Inqilab Logo

ঢাকা, রবিবার, ০৯ আগস্ট ২০২০, ২৫ শ্রাবণ ১৪২৭, ১৮ যিলহজ ১৪৪১ হিজরী
শিরোনাম

প্রতাশা অনুযায়ী বাণিজ্য হচ্ছে না হিলি স্থলবন্দরে

ভারত অভ্যন্তরে পূর্ণাঙ্গ স্থলবন্দর নেই

প্রকাশের সময় : ৩ নভেম্বর, ২০১৬, ১২:০০ এএম

হিলি বন্দর সংবাদদাতা : সমস্যা যেন কাটছে না দেশের দ্বিতীয় বৃহত্তম হিলি স্থলবন্দরের। প্রতিষ্ঠার পর থেকেই এখানে চলছে নানা সঙ্কট আর অস্থিরতা। সম্ভাবনা থাকা সত্ত্বেও আশানুরূপ প্রসার ঘটছে না এখানকার ব্যবসা-বাণিজ্যে। ব্যবসায়ীরা বলছেন, হিলি স্থলবন্দরের ন্যায় ভারত অভ্যন্তরে পূর্ণাঙ্গ স্থলবন্দর হলে এ বন্দর দিয়ে পর্যাপ্ত ব্যবসা পাশাপাশি সরকারের প্রচুর পরিমাণে আদায় হবে রাজস্ব।
দেশের উত্তরাঞ্চলে ব্যবসা-বাণিজ্যের বিশাল সম্ভাবনার কথা চিন্তা করে সরকার এই বন্দরকে ২০০৭ সালের ২৬ নভেস্বর পূর্ণাঙ্গ স্থলবন্দর হিসেবে বেসরকারি অপারেটর পানামা পোর্ট লিংক লিমিটেডকে ২৫ বছরের জন্য লিজ দেয়। কিন্তু ভারত অভ্যন্তরে পূর্ণাঙ্গ স্থলবন্দর না থাকায় ব্যবসায়ীরা ব্যবসা করতে বিভিন্ন সমস্যার সম্মুখীন হচ্ছেন।
ভারত সরকার ইতিপূর্বে পূর্ণাঙ্গ স্থলবন্দর ঘোষণা দিলেও এখন পর্যন্ত তা বাস্তবায়ন হয়নি। তাই হিলি স্থলবন্দর দিয়ে অনেক পণ্য আমদানি বা রফতানি করা সম্ভব হচ্ছে না। অনেক সময় পণ্য আমদানি-রফতানিতে ভারতে আমদানি-রফতানিকারকদের ৫শ’ কিলোমিটার দূরে কলকাতায় যেতে হয় কাগজপত্র ছাড় করতে।
দু’দেশের উচ্চ পর্যায়ে বৈঠকের মাধ্যমে হিলি স্থলবন্দরের আমদানি-রফতানি বৃদ্ধির লক্ষ্যে ভারতীয় অভ্যন্তরে যদি ভারত সরকার পূর্ণাঙ্গ স্থলবন্দর বাস্তবায়ন করে তাহলে দেশের রাজস্ব বৃদ্ধির পাশাপাশি আমদানি-রফতানি ব্যাপকভাবে বৃদ্ধি পাবে।
আমদানিকারক গ্রুপের আহ্বায়ক হারুনুর রশিদ বলেন, ভারত অভ্যন্তরে পূর্ণাঙ্গ স্থলবন্দর না থাকার কারণে অনেক সম্ভাবনা থাকা সত্ত্বেও আমরা এ বন্দর দিয়ে পর্যাপ্ত পরিমাণে আমদানি-রফতানি ব্যবসা করতে পারছি না। পানামা হিলি পোর্ট লিং লিমিটেডের সহকারী ব্যবস্থাপক এস এম হায়দার বলেন, ভারত অভ্যন্তরে পূর্ণাঙ্গ স্থলবন্দর হলে হিলি স্থলবন্দরের আমদানি-রফতানি বৃদ্ধি পাবে। পাশাপাশি বাড়বে দেশের রাজস্ব।
পৌরমেয়র জামিল হোসেন চলন্ত বলেন, রাস্তা অপ্রশস্ত এবং খানাখন্দের কারণে প্রায়ই জানজট হয় এবং দুর্ঘটনা ঘটে। এ কারণে বন্দরে পর্যাপ্ত ট্রাক ডুকতে পারে না। এছাড়াও রাস্তায় জ্যাম লেগে থাকায় বাংলাদেশের অভ্যন্তরে পণ্য নিয়ে ট্রাক প্রবেশে সময় লাগছে অনেক বেশি।






 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: প্রতাশা অনুযায়ী বাণিজ্য হচ্ছে না হিলি স্থলবন্দরে
আরও পড়ুন