Inqilab Logo

বৃহস্পতিবার, ৩০ জুন ২০২২, ১৬ আষাঢ় ১৪২৯, ২৯ যিলক্বদ ১৪৪৩ হিজরী

মঠবাড়িয়ায় ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডে ১০ ব্যবসা প্রতিষ্ঠান ভষ্মিভুত, ৫ সদস্য বিশিষ্ট তদন্ত কমিটি গঠণ

মঠবাড়িয়া (পিরোজপুর) উপজেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ২৫ ফেব্রুয়ারি, ২০২২, ৪:১১ পিএম

পিরোজপুরের মঠবাড়িয়া পৌর শহরের প্রধান সড়কে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে। আগুনে জুয়েলারীসহ ১০ ব্যবসা প্রতিষ্ঠান সম্পূর্ণ ভস্মীভূত হয়েছে। আনুমানিক প্রায় ৮ কোটি টাকার ক্ষতি হয়েছে বলে প্রাথমিক ভাবে ক্ষতিগ্রস্ত ব্যবসায়ীরা দাবি করছেন। বৃহস্পতিবার দিনগত রাত ৩ টার দিকে এ অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটে। সংবাদ পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের চারটি ইউনিট প্রায় তিন ঘন্টা চেস্টা চালিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রনে আনতে সক্ষম হয়। খবর পেয়ে শুক্রবার দুপুরে পিরোজপুরের জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ জাহেদুর রহমান ও পুলিশ সুপার মোহাম্মদ সাইদুর রহমান (পিপিএম-সেবা)ঘটনাস্থল পরিদর্শণ করে প্রত্যেক ক্ষতিগ্রস্ত ১০ ব্যবসায়ীকে সাড়ে সাত হাজার টাকার চেক প্রদান করেন। এ সময় জেলা প্রশাসক অগ্নিকান্ডের কারন ও ক্ষয়ক্ষতি নিরপনে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা উর্মি ভৌমিককে আহবায়ক করে পাঁচ সদস্য বিশিষ্ট কমিটি গঠন করেছেন।

স্থানীয়রা জানান, বৃহস্পতিবার দিনগত রাত ৩টার দিকে শহরের প্রধান সড়কের একটি ব্যবসা প্রতিষ্ঠান থেকে আগুনের সূত্রপাত হয়। মুহূর্তের মধ্যে আশপাশের ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে আগুন ছড়িয়ে পড়ে। এসময় অগ্নিকা-ে রফিকুল ইসলাম বাবুলের মালিকানাধীন মেসার্স বাবুল লইব্রেরী এন্ড অফসেট প্রেস, মন্টু কর্মকার, পল্টু কর্মকার, বিমল কর্মকার, কমল কর্মকারের ৪টি (জুয়েলারী) স্বর্ণের দোকান, মদিনা রেস্টুরেন্ট এন্ড মিষ্টান্ন ভান্ডার, একটি ফলের দোকান ও আশোক স্টুডিও এন্ড ইলেকট্রনিকসহ ১০টি ব্যবসা প্রতিষ্ঠান পুড়ে ছাই হয়ে গেছে।
অগ্নিকাা-ের সংবাদ পেয়ে মঠবাড়িয়া, ভা-ারিয়া, বামনা উপজেলার ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের ৪টি ইউনিট ঘটনাস্থলে পৌঁছে। পরে থানা পুলিশ ও স্থানীয়দের সহযোগীতায় ফায়ার সার্ভিস কর্মীরা ৩ ঘন্টা চেষ্টায় আগুন নিয়ন্ত্রণে আনেন।
খবর পেয়ে স্থানীয় সংসদ সদস্য ডাঃ রুস্তুম আলী ফরাজী,পিরোজপুর জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মহিউদ্দিন মহারাজ, উপজেলা চেয়ারম্যান রিয়াজ উদ্দিন আহম্মেদ, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা উর্মি ভৌমিক, সহকারী কমিশনার সাখাওয়াত জামিল সৈকত ও অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোহাম্মদ ইব্রাহীম ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে।
মঠবাড়িয়া ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের স্টেশন অফিসার মো. সোহেল আহম্মেদ জানান, একটি ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে বিদ্যুতের শর্টসার্কিট থেকে আগুনের সূত্রপাত ঘটতে পারে বলে প্রাথমিক ভাবে ধারণা করা হচ্ছে। অগ্নিকা-ে ক্ষয়ক্ষতির নিরূপণের কাজ চলছে।
মঠবাড়িয়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মুহাম্মদ নুরুল ইসলাম বাদল বলেন, সংবাদ পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছে আগুন নিয়ন্ত্রণে ফায়ার সার্ভিস কর্মীদের সহযোগীতা করেছে পুলিশ। অগ্নিকা-ে বসতঘরসহ ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের ক্ষয়ক্ষতি নিরূপণের চেস্টা চলছে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: তদন্ত কমিটি

২১ জানুয়ারি, ২০২২

আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ