Inqilab Logo

রোববার, ১৪ আগস্ট ২০২২, ৩০ শ্রাবণ ১৪২৯, ১৫ মুহাররম ১৪৪৪
শিরোনাম

সেঞ্চুরিয়ন বলেই আত্মবিশ্বাসী তামিম

স্পোর্টস রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২২ মার্চ, ২০২২, ১২:০২ এএম

দুই যুগের আক্ষেপ ঘুঁচেছে গত শুক্রবার। দক্ষিণ আফ্রিকার মাটিতে সব সংস্করণ মিলিয়ে ২০ বারের দেখায় তাদের হারিয়েছে বাংলাদেশ। তিন ম্যাচ ওয়ানডে সিরিজের প্রথমটিতে দাপট দেখিয়ে জিতেছিল তামিম ইকবালের দল। সিরিজ নিশ্চিতের আশায় দ্বিতীয় ম্যাচেই মাটিতে নামতে হয়েছে সফরকারীদের। নিবেদনহীন ব্যাটিং আর নির্বিষ বোলিংয়ে করতে হয়েছে অসহায় আত্মসমর্পণ। তবে এখনও ‘প্রথম’ সিরিজ জিতে ইতিহাসের সুযোগ রয়েছে বাংলাদেশের সামনে। সেজন্য ‘পাওয়ার-প্লে’তে চোখ রাখছেন বাংলাদেশ অধিনায়ক। তামিমের পরিকল্পনাটা সোজা, উইকেট না দেয়া।
প্রথম ওয়ানডে তামিম-লিটন ধীরে শুরু করলেও পরবর্তীতে তা ধরে রাখতে পেরেছে ব্যাটাররা। রাবাদা-এনগিদির পাওয়ার-প্লে খুব দেখেশুনেই খেলেছিলেন তারা। তবে দ্বিতীয় ম্যাচে তা করতে ব্যর্থ হন দুই ওপেনারই। ম্যাচ শেষে বারবার প্রথম দশ ওভারের কথা জোর দিয়ে বলছেন তামিম। তবে দ্বিতীয় ম্যাচ হারলেও মোমেন্টাম হারিয়ে যায়নি বললেন অধিনায়ক তামিম। তার মতে সিরিজ জেতার সুযোগ এখনও রয়েছে বাংলাদেশের, ‘দেখুন আমরা প্রথম ম্যাচে খুবই ভালো খেলেছি। তবে দ্বিতীয়টা খারাপ খেলেছি তা মানতে হবে। একটা জিনিস আমাদের বুঝতে হবে যে আমরা যদি প্রথম দশ ওভারে উইকেট না দিয়ে তাঁদের ভালোভাবে সামাল দিতাম, তাহলে অবশ্যই মাঝের ওভারে রান করতাম। আর মোমেন্টাম ওদের কাছে আছে কী না... ক্রিকেটের প্রতি ম্যাচই নতুন করে শুরু করতে হয়।’
তবে শেষ ম্যাচ কীভাবে খেলবে তামিম তা ছেড়ে দিয়েছেন ক্রিকেটারদের ওপরই, ‘নতুন করে মোমেন্টাম পায় দলগুলো। আমি এটা নিয়ে চিন্তিত নই। একটা ব্যাপার আমি বলব- আমাদের ভালো খেলতে হবে। আমরা যদি প্রথম ম্যাচের মতো খেলি তাহলে আমাদের সুযোগ থাকবে আর যদি গত (দ্বিতীয় ওয়ানডে) ম্যাচের মতো খেলি তাহলে আমাদের জয়ের সম্ভবনা খুবই কম থাকবে। আমাদের ভালো খেলতেই হবে, কোনো অজুহাত নয়।’
এই স্বপ্নের পালে হাওয়া দিচ্ছে ভেন্যু। দ্বিতীয় ওয়ানডে জোহানেসবার্গে হলেও সিরিজ নির্ধারণী ম্যাচ অনুষ্ঠিত হবে প্রথম ম্যাচের ভেন্যু সেঞ্চুরিয়ানে। যেখানেই ইতিহাস গড়েছিল সাকিব-তাসকিনরা, ‘যদিও আমার কাছে মাঠ বড় ফ্যাক্টর মনে হয় না। দুটো ভেন্যুই আমাদের জন্য অ্যাওয়ে। তবে যেহেতু আমরা সেঞ্চুরিয়নে জয় পেয়েছি... কিছুটা বাড়তি আত্ম বিশ্বাসতো থাকবেই। তবে শেষ কথা হলো আমাদের ভালো খেলতে হবে। ওদের মেইন বোলারের (রাবাদা) কথা ধরি- ওকে যদি আগে উইকেট না দিই, মাঝের ওভারগুলোতে আমরা অবশ্যই রান করতে পারব। যদি প্রথম এবং দ্বিতীয় ম্যাচের দিকে দেখেন- অধিকাংশ রানই কিন্তু মাঝের ওভারগুলোতে হচ্ছিল। এটাই আমাদের গেম প্ল্যান থাকবে।’



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: সেঞ্চুরিয়ন বলেই আত্মবিশ্বাসী তামিম
আরও পড়ুন