Inqilab Logo

বুধবার, ২৯ জুন ২০২২, ১৫ আষাঢ় ১৪২৯, ২৮ যিলক্বদ ১৪৪৩ হিজরী

ইরাকের মার্কিন দূতাবাসে মিসাইল হামলা, অভিযুক্ত ইরান

অনলাইন ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৩ মার্চ, ২০২২, ১:২১ পিএম

মধ্যপ্রাচ্যের আকাশেও বারুদের গন্ধ। অভিযোগ, এবার ইরাকের মার্কিন দূতাবাসকে লক্ষ্য করে ক্ষেপণাস্ত্র ছুঁড়ল ইরান। একটা-দু’টো নয়, রবিবার রাতে এক ঝাঁক মিসাইল আছড়ে পড়েছে ইরবিল শহরে। প্রাণহানির খবর নেই। বিস্তারিতভাবে ক্ষয়ক্ষতির খবর মেলেনি এখনও।

একাধিক আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম সূত্রে খবর, ইরাকের স্থানীয় সময় অনুযায়ী, রবিবার মাঝরাতে উত্তর ইরাকের ইরবিল শহরের মার্কিন দূতাবাসের কাছে ১২টি ব্যালেস্টিক মিসাইল আছড়ে পড়ে। হামলার জেরে মার্কিন দূতাবাসের ক্ষতি না হলে সামনে দূতাবাসের সামনে থাকা একটি স্যাটেলাইট টিভি চ্যানেল কুর্দিস্তান ২৪-এর অফিস ব্যাপকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। এর চেয়ে বেশি ক্ষয়ক্ষতির কথা এখনও সামনে আসেনি। তবে এই হামলা যথেষ্ট তাৎপর্যপূর্ণ বলেই মনে করছে ওয়াকিবহাল মহল। সূত্রের খবর, এরবিলের মার্কিন সেনাঘাঁটিতেও হামলা হয়।

মধ্যপ্রাচ্যের দেশগুলিতে যে কোনও সময় হামলা চালাতে পারে ইরান বা ইরান মদতপুষ্ট জঙ্গিগোষ্ঠীগুলি। এ বিষয়ে আগেই সতর্ক করেছিল আমেরিকা। সেই আশঙ্কাই এদিন সত্যি হল। মিসাইল হামলার তীব্র নিন্দা করে আমেরিকার বিদেশমন্ত্রক। সংবাদ সংস্থা অ্যাসোসিয়েটেড প্রেস সূত্রে খবর,মিসাইলগুলি ইরানের শহর থেকে ছোঁড়া হয়েছে বলে নিশ্চিত করেছে আমেরিকা। হোয়াইট হাউজের তরফে বিবৃতি জারি করে বলা হয়, ইরাকের সার্বভৌমত্ব নষ্টের চেষ্টা করা হয়েছে। সে দেশে অশান্তি সৃষ্টি করার প্রচেষ্টা চালানো হচ্ছে। আমেরিতা এই হামলার তীব্র নিন্দা করছে। আরও জানানো হয় ইরাক এবং কুর্দিস্তান আঞ্চলিক সরকারেরে তরফে এই ঘটনার তদন্ত করা হবে। উল্লেখ্য, এনিয়ে চলতি বছরে দ্বিতীয়বার মিসাইল হামলা চলল ইরাকে। ইতিপূর্বে জানুয়ারি মাসেও হামলা হয়।

সূত্রের খবর, হামলার দায় স্বীকার করেছে ইরানের জঙ্গিগোষ্ঠী। উল্লেখ্য, দিন কয়েক আগে সিরিয়ার দামাস্কাসে ইরানের রেভলিউশনারি গার্ডের দুই সদস্যকে হত্যা করে ইরাক। সেই ঘটনার তীব্র নিন্দা করে বদলা নেওয়ার হুমকি দিয়েছিল ইরানের বিদেশমন্ত্রক। তার পরই ইরাকের মার্কিন দূতাবাস লক্ষ্য করে মিসাইল ছুঁড়ল তারা। আমেরিকা এবং ইরাক জোট কীভাবে এর জবাব দেয়, এখনও সেটাই দেখার। সূত্র: রয়টার্স।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ইরান-যুক্তরাষ্ট্র


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ