Inqilab Logo

ঢাকা, বুধবার, ০৫ আগস্ট ২০২০, ২১ শ্রাবণ ১৪২৭, ১৪ যিলহজ ১৪৪১ হিজরী

নেভাদা নির্বাচনী কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে ট্রাম্পের মামলা

প্রকাশের সময় : ১০ নভেম্বর, ২০১৬, ১২:০০ এএম

ইনকিলাব ডেস্ক : নেভাদা অঙ্গরাজ্যের নির্বাচনী কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে মামলা করতে যাচ্ছেন রিপাবলিকান প্রার্থী ডোনাল্ড ট্রাম্পের শিবির। অতিরিক্ত দুই ঘণ্টা ধরে আগাম ভোট গ্রহণ করায় এই সিদ্ধান্তে নেয় ডোনাল্ড ট্রাম্পের শিবির। কিছু অগ্রিম ভোটদাতা দেখেছিলেন যে, কিছু বন্ধ হওয়ার নির্ধারিত সময়ের কয়েক ঘণ্টা পরেও খোলা ছিল কিছু ভোটকেন্দ্র। এ নিয়ে বিবাদকে কেন্দ্র করে অবশেষে মামলা করতে যাচ্ছে ট্রাম্প শিবির। আগাম ভোট দিতে ভোটারদের মধ্যে ব্যাপক আগ্রহ কাজ করায় এমনটা ঘটতে পারে বলে জানিয়েছে দ্য ইন্ডিপেনডেন্ট। বিশেষ করে লাতিনো ভোটাররা ভোট দিতে বেশি আগ্রহী ছিল। ফলে নির্ধারিত সময়ের পরেও ভোটারদের দীর্ঘ সারি শেষ হয়নি। এ মামলায় ট্রাম্প শিবির সফল হলে, নেভাদার ফলাফলে দুই প্রার্থী খুবই কাছাকাছি থাকলে ওই আগাম ভোটগুলো প্রত্যাহার করাও হতে পারে। এর ফলে হাজার হাজার ভোট অগৃহীত থেকে যাবে। আর এ কারণেও নির্বাচন ঘুরে যেতে পারে। তবে বিদ্যমান নির্বাচনী আইন অনুযায়ী, লাইনে দাঁড়িয়ে থাকা যে কাউকে অবশ্যই ভোট দেয়ার সুযোগ করে দিতে হবে। এমনকি নির্ধারিত সময় অতিক্রম করলেও ওই ভোটারদের ভোট দেয়ার সুযোগ থাকতে হবে। নেভাদার রিপাবলিকান পার্টির চেয়ারম্যান মাইকেল ম্যাকডোনাল্ডও অতিরিক্ত সময় ভোটকেন্দ্র খোলা থাকা নিয়ে সমালোচনা করেছেন। তিনি ট্রাম্পের পক্ষে এক সমাবেশে উপস্থিত হয়ে বলেন, গত মঙ্গলবার রাতে, ক্লার্ক কাউন্টিতে তারা রাত ১০টা পর্যন্তও ভোটকেন্দ্র খোলা ছিল, যাতে করে একটি নির্দিষ্ট গোষ্ঠী ভোট দিতে পারে। অথচ, ভোটগ্রহণ বন্ধ হওয়ার কথা ছিল সন্ধ্যা ৭টায়। তারা রাত ১০টা পর্যন্ত খোলা রেখেছে। আপনারা কি এখন নিজেদের মুক্ত মনে করছেন? আপনারা ভাবছেন যে এটা অবাধ আর সহজ নির্বাচন? দ্য ইন্ডিপেনডেন্ট।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: নেভাদা নির্বাচনী কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে ট্রাম্পের মামলা
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ