Inqilab Logo

সোমবার, ২৭ জুন ২০২২, ১৩ আষাঢ় ১৪২৯, ২৬ যিলক্বদ ১৪৪৩ হিজরী

নতুন নির্বাচন কমিশন সরকারের গুণগ্রাহী

আজ চরমোনাই মাহফিলের আখেরী মোনাজাত মাহফিলের তৃতীয় দিনে পীর সাহেব চরমোনাই

বরিশাল ব্যুরো : | প্রকাশের সময় : ২৮ ফেব্রুয়ারি, ২০২২, ১২:০২ এএম

ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের আমীর মুফতী সৈয়দ মুহাম্মাদ রেজাউল করীম পীর সাহেব চরমোনাই নতুন নির্বাচন কমিশনকে সরকারের গুনগ্রাহী বলে আখ্যায়িত করেছেন। নতুন কমিশন নিরপেক্ষ থেকে জনগণের চাহিদা অনুযায়ী অবাধ, সুষ্ঠু নির্বাচন করতে পারবে বলে দেশবাসী মনে করে না বলেও দাবি করেন। তিনি বলেন, জনগণের মতামতের তোয়াক্কা না করে ক্ষমতাসীন সরকার নিজেদের খেয়াল খুশি অনুযায়ী যে নির্বাচন কমিশন গঠন করেছে, তারা অতীতের কমিশনের মতই আওয়ামী লীগের পক্ষে কাজ করবে তা বলার অপেক্ষা রাখে না।
চরমোনাইর বার্ষিক মাহফিলের তৃতীয় দিনে ইসলামী ছাত্র আন্দোলন বাংলাদেশের উদ্যোগে গতকাল রোববার দুপুরে দরবার শরীফে অনুষ্ঠিত ছাত্র সমাবেশে পীর সাহেব প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখছিলেন। ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের আমীর বলেন, আমরা বারবার প্রেসিডেন্টের সংলাপে গিয়ে কিছু সময় নষ্ট করেছি, কিন্তু তাতে জনগণের কোন কল্যাণ হয়নি। স্বাধীনতার পঞ্চাশ বছরেও দেশে ভোটের অধিকার প্রতিষ্ঠিত হয়নি। দুর্নীতি বন্ধ হয়নি। তিনি বলেন, বর্তমান সরকার স্কুল-কলেজ থেকে ইসলামী শিক্ষা উঠিয়ে দেয়ার চক্রান্ত শুরু করেছে। তিনি অভিযোগ করেন, দুঃখজনকভাবে বলতে হচ্ছে- মুসলিম প্রধান বাংলাদেশে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণের নামে হারাম মদকে হালাল করার আয়োজন চূড়ান্ত করছে।
পীর সাহেব চরমোনাই ছাত্র সমাবেশে আরো বলেন, ক্ষমতার রাজনীতির সিড়ি হিসেবে স্বার্থান্বেষীরা ছাত্র জনতাকে এক সময় অস্ত্রের মাধ্যমে তাদের স্বীয় আদর্শ বিনষ্ট করে দিত, আর এখন আইনি বৈধতার মাধ্যমে মাদক হাতে তুলে দিয়ে আওয়ামী সরকার তাদের জীবন ধ্বংস করার পায়তারা করছে। প্রস্তাবিত মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ বিধিমালা বাস্তবায়িত হলে দেশে আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি বিদজ্জনকভাবে ভেঙে পরবে বলেও তিনি অভিযোগ করেন। এ অবস্থায় ছাত্র-জনতা নিজেদের চরিত্র গঠন ও বাংলাদেশকে একটি কল্যাণ রাষ্ট্রে পরিণত করতে ইসলামী ছাত্র আন্দোলনের প্রতি আস্থা রাখতে পারে বলেও জানান তিনি। কেননা এ সংগঠন সাহাবায়ে কেরামের অনুসৃত পথে পরিপূর্ণ সুন্নাতের ওপর আমলের মাধ্যমে ব্যক্তিগত জীবন গড়ার কাজ করে। রাষ্ট্রশুদ্ধির জন্য নিজেদেরকে যোগ্য ব্যক্তিত্ব হিসেবে পরিণত করার কর্মসূচিও পালন করে করে দাবি করেন তিনি।
সংগঠনের কেন্দ্রীয় সভাপতি নূরুল করীম আকরামের সভাপতিত্বে এ ছাত্র সমাবেশে আরো বক্তব্য রাখেনÑ ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের নায়েবে আমীর আল্লামা আব্দুল হক আজাদ, প্রেসিডিয়াম সদস্য আল্লামা নূরুল হুদা ফয়েজী, অধ্যাপক মাহবুবুর রহমান, যুগ্ম মহাসচিব মাওলানা গাজী আতাউর রহমান, আমিনুল ইসলাম, ইঞ্জিনিয়ার আশরাফুল আলম, সহকারী মহাসচিব মাওলানা শেখ ফজলে বারী মাসউদ, কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক কেএম আতিকুর রহমান, ছাত্র আন্দোলনের কেন্দ্রীয় সহ-সভাপতি শরিফুল ইসলাম রিয়াদ প্রমুখ। তিন দিনের এ বার্ষিক মাহফিল শেষে আজ সোমবার সকাল ৮টায় পীর সাহেব চরমেনাই আখেরী মোনাজাত পরিচালনা করবেন।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: পীর সাহেব চরমোনাই


আরও
আরও পড়ুন