Inqilab Logo

শুক্রবার, ০১ জুলাই ২০২২, ১৭ আষাঢ় ১৪২৯, ০১ যিলহজ ১৪৪৩ হিজরী
শিরোনাম

আরো গ্র্যান্ড স্ল্যাম মিস হলেও টিকা নেবেন না জোকোভিচ!

স্পোর্টস ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৬ ফেব্রুয়ারি, ২০২২, ১২:০১ এএম

তার টিকা না নেওয়া নিয়ে কি কান্ডটাই না হলো কিছুদিন আগে! প্রতিযোগিতায় অংশ নিতে অস্ট্রেলিয়া পৌঁছানোর সঙ্গে সঙ্গেই মেলবোর্ন বিমানবন্দরে আটক করা হয় নোভাক জোকোভিচকে। পাঠানো হয় কোয়ারেন্টিনে। সেখানে কয়েক দিন ‘বন্দী’ থাকার পর ব্যাপারটি আদালতেও গড়ায়। যদিও জোকোভিচের দাবি ছিল তিনি অস্ট্রেলিয়ান ওপেনের আয়োজক সংস্থা টেনিস অস্ট্রেলিয়ার আমন্ত্রণেই অস্ট্রেলিয়া এসেছেন এবং তার কাছে বিশেষ মেডিকেল সনদও আছে। প্রথমে আদালত জোকোভিচকে মুক্তি দিলেও অস্ট্রেলীয় সরকার তাঁকে অস্ট্রেলিয়ান ওপেনে অংশ নিতে দেয়নি। তার ভিসা বাতিল করে দেশে ফেরত পাঠায়। এ কারণে তার ২১তম গ্র্যান্ড সøাম জয় পিছিয়ে গেছে। ধ্রæপদি এক লড়াইয়ে দানিল মেদভেদভকে হারিয়ে অস্ট্রেলিয়ান ওপেনের শিরোপা জিতে প্রথম পুরুষ তারকা হিসেবে ২১তম গ্র্যান্ড সø্যাম জেতেন রাফায়েল নাদাল।
কিন্তু তাতে যেন আরো বেশি-টিকা বিরোশী হয়ে উঠেছেন সার্বিয়ান তারকা! কিছুতেই করোনার টিকা নেবেন না বর্তমান নম্বর ওয়ান টেনিসার। এ জন্য যদি ভবিষ্যতে অস্ট্রেলিয়ান ওপেনের মতো বড় কোনো প্রতিযোগিতায় খেলা না-ও হয়, তাতেও তিনি রাজি। কিন্তু টিকা তিনি নেবেন না! বিবিসির সঙ্গে এক সাক্ষাৎকারে টেনিসের ২০ গ্র্যান্ড সø্যাম বিজয়ী সার্বিয়ান তারকা বলেছেন, কোনোভাবেই করোনার টিকা গ্রহণ বা প্রদান কার্যক্রমের সঙ্গে সম্পৃক্ত হবেন না। তবে যেকোনো মানুষেরই টিকা নেওয়ার ব্যাপারটিতে তার সমর্থন থাকবে। কারণ তিনি মনে করেন, টিকা নেওয়া বা না নেওয়া ব্যক্তির একান্ত নিজের পছন্দের ব্যাপার। টিকা না নেওয়ার কারণে ভবিষ্যতে যদি উইম্বলডন কিংবা ফ্রেঞ্চ ওপেনের মতো টেনিস প্রতিযোগিতায় অংশ নিতে না পারেন, সেটি নিয়ে কোনো আক্ষেপ থাকবে না বলেই জোকোভিচ জানিয়েছেন বিবিসিকে, ‘হ্যাঁ, এর জন্য যত মূল্যই চোকাতে হোক না কেন, আমি সেটিতে রাজি। আমার কোনো সমস্যা নেই।’
অস্ট্রেলীয় সরকার তার ভিসা বাতিলের বিষয়ে জানিয়েছিল, টিকা না নেওয়া জোকোভিচের ভিসা যদি করা না হয়, তাহলে অস্ট্রেলিয়ায় সামাজিক নৈরাজ্যের জন্ম হবে। টিকা না নেওয়া জোকোভিচ অস্ট্রেলিয়ায় টিকাবিরোধী চিন্তাভাবনাকেও উৎসাহিত করবেন বলে শঙ্কা ছিল অস্ট্রেলীয় সরকারের। তবে করোনার টিকা নিয়ে জোকোভিচের ভাবনা খুব পরিষ্কার, ‘আমি কখনোই করোনা টিকার বিরোধী নই। শিশু বয়সে আমি প্রয়োজনীয় টিকা নিয়েছি। তবে আমি সব সময়ই করোনা টিকা নেওয়ার ব্যাপারে ব্যক্তিগত পছন্দ-অপছন্দকে সম্মান করি।’ সার্বিয়ান তারকা অবশ্য মনে করেন, ভবিষ্যতে টেনিসের বিভিন্ন টুর্নামেন্টে অংশগ্রহণের ব্যাপারে টিকা আইনের পরিবর্তন আসবে এবং তিনি আরও বহুদিন খেলতে পারবেন।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: জোকোভিচ

২৩ ফেব্রুয়ারি, ২০২২

আরও
আরও পড়ুন