Inqilab Logo

মঙ্গলবার, ১৮ জানুয়ারী ২০২২, ০৪ মাঘ ১৪২৮, ১৪ জামাদিউস সানি ১৪৪৩ হিজরী

নামেই রেল স্টেশন, হয় না ট্রেনের যাত্রাবিরতি : স্টেশনের দুই পাশের কোটি কোটি টাকার সম্পদ হচ্ছে বেদখল

প্রকাশের সময় : ১৪ ফেব্রুয়ারি, ২০১৬, ১২:০০ এএম

আফতাব হোসেন, চাটমোহর (পাবনা) থেকে : পাবনার ভাঙ্গুড়ার ৩টি স্টেশন শুধু নামেই রয়েছে। বাস্তবতায় কোন কাজে আসছে না। পাবনার ভাঙ্গুড়া উপজেলায় বড়ালব্রিজ, শরৎনগর এবং ভাঙ্গুড়া নামে ৩টি রেলওয়ে স্টেশন রয়েছে। স্টেশন ৩টির মধ্যে বড়ালব্রিজ রেলওয়ে স্টেশন ছাড়া বাকি ২টিতে আন্তঃনগর ট্রেনের কোন যাত্রা বিরতি হয় না। ওই স্টেশন ২টিতে লোকাল ট্রেন থামলেও যাত্রী তেমন হয় না। এলাকাবাসী ও স্টেশন সূত্রে জানা যায় বৃটিশ আমলে স্থাপিত স্টেশনগুলি এক সময়ে যাতায়াতের জন্য বেশ গুরুত্বপূর্ণ ছিল কিন্তু কালক্রমে তা হারিয়ে গেছে। আন্তঃনগর ট্রেন না থামার ফলে এখানে যাত্রীরাও আসে না। বর্তমানে ভাঙ্গুড়া ও শরৎনগর স্টেশনে ট্রেন ক্রসিং হিসেবে ব্যবহৃত হচ্ছে। দিলপাশার স্টেশন ছাড়া শরৎনগর ও ভাঙ্গুড়া স্টেশনে কোন প্লাটফরম, টিকিট কাউন্টার, বিশ্রামাগার ও শৌচাগার নেই। প্লাটফরম না থাকায় যাত্রীরা ঝুঁকি নিয়ে উঠানামা করেন। স্টেশনের কোয়াটারগুলির অবস্থাও বেশ নাজুক। স্টেশনের দু’পাশের কোটি কোটি টাকার সম্পদও দিন দিন বেদখল হয়ে যাচ্ছে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ