Inqilab Logo

ঢাকা, বুধবার, ১২ আগস্ট ২০২০, ২৮ শ্রাবণ ১৪২৭, ২১ যিলহজ ১৪৪১ হিজরী

ছাতকে ৫ দিনে ৬ জনের আত্মহত্যা বাসের চাকায় পিষ্টে কিশোর নিহত

প্রকাশের সময় : ৭ নভেম্বর, ২০১৬, ১২:০০ এএম

ছাতক (সুনামগঞ্জ) উপজেলা সংবাদদাতা : সুনামগঞ্জের ছাতকে ৫ দিনের ব্যবধানে ৭ জনের অস্বাভাবিক মৃত্যুর ঘটনা ঘটেছে। এদের মধ্যে গলায় ফাঁস দিয়ে, কীটনাশক পানে চার কিশোরী এক কিশোর, ১এক তালাকপ্রাপ্ত নারী আত্মহত্যা করে ও দুর্ঘটনায় ১২ বছরের এক কিশোরের মৃত্যু ঘটে। গত ১ নভেম্বর থেকে ৫ নভেম্বর পর্যন্ত এসব ঘটনা ঘটে।
জানা যায়, গত ৫ নভেম্বর উপজেলার দক্ষিণ খুরমা ইউপির মনিরজ্ঞাতি (নোয়াগাঁও) গ্রামের আজিজুল ইসলামের মেয়ে শাহেদা বেগম (২০) গলায় ওড়না পেচিয়ে ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করে। শাহেদা বেগম সিংচাপইড় গ্রামের নজরুল ইসলামের তালাকপ্রাপ্ত স্ত্রী। ৪ নভেম্বর দুপুরে একইভাবে আত্মহত্যা করে দোলারবাজার ইউপির দক্ষিণ কুর্শী গ্রামের দিনমজুর মিরাস আলীর মেয়ে খুদেজা বেগম (১২)। ২ নভেম্বর পৌরসভার তাতিকোনা গ্রামের খুশিমন দাসের মেয়ে বিসকা রানী দাস (১৫) রশি দিয়ে বসতঘরের তীরের সাথে, ১ নভেম্বর রাতে কালারুকা ইউপির খাইরগাঁও গ্রামের আফরোজ আলীর মেয়ে শিউলী বেগম (১৮) গোয়াল ঘরের পেছনের একটি আমগাছের ডালে ও ২ নভেম্বর দোলারবাজার ইউপির আলমপুর গ্রামের আবদুল মছব্বিরের ছেলে বুরহান উদ্দিন (১৮) বসতঘরের তীরের সাথে ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করে। ২ নভেম্বর রাতে জাউয়া বাজার ইউপির ঝামক গ্রামের আব্দুল ওয়াহিদের মেয়ে আম্বিয়া বেগম (১৮) কীটনাশক খেয়ে আত্মহত্যা করে। এ ছাড়া ১ নভেম্বর গোবিন্দগঞ্জ-সৈদেরগাঁও ইউপির গোয়াশপুর গ্রামের ইদ্রিছ আলীর ছেলে মাছুম আহমদ (১২) তার মাকে সাথে নিয়ে গোবিন্দগঞ্জ ভিক্ষা করতে আসার পথে সিলেট-সুনামগঞ্জ সড়কের পূর্ব সুহিতপুর এলাকায় মিনিবাসের চাকায় পিষ্ট হয়ে ঘটনাস্থলেই মারা যায়। এ ব্যাপারে থানায় পৃথক ইউডি মামলা হয়েছে। তবে কীটনাশক খেয়ে মৃত্যুসহ ছয়টি আত্মহত্যার ঘটনার কোনো কারণ জানা যায়নি।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ছাতকে ৫ দিনে ৬ জনের আত্মহত্যা বাসের চাকায় পিষ্টে কিশোর নিহত
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ