Inqilab Logo

বুধবার, ২৯ জুন ২০২২, ১৫ আষাঢ় ১৪২৯, ২৮ যিলক্বদ ১৪৪৩ হিজরী

ওমিক্রনের নতুন ভ্যারিয়েন্ট ভয়ংকর নয়: বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা

অনলাইন ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৩ ফেব্রুয়ারি, ২০২২, ২:০৫ পিএম

করোনার তৃতীয় ঢেউয়ের ধাক্কা রুখে দিতে কার্যত সফল বিশ্ব। করোনার নতুন স্ট্রেন ওমিক্রনের সংক্রমণের জোয়ার এখন অনেকটাই স্তিমিত। এরই মধ্যে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা জানাল, ওমিক্রনের নতুন সাব ভ্যারিয়েন্টের কথা। বিএ.২ নামের এই স্ট্রেনটি আগের বিএ.১ স্ট্রেনের থেকেও বেশি সংক্রামক, এমনটাই দাবি তাদের।

তাহলে কি নতুন করে বিপদের আশঙ্কা তৈরি হচ্ছে? আপাতত অবশ্য স্বস্তির কথাই শোনাচ্ছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা। ঠিক কি জানানো হয়েছে তাদের বিবৃতিতে? সেখানে বলা হয়েছে, ‘বিএ.২ নামের এই নতুন স্ট্রেনটি উদ্বেগজনক। এটিকে অবশ্য ওমিক্রনেরই নতুন রূপ হিসেবে ধরতে হবে।’ ওই নয়া স্ট্রেনটিকে কড়া পর্যবেক্ষণে রাখার কথা বলছে সংস্থাটি। তবে সেই সঙ্গে এও জানানো হয়েছে, এখনই এই স্ট্রেনকে নিয়ে আতঙ্কিত হওয়ার কিছু নেই। কেননা এটা বেশি ছোঁয়াচে হলেও না মূল স্ট্রেনটির মতো ভয়ংকর নয় বলেই মনে করা হচ্ছে।

জানা গিয়েছে ওমিক্রনের এই নতুন রূপভেদটি ইতিমধ্যেই ডেনমার্কের প্রধান স্ট্রেন হয়ে উঠেছে। ব্রিটেনেও এর দৌরাত্ম্য বাড়ছে। সেই সঙ্গে ভারত ও পাকিস্তানেও এর সংক্রমণ বাড়ছে বলে জানা গিয়েছে। কিন্তু বিএ.২ নামের এই স্ট্রেনটি আগের বিএ.১ স্ট্রেনের থেকে কতটা তাড়াতাড়ি ছড়ায়? জানা যাচ্ছে, তুলনামূলক ভাবে নতুন স্ট্রেনটি অনেক বেশি দ্রুত সংক্রমণ ছড়ালেও বিএ.১ স্ট্রেনটি ডেল্টার থেকে যতটা বেশি সংক্রমণ ছড়াত, এক্ষেত্রে সংক্রমণের হারের পার্থক্য ততটা নয়।

গোটা বিশ্বই ধীরে ধীরে করোনার প্রকোপ থেকে নিজেকে মুক্ত করতে শুরু করেছে। ছন্দে ফিরছে জনজীবন। তবে কোভিডের সার্বিক পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে থাকলেও এখনও পুরোমাত্রায় সতর্ক থাকার আরজি জানাচ্ছেন বিজ্ঞানী ও চিকিৎসকরা। এদিকে বিধিনিষেধ জারি করে এবং টিকাকরণে জোর দিয়ে সংক্রমণে লাগাম টানা সম্ভব হলেও চিন্তায় রাখছে দেশের মৃত্যুহার। সূত্র: রয়টার্স।



 

Show all comments
  • shanto ২৩ ফেব্রুয়ারি, ২০২২, ৩:৫৮ পিএম says : 0
    অসংখ্য রকম মিথ্যা প্রতারণা ভন্ডামিপূর্ণ নাটক মিথ্যা ভাইরাস এর উপর তৈরি করে মানুষের দেহে গণহারে বিষাক্ত ভ্যাকসিন দেয়ার ফলে পৃথিবীতে হাজার হাজার লোক নানান ধরনের পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া দ্বারা আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুবরণ করছে আর এখন সেই মৃত্যুকে কথিত ভাইরাসের নতুন ধরনের মাধ্যমে হয়েছে বলে মিথ্যা নাটক সাজানো হচ্ছে, যাতে এই বিষাক্ত ভ্যাকসিন আরো নতুন নতুন মিথ্যা ভন্ডামি প্রতারণামূলক নাটকের মাধ্যমে মানুষকে দেয়া যায়। এই মিথ্যা ভ্যাকসিন নিঃসন্দেহে জৈব অস্ত্র মানুষকে হত্যার জন্য।
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা

২৪ ফেব্রুয়ারি, ২০২২

আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ