Inqilab Logo

রোববার, ২৬ জুন ২০২২, ১২ আষাঢ় ১৪২৯, ২৫ যিলক্বদ ১৪৪৩ হিজরী

বরিশালে যৌতুক মামলায় কলেজ শিক্ষক জেল হাজতে

বরিশাল ব্যুরো | প্রকাশের সময় : ১৫ ফেব্রুয়ারি, ২০২২, ৮:২৪ পিএম

যৌতুক না দেয়ায় স্ত্রীকে তালাক দিয়ে দ্বিতীয় বিয়ে করার হুমকির অভিযোগে দায়েরকৃত মামলায় কলেজ শিক্ষক মোঃ মামুনকে জেল হাজতে পাঠিয়েছেন বরিশালের সিনিয়রর জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট এসএম মাহফুজ আলম। জামিনে থাকা শিক্ষক মোঃ মামুন মঙ্গলবার স্থায়ী জামিনের আবেদন করলে বিচারক তা নামঞ্জুর করে কলেজ শিক্ষককে জেলহাজতে পাঠানোর নির্দেশ দেন ।

গত ৫ ডিসেম্বর স্ত্রী তামান্নার দায়ের করা মামলায় মুলাদী উপজেলার সেলিমপুর এলাকার এ কাদের হাওলাদারের ছেলে শিক্ষক মামুন’কে আদালত জেল হাজতে পাঠায়। পরে ১৪ ডিসেম্বর মোঃ মামুন অন্তবর্তীকালীন জামিন লাভ করেন।

২০১৮ সালের ৮ সেপ্টেম্বর মোঃ মামুনের সাথে উপজেলার পশ্চিম বাণীমর্দন এলাকার অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষক দেলোয়ার হোসেনের মেয়ে তামান্নার বিয়ে হয়। বিয়ের পর কলেজ শিক্ষকতায় নাম অন্তর্ভুক্ত করতে মামুন তার স্ত্রীর কাছে ৩ লাখ টাকা যৌতুক চায়। এর আগেও শিক্ষক মামুন তার শশুড়ের কাছ থেকে মটর সাইকেল কিনতে ২ লাখ টাকা নেয়। স্ত্রী তামান্না টাকা দিতে অপারগতা জানালে মামুন ক্ষিপ্ত হয়। পরে সে তামান্নাকে পিতার বাড়ি থেকে ৩ লাখ টাকা নিয়ে আসতে বলে তার বাসা থেকে তাড়িয়ে দেয়।

ঘটনার এক মাস পর মোঃ মামুন তামান্নার বাবার বাড়িতে এসে পুনরায় ৩ লাখ টাকা যৌতুক দাবি করে। অন্যথায় সে তামান্নাকে তালাক দিয়ে অন্যত্র বিয়ে করার হুমকি দেয়। এ ঘটনায় গত বছর ৪ অক্টোবর তামান্না মামলা দায়ের করলে আদালত প্রথমে সমন জারী করেন। পরে মোঃ মামুন আদালত থেকে অন্তবর্তীকালীন জামিন পান। জামিনের মেয়াদ শেষে স্থায়ী জামিনের আবেদন করলে বিচারক তা নামঞ্জুর করে মামুনকে জেল হাজতে প্রেরণের নির্দেশ দেন।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: বরিশাল

১৫ ফেব্রুয়ারি, ২০২২
৭ ফেব্রুয়ারি, ২০২২

আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ