Inqilab Logo

বুধবার, ১৭ আগস্ট ২০২২, ০২ ভাদ্র ১৪২৯, ১৮ মুহাররম ১৪৪৪
শিরোনাম

যুক্তরাষ্ট্রের কাছে ‘ক্ষতিপূরণ’ হিসাবে আলাস্কা এবং ক্যালিফোর্নিয়ার অংশ ফেরতের দাবি

অনলাইন ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৭ মার্চ, ২০২২, ১:৪৪ পিএম

একজন রাশিয়ান আইনপ্রণেতা আলাস্কা এবং ক্যালিফোর্নিয়ার একটি অংশ ফেরত দেয়া সহ মস্কোর বিরুদ্ধে অর্থনৈতিক নিষেধাজ্ঞা দেয়ার জন্য মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের কাছ থেকে ‘ক্ষতিপূরণ’ দাবি করছেন।

রাশিয়ার ফেডারেল অ্যাসেম্বলির সদস্য ওলেগ মাতভেচেভ রোববার রাশিয়ার রাষ্ট্রীয় টেলিভিশনে বলেছেন, ‘নিষেধাজ্ঞা এবং যুদ্ধের কারণে যে ক্ষতি হয়েছিল তার ক্ষতিপূরণের বিষয়ে আমাদের চিন্তা করা উচিত, কারণ এতেও অর্থ ব্যয় হয় এবং আমাদের তা ফেরত দেওয়া উচিত।’ তিনি বলেন, ‘সমস্ত রাশিয়ান সম্পত্তি, যেগুলো রাশিয়ান সাম্রাজ্য, সোভিয়েত ইউনিয়ন এবং বর্তমান রাশিয়ার ছিল, যা মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে, সব ফেরত দিতে হবে।’

যখন জিজ্ঞাসা করা হয়েছিল যে, তিনি বিশেষভাবে আলাস্কা এবং ক্যালিফোর্নিয়ায় একসময় রাশিয়ার অধীনে থাকা ফোর্ট রসের কথা বলছেন কিনা, তখন মাতভেচেভ জানান, সেগুলো উভয়ই (রাশিয়ার) অন্তর্গত। ‘এটা ছিল আমার পরবর্তী পয়েন্ট। সেইসাথে অ্যান্টার্কটিক,’ তিনি যোগ করেছেন, ‘আমরা এটি আবিষ্কার করেছি, তাই এটি আমাদেরই।’

উল্রেখ্য, রাশিয়া ১৭৮৪ সালে থ্রি সেন্টস বে নামে একটি উপনিবেশ নিয়ে আলাস্কায় প্রথম বসতি স্থাপন করেছিল। পরে ১৮৬৭ সালে প্রেসিডেন্ট অ্যান্ড্রু জনসনের প্রশাসনের সময় মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ৭২ লাখ ডলারে আলাস্কা কিনেছিল। একটি রাশিয়ান-আমেরিকান কোম্পানিও ১৮১২ সালে আধুনিক সান ফ্রান্সিসকোর বাইরে ফোর্ট রস প্রতিষ্ঠা করেছিল, কিন্তু তারা পরে ১৮৪১ সালে সেটি স্থানীয়দের তাছে বিক্রি করে দেয়।

এই দাবিগুলো মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন এবং তার ছেলে হান্টার বাইডেন সহ অন্যান্য আমেরিকানদের বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞার জন্য রাশিয়ার সর্বশেষ পদক্ষেপ অনুসরণ করে। রাশিয়ার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় বলেছে, ইউক্রেনে আগ্রাসনের জন্য রাশিয়ার বিরুদ্ধে যুক্তরাষ্ট্র যে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে, তার প্রতিশোধ হিসেবে রাশিয়াও নতুন নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে। সূত্র: ডেইলি মেইল।



 

Show all comments
  • moshiur rahman ১৮ মার্চ, ২০২২, ১০:৫৭ এএম says : 0
    বিক্রি হওয়া জিনিস ফেরত হয় না .
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: যুক্তরাষ্ট্র-রাশিয়া


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ