ। করদাতাদের যত আগ্রহ যেনো এই বুথকে কেন্দ্র করেই। এ বুথের সেøাগান- ‘অনলাইনে আয়কর রিটার্ন দাখিল করুন, ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ায় অংশ নিন। মেলার দ্বিতীয় দিন বুধবার দেখা যায়, ই-ফাইলিং বুথের সামনে থেকে ভিড় যেনো সরছে না। অনলাইনে কিভাবে আয়কর রিটার্ন দাখিল করতে হয় সে বিষয়ে সেখানে জানতেই করতাদারা ভিড় করছেন বললেন- বুথের দায়িত্বে থাকা কর্মকর্তা ও ‘কর তথ্য ব্যবস্থাপনা ও সেবা’র সদস্য কালীপদ হালদার।
তিনি জানান, করদাতারা অনলাইনের মাধ্যমে আয়কর রিটার্ন দাখিল করতে চাইলে প্রথমে একটি ই-ফাইল খুলতে হবে, অনলাইনে (িি.িবঃধীহনৎ.মড়া.নফ) যে কেউ এই ই-ফাইল খুলতে পারবেন। তারপর নির্দেশিত নিয়মে রিটার্ন দাখিল করতে পারবেন।
ওই কর্মকর্তা আরও বলেন, মেলা শুরু হওয়ার পর থেকে গত দুইদিনে এই বুথ থেকে এক হাজারের বেশি করদাতা সেবা নিয়েছেন। এর মধ্যে প্রায় ৩০০ জন ই-ফাইল খুলেছেন। ই-ফাইলিংয়ের মাধ্যমে আয়কর রিটার্ন দাখিল করায় করদাতাদের মূল্যবান সময় বাঁচবে-শ্রম লাঘব হবে। একই সঙ্গে স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতা নিশ্চিত হবে, যোগ করেন তিনি।


যশোরে আয়কর মেলা
যশোর ব্যুরো ঃ যশোরে চার দিনব্যাপী আয়কর মেলা শুরু হয়েছে। বুধবার বেলা ১১টায় শহরের পৌর কমিউনিটি সেন্টারে এ মেলার উদ্বোধন করেন যশোর-৪ আসনের এমপি রণজিৎ কুমার রায়। খুলনা অঞ্চলের কর কমিশনার ইকবাল হোসেনের সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি ছিলেন যশোর কাস্টমস এক্সাইজ ও ভ্যাট কমিশনার জামাল হোসেন, জেলা প্রশাসক ড. মো: হুমায়ুন কবীর, যশোর ট্যাক্সেস বার অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি মোয়াজ্জেম হোসেন চৌধুরী ও বিশিষ্ট ব্যবসায়ী চিন্ময় সাহা।
সহকারী কর কমিশনার অসিম চন্দ্র জানিয়েছেন, ২ থেকে ৫ নভেম্বর পর্যন্ত যশোর পৌর কমিউনিটি সেন্টারে আয়কর মেলা অনুষ্ঠিত হবে। এ মেলায় সরকারি চাকরিজীবী, বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে কর্মরত, ব্যবসায়ীদের কর প্রদানে উৎসাহিত করতে আলাদা বুথ স্থাপন করা হয়েছে।


নওগাঁয় আয়কর মেলা
নওগাঁ জেলা সংবাদদাতা : নওগাঁয় ৪ দিনব্যাপী আয়কর মেলা শুরু হয়েছে। শহরের আয়োজন রেস্টুরেন্ট মিলনায়তনে নওগাঁ আয়কর বিভাগ এই মেলার আয়োজন করে। মঙ্গলবার দুপুর ১২টায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে মেলার উদ্বোধন করেন জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও স্থানীয় সংসদ সদস্য আব্দুল মালেক। উপ-কর কমিশন কার্যালয় সার্কেল-৩ এর সহকারী কর কমিশনার সুমন চন্দ্র কুন্ডুর সভাপতিত্বে এসময় অধ্যক্ষ প্রফেসর এস এম জিল্লুর রহমান, কর আইনজীবী সমিতির সভাপতি অ্যাড: সরদার সালাহ উদ্দিন মিন্টু এবং উপ-কর কমিশন কার্যালয় সার্কেল-৫ এর সহকারী কর কমিশনার উৎপল হালদার বক্তব্য রাখেন। এসময় সরকারি ও বেসরকারি কর্মকর্তা, ব্যবসায়ী, কর আইনজীবী এবং কর বিভাগের বিভিন্ন পর্যায়ের কর্মকর্তা-কর্মচারীবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। মেলায় উপ-কর বিভাগের ৩টি সার্কেল অফিস, কর আইনজীবী সমিতি, সোনালী ব্যাংক, ই-টিআইএন, হেল্পডেস্কসহ প্রায় ১৪টি স্টল স্থাপন করা হয়েছে।

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ