Inqilab Logo

মঙ্গলবার, ২৮ জুন ২০২২, ১৪ আষাঢ় ১৪২৯, ২৭ যিলক্বদ ১৪৪৩ হিজরী

আমিরাতকে আরও বেশি তেল উৎপাদনের আহ্বান জাপানের

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২১ মার্চ, ২০২২, ১১:৪৮ এএম

ইউক্রেনে যুদ্ধ শুরু হওয়ার পর বিশ্ববাজারে তেলের দাম বেড়ে যায়। সরবরাহ সংকটের পাশাপাশি রাশিয়ান তেলের ওপর যুক্তরাষ্ট্রের নিষেধাজ্ঞার পরই জ্বালানির দাম লাফিয়ে বাড়তে থাকে। এর আগে জাপানসহ পশ্চিমা বিশ্ব মস্কোর আর্থিক প্রতিষ্ঠানের ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করে। তাই জ্বালানির ক্ষেত্রে নির্ভরশীলতা কমিয়ে রাশিয়ার বিকল্প খোঁজা হচ্ছে। এরই অংশ হিসেবে সংযুক্ত আরব আমিরাতকে আরও বেশি তেল উৎপাদনের আহ্বান জানিয়েছে জাপান। আল-জাজিরার এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়।

জানা গেছে, আমিরাতের কর্মকর্তাদের সঙ্গে এক বৈঠকে জাপানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ইয়োশিমাসা হায়াশি আন্তর্জাতিক বাজারে তেলের দাম স্থিতিশীল রাখতে দেশটিকে তেলের উৎপাদন বাড়ানোর কথা বলেন।
ইউক্রেনে রুশ অভিযানের পর য্ক্তুরাষ্ট্র সম্প্রতি রাশিয়ার তেল, গ্যাস, কয়লা আমদানিতে নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে। তবে এই পদক্ষেপে আর কোনো মিত্রকে এখন পর্যন্ত পাশে পায়নি ওয়াশিংটন। ইউরোপীয় মিত্ররা জানিয়েছে, তারা এখনই রুশ জ্বালানি আমদানি বন্ধ করতে পারবে না। যুক্তরাষ্ট্রের আরেক মিত্র ভারত মার্কিন নিষেধাজ্ঞার তোয়াক্কা না করে রাশিয়া থেকে ডিসকাউন্ট মূল্যে তেল কেনার চিন্তা করছে।
পুরোনো বন্ধু সউদী আরবও সাম্প্রতিক সংকটে ওয়াশিংটনের সঙ্গে দূরত্ব রাখছে। সউদী যুবরাজের সঙ্গে মার্কিন প্রেসিডেন্টকে ফোনে কথা বলিয়ে দিতে একাধিকবার চেষ্টা করেও ব্যর্থ হয়েছে হোয়াইট হাউজ। একই ঘটনা সংযুক্ত আরব আমিরাতের যুবরাজের ক্ষেত্রেও। রুশ তেলের বিকল্প খুঁজতে যুক্তরাষ্ট্র এখন শত্রুভাবাপন্ন ভেনেজুয়েলার দ্বারে ঘুরছে বলেও খবর পাওয়া গেছে।
২০২০ সালে দৈনিকভিত্তিতে সবচেয়ে বেশি তেল উৎপাদন করে যুক্তরাষ্ট্র। দেশটি এসময় দৈনিক ১৮ দশমিক ৬১ মিলিয়ন ব্যারেল তেল উৎপাদন করে, যা বিশ্বের মোট ২০ শতাংশ। এরপরই সৌদি আরবের অবস্থান। এটি উৎপাদন করে ১০ দশমিক ৮১ মিলিয়ন ব্যারেল, যা বিশ্বের মোট ১২ শতাংশ। ১০ দশমিক পাঁচ মিলিয়ন ব্যারেল উৎপাদন করে রাশিয়ার অবস্থান তৃতীয়, যা বিশ্বের মোট ১১ শতাংশ। এরপরই রয়েছে কানাডা ও চীন। দেশ দুটি যথাক্রমে উৎপাদন করে পাঁচ দশমিক ২৩ শতাংশ ও চার দশমিক ৮৬ শতাংশ, যা বিশ্বের মোট ছয় শতাংশ ও পাঁচ শতাংশ।
তাছাড়া ইরাক দৈনিক চার দশমিক ১৬ মিলিয়ন ব্যারেল, সংযুক্ত আরব আমিরাত তিন দশমিক ৭৮ মিলিয়ন ব্যারেল, ব্রাজিল তিন দশমিক ৭৭ মিলিয়ন ব্যারেল, ইরান তিন দশমিক এক মিলিয়ন ব্যারেল ও কুয়েত দুই দশমিক ৭৫ মিলিয়ন ব্যারেল তেল উৎপাদন করে। সূত্র : আল জাজিরা



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: জাপান


আরও
আরও পড়ুন