Inqilab Logo

ঢাকা, শনিবার, ২০ অক্টোবর ২০১৮, ৫ কার্তিক ১৪২৫, ০৯ সফর ১৪৪০ হিজরী

সব আলো মিরাজের উপর

প্রকাশের সময় : ৪ নভেম্বর, ২০১৬, ১২:০০ এএম

বিশেষ সংবাদদাতা : বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের ভাবমর্যাদা বদলে দেয়ার কারিগর ডেভ হোয়াটমোর একপাশে বরিশাল বুলসে’র অনুশীলন দেখছেন গভীর মনোযোগে, অন্য পাশে খুলনা টাইটান্সকে নিয়ে অনুশীলনে মগ্ন বাংলাদেশের আর এক সফল কোচ স্টুয়ার্ট ল’। মাঠে ড্যারেন স্যামী, ওমর আকমল এবং আরো অনেক আন্তর্জাতিক তারকা। তারপরও শের-ই-বাংলা স্টেডিয়ামের একাডেমি মাঠে মিডিয়ার চোখ নিব্বিষ্ট ১৯ বছরের ছেলে মেহেদী হাসান মিরাজের দিকে। আজ কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স উদ্বোধনী ম্যাচে মুখোমুখি হবে রাজশাহী কিংসের। অথচ, রাজশাহী কিংসের মিরাজই যেনো মাশরাফির নয়নের মনি। নিজেই এসেছেন ছুটে মিরাজের কছে। ইংল্যান্ডের বিপক্ষে বাংলাদেশের স্মরণীয় জয়ের নায়ক মিরাজকে পেয়েই এক দÐ দাঁড়িয়েছেন, কাছ থেকে হেঁটে এসে ড্যারেন স্যামীও দাঁড়িয়েছেন বাংলাদেশের নুতন সেনসেশনের পাশে!
মিরাজের পিঠে হাত বুলিয়ে দিয়ে করেছেন অনুপ্রাণিত বাংলাদেশ ওয়ানডে অধিনায়ক মাশরাফি। মিরাজের জন্য করেছেন শুভকামনা। দিয়েছেন তাকে গুরুত্বপূর্ণ টিপস মাশরাফিÑ ‘মিরাজ খ্বুই পরিশ্রমী ক্রিকেটার। অনূর্ধ্ব ১৯ থেকেই ওকে দেখছি। একই মাঠে অনুশীলন করেছি, খুবই কঠোর পরিশ্রম করে। এক-দুই বছর পর থেকে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে কাউন্ট করতে হয়। কারণ পারফরম্যান্স লেভেলটা শুরুতে এমন হলে অন্যান্য দল এতো বেশি বিশ্লেষণ করে যে, তখন সেভাবে পারফর্ম করা কঠিন হয়ে যায়। তবে ও যেহেতু পরিশ্রমী, তখন অনেক কিছু শিখবে। আমি মনে করি মিরাজ খুবই ভালো একজন ব্যাটসম্যান। টেস্ট সিরিজে তা দেখাতে পারেনি। আশা করছি ভবিষ্যতে সে তা দেখাতে পারবে। বাংলাদেশ দলে এসে খেলা একটা জিনিস, আর ১০ বছর সার্ভিস দেয়া আর একটা জিনিস। ও যদি বাংলাদেশ দলকে ১০ বছর সার্ভিস দিতে পারে, তাহলে ও নতুন অনেক কিছু শিখবে, অনেক কিছু করবে। সে যদি ১০ বছর বাংলাদেশ ক্রিকেটকে সার্ভিস দিতে পারে তাহলে দ্রæতই বাংলাদেশের ক্রিকেট বদলে যাবে।’
নিজের দল রাজশাহী কিংসে এমন এক তরুণ তুর্কি পেয়ে যার পর নাই খুশি ড্যারেন স্যামি। টেস্টে যে ছেলেটি ২ ম্যাচে ১৯ উইকেট নিয়ে সারা বিশ্বকে হতবাক করে দিয়েছে, সেই ছেলেটির কাছে বিপিএলে বড় কিছু দাবি স্যামীরÑ ‘দলে মিরাজকে পেয়ে আমি অবশ্যই রোমাঞ্চিত। আজ (গতকাল) অনুশীলনে আসার সময় বাসে ওকে আমি বলেছি, তোমার কাছ থেকে আমি বড় কিছু চাই। তবে তরুণ হয়েও এখনই সে যেভাবে দায়িত্ব নিতে শিখেছে , টেস্টে যেভাবে বোলিং করেছে, তা ভেবে আমি নিজেই দারুণ রোমাঞ্চিত। আমার বিশ্বাস, আমাদের জন্যও খুব ভালো কিছু করবে। ’
ঢাকা টেস্টের জয়ের নায়ক মিরাজের ভাগ্য গেছে বদলে। খুলনায় ৩ হাজার টাকার বেড়ার ঘরে ১৭ বছর কাটানো মিরাজের পরিবার পাচ্ছে নুতন পাকা বাসা। খুলনায় মিরাজকে পাকা বাড়ি তৈরি করে দেয়ার নির্দেশ খুলনা জেলা প্রশাসককে দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। প্রধানমন্ত্রীর পক্ষ থেকে এই উপহারের সংবাদ পেয়ে ভীষণ খুশি মেহেদী হাসান মিরাজ। প্রধানমন্ত্রীর প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেছেনÑ ‘খুলনায় মাননীয় প্রধানমন্ত্রী আমাদের জন্য বাড়ি তৈরি করে দিতে বলেছেন, এর চেয়ে ভাল খবর কি আর হতে পারে। প্রধানমন্ত্রীর প্রতি আমি এবং আমাদের পরিবার কৃতজ্ঞ। শুনেছি খুলনায় আমরা যেখানে থাকি, তার আশে-পাশে একটা বাড়ি করে দেয়া হবে। তাহলে ভালই হবে।’



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ