Inqilab Logo

বৃহস্পতিবার, ৩০ জুন ২০২২, ১৬ আষাঢ় ১৪২৯, ২৯ যিলক্বদ ১৪৪৩ হিজরী

চিরতরে বন্ধ হতে চলেছে ইনস্টাগ্রাম এই ভিডিও প্ল্যাটফর্ম! কিন্তু কেন?

অনলাইন ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৩ মার্চ, ২০২২, ১০:৪১ এএম

আপনি কি ইনস্টাগ্রাম ইউজার? মাঝেমধ্যেই আইজিটিভিতে বিভিন্ন ধরনের ভিডিও পোস্ট করে থাকেন? বিশেষ করে নানা বিষয় নিয়ে এক মিনিটের বেশি দৈর্ঘ্যের ভিডিও আপলোড করার অভ্যেস রয়েছে? তাহলে জেনে রাখুন। এ মাস থেকেই আর এই সুবিধা আপনাকে দেবে না ইনস্টাগ্রাম!

হ্যাঁ, ঠিকই পড়েছেন। কারণ চিরতরে আইজিটিভি অ্যাপটির সঙ্গে সম্পর্কে ইতি টানতে চলেছে ফেসবুকের অন্তর্ভূক্ত সোশ্যাল মিডিয়ায় প্ল্যাটফর্ম ইনস্টাগ্রাম। না, কোনও গুঞ্জন নয়, কোম্পানির তরফেই সোমবার এ খবর নিশ্চিত করা হয়েছে। আইজিটিভি প্ল্যাটফর্মে বেশি দৈর্ঘ্যের ভিডিও আপলোড করা যায় অনায়াসেই। এই প্ল্যাটফর্মে কোনও ছবির ট্রেলার থেকে রান্নার রেসিপি কিংবা কোনও তারকার সাক্ষাৎকার দেখা যায় অনায়াসেই। ভার্টিক্যাল বা হরাইজন্টাল- দুই ধরনের ভিডিওই সাপোর্ট করে এই প্ল্যাটফর্ম। তাহলে কেন আইজিটিভি বন্ধ করার সিদ্ধান্ত নিচ্ছে ইনস্টাগ্রাম?

যতদিন যাচ্ছে, ততই জনপ্রিয়তা বাড়ছে এই সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্মের। আর বর্তমানে এই অ্যাপের অন্যতম সেরা আকর্ষণ হয়ে উঠেছে রিলস। কর্ম ব্যস্ততার জীবনে ছোট ছোট ভিডিও দেখতে এবং আপলোড করার অভ্যাসই বাড়ছে নেটিজেনদের। এই রিলস-এ নাচ করে কিংবা গান গেয়ে রাতারাতি সোশ্যাল মিডিয়ায় সেনসেশনও হয়ে উঠছেন অনেকে। আর এর বাড়তে থাকা জনপ্রিয়তার কথা মাথায় রেখেই রিলস-এর উপর মনোনিবেশ করছে মার্ক জুকারবার্গের সংস্থা। সেই কারণেই আইজিটিভি-র সঙ্গে ছিন্ন হচ্ছে সম্পর্ক।

সংস্থার তরফে বলা হয়েছে, “আইজিটিভি না থাকলে ইনস্টাগ্রামের ফিচারগুলি বোঝা ও ব্যবহার করা ইউজারদের পক্ষে আরও সহজ হয়ে যাবে। আগামিদিনে ইনস্টাগ্রাম অ্যাপের ভিডিওই আরও উন্নততর করার দিকে নজর দেওয়া হবে।” উল্লেখ্য, ইউটিউবকে টেক্কা দিতে ২০১৮ সালের জুনে আইজিটিভি অ্যাপের সঙ্গে গাঁটছড়া বাঁধে ইনস্টাগ্রাম। যেখানে ইউটিউবের মতোই দীর্ঘ সময়ের ভিডিও আপলোড করা যেত। কিন্তু অল্প সময়ের মধ্যেই জনপ্রিয় হয়েছে রিলস। তাই আইজিটিভি অ্যাপ ভুলে রিলস-এই মন দিচ্ছে ইনস্টাগ্রাম। সূত্র: অ্যান্ড্রয়েড পুলিশ।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ