Inqilab Logo

মঙ্গলবার, ১৬ আগস্ট ২০২২, ০১ ভাদ্র ১৪২৯, ১৭ মুহাররম ১৪৪৪
শিরোনাম

বদলে যাচ্ছে ফেসবুকের নিউজ ফিডের নাম, কেন হঠাৎ এই বদল?

অনলাইন ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৯ ফেব্রুয়ারি, ২০২২, ১০:৪১ এএম

নতুন নামের পথে হাঁটল ফেসবুক। এবার বদলে যাবে নিউজ ফিডের নাম। এতদিন নিউজ ফিড বলা হলেও এবার থেকে তাকে ডাকা হবে শুধুমাত্র ফিড বলে। ফেসবুকের অফিসিয়াল পেজেই এই ঘোষণা করা হয়েছে।

এই ধরনের পরিবর্তন আগেও হয়েছে ফেসবুকে। একসময় যাকে ওয়াল বলা হত, এখন সেটাই হয়েছে টাইমলাইন। কিন্তু কেন এই বদল? মার্ক জুকারবার্গের সংস্থার তরফে জানানো হয়েছে, ইউজাররা তাদের ফিডে যে বৈচিত্রময় কনটেন্ট দেখেন তাকে আরও ভালভাবে প্রতিফলিত করতেই এই পরিবর্তনের পথে হাঁটছে তারা।

তবে এক সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যমের দাবি, এর পিছনে অন্য উদ্দেশ্য রয়েছে। আসলে ফেসবুক থেকে অনেক সময়ই ভুয়া খবর ছড়িয়ে পড়ার অভিযোগ উঠেছে। তাই নিউজ ফিড নাম থেকে ফিড- এই নামকরণ করে ফেসবুক বোঝাতে চাইছে এটা কোনও মতেই খবরের ফিড নয়। আসলে জুকারবার্গ বহুদিন ধরেই জানিয়েছেন, তারা ফেসবুককে খবরের উৎস হিসেবে পরিচিত করতে চান না। নতুন পদক্ষেপে যেন তারই আভাস।

উল্লেখ্য, সম্প্রতি এক বৈঠকে তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয়ের প্রতিনিধিরা কড়া সমালোচনা করেছিলেন ফেসবুক, গুগল, টুইটার কর্তাদের। ভারচুয়াল ওই বৈঠকে কেন্দ্রীয় প্রতিনিধিদের তরফে কেন্দ্রের নতুন নির্দেশিকা ঠিক ভাবে মানা হচ্ছে না বলে অভিযোগ তোলা হয়। বলা হয়, ভুয়া খবর সম্পর্কে পদক্ষেপের ক্ষেত্রে সংস্থাগুলির এই ধরনের নিষ্ক্রিয়তার কারণেই সরকারই বহু ক্ষেত্রে কনটেন্ট সরিয়ে নেওয়ার নির্দেশ দিয়েছে।

শেষ পর্যন্ত সেই কারণেই কি ফেসবুকের এমন পদক্ষেপ? প্রশ্ন উঠছে। তবে খবর একেবারে বাদ যাচ্ছে না বলেই খবর। জানা যাচ্ছে, ফ্রেন্ড, গ্রুপ প্রভৃতি অংশে ভাঙার পাশাপাশি আলাদা ট্যাব হিসেবে রাখা হবে নিউজকেও। সূত্র: রয়টার্স।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ফেসবুক

২২ এপ্রিল, ২০২২

আরও
আরও পড়ুন