Inqilab Logo

রোববার, ০৩ জুলাই ২০২২, ১৯ আষাঢ় ১৪২৯, ০৩ যিলহজ ১৪৪৩ হিজরী

এক কোটি শিক্ষার্থীকে দুটি করে স্কুল পোশাক দেবে পশ্চিমবঙ্গ সরকার

অনলাইন ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১০ ফেব্রুয়ারি, ২০২২, ৩:৪৮ পিএম

চলছে নাম নথিভুক্তিকরণ, এক কোটি ছাত্রছাত্রীকে স্কুলের পোশাক দেবে ভারতের পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য সরকার। প্রতি বছরই সরকারি ও সরকার অনুমোদিত স্কুলের প্রথম থেকে অষ্টম শ্রেণির ছাত্রছাত্রীদের বিনামূল্যে ‘ইউনিফর্ম’ দেয় মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সরকার।
আগামী এপ্রিলের মধ্যে প্রায় এক কোটি শিক্ষার্থীকে দুই কোটি স্কুলের পোশাক দেওয়ার কথা রয়েছে। প্রতি বছরই সরকারি ও সরকার অনুমোদিত স্কুলের প্রথম থেকে অষ্টম শ্রেণির ছাত্রছাত্রীদের বিনামূল্যে স্কুলের পোশাক দেয় মমতা ব্যানার্জীর সরকার।
জানা গেছে, প্রত্যেক শিক্ষার্থীকে দুইটি করে পোশাক দেওয়া হবে। আপাতত গ্রামীণ এলাকা ও শহরতলির বেশ কিছু স্কুলে কতজন শিক্ষার্থীর কী মাপের পোশাক লাগবে, সেই তথ্য তৈরি করা হচ্ছে। এখন পর্যন্ত প্রায় এক কোটি ছাত্রছাত্রীর নাম নথিভুক্ত হয়েছে।
কিন্তু এত কম সময়ে কীভাবে বিপুল সংখ্যক শিক্ষার্থীকে পোশাক দেওয়া সম্ভব তা নিয়েও চিন্তায় রয়েছে প্রশাসন। তাই এবার স্বনির্ভর গোষ্ঠীর পাশাপাশি এমএসএমই ক্লাস্টারকেও পোশাক সেলাইয়ের কাজে যুক্ত করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।
এই কাজের জন্য চিহ্নিত করা হয় ৬০ হাজার ৩০৫টি স্বনির্ভর গোষ্ঠীকে। এক নির্দেশে বলা হয়, স্বনির্ভর গোষ্ঠীর পাশাপাশি এমএসএমই ক্লাস্টারের সদস্যদেরও এই কাজে যুক্ত করতে হবে। এই ক্লাস্টারের সদস্যরা সারা বছর পোশাক তৈরির কাজই করে থাকেন। তাদের যুক্ত করা গেলে আরও দ্রুত কাজ শেষ করা যাবে বলে মনে করছে প্রশাসন। প্রশাসনিক এক কর্মকর্তা জানান, স্কুলের শিক্ষার্থীদের পোশাক সরকার তৈরি করায় বেড়েছে কর্মসংস্থানের সুযোগও।
কলকাতা জেলার স্কুলগুলিতে কতজন ছাত্রছাত্রীর পোশাক লাগবে, সেই তথ্য দ্রুত জমা করতে বলা হয়েছে ‘স্টেট আরবান ডেভেলপমেন্ট এজেন্সি’ (সুডা)-র দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্তাদের। কলকাতার স্কুলগুলিতে পোশাক সেলাইয়ের দায়িত্ব দেওয়া হবে মূলত সুডার অধীনে থাকা স্বনির্ভর গোষ্ঠীর সদস্যদের। সূত্র : আনন্দবাজার অনলাইন



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: পশ্চিম বঙ্গ


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ