Inqilab Logo

রোববার, ২৬ জুন ২০২২, ১২ আষাঢ় ১৪২৯, ২৫ যিলক্বদ ১৪৪৩ হিজরী

গৌরনদীতে ৪৩ দিনের কন্যাশিশুকে হত্যার অভিযোগে মা গ্রেফতার

বরিশাল ব্যুরো | প্রকাশের সময় : ২২ ফেব্রুয়ারি, ২০২২, ৭:২৮ পিএম

বরিশালের গৌরনদীতে ৪৩দিনের কন্যা শিশুকে গলা টিপে হত্যা করে পানিতে ফেলে দেয়ার অভিযোগে গর্ভধারিণী মা হিমা আক্তার’কে (২৬) সোমবার রাতে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। হত্যাকান্ডের ঘটনায় অভিযুক্ত মায়ের বিরুদ্ধে শিশুটির পিতা মোঃ দেলোয়ার হোসেন মেলকার বাদী হয়ে গৌরনদী থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করার পরে পুলিশ তাঁকে গ্রেফতার করে।

গৌরনদী থানার ওসি মোঃ আফজাল হোসেন সাংবাদিকদের জানিয়েছেন, মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তার প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে হিমা আক্তার তার কন্যাশিশুকে গলা টিপে হত্যা করে ও পানিতে ফেলে দেয়ার কথা স্বীকার করেছে। পরে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি দিতে হিমাকে মঙ্গলবার বিকেলে বরিশাল আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে। সন্ধ্যা ৬টায় এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত আদালতে তার জবানবন্দি রেকর্ড করা হচ্ছিল।

হিমা আক্তারের স্বামী দেলোয়ার হোসেনের বাড়ি গৌরনদীর কমলাপুর গ্রামে। ওই দম্পতির তিন বছর বয়সী একটি ছেলে সন্তান রয়েছে। গত ১৮ ফেব্রুয়ারি দুপুরে উপজেলার বাদুর তলা গ্রামের পিত্রালয়ে বসে হিমা আক্তার তার ৪৩ দিন বয়সী মেয়ে শিশুটিকে গলা টিপে হত্যা করে লাশ বাড়ির পাশের পুকুরে ফেলে দিলে স্বজনরা শিশুটির লাশ উদ্ধার করে।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই মোঃ হারুন অর রশিদ জানান, শিশু খাদিজা ইসলাম রোকাইয়াকে গত শুক্রবার দুপুরে পাওয়া যাচ্ছে না বলে শিশুটির মা চিৎকার করে বাড়ির লোকজন জড়ো করে। সবাই মিলে খোঁজাখুঁজির এক পর্যায়ে বাড়ির পাশের পুকুরে শিশুটির লাশ ভাসতে দেখে উদ্ধার করে। ওইদিন রাতেই শিশুটির পিতা স্ত্রী হিমা আক্তারের নামে গৌরনদী থানায় একটি হত্যা মামলা করে। পুলিশ শিশুটির লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তে বরিশাল শের এ বাংলা মেডিকেল কলেজের মর্গে পাঠায়।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: বরিশাল

১৫ ফেব্রুয়ারি, ২০২২
৭ ফেব্রুয়ারি, ২০২২

আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ