Inqilab Logo

বুধবার, ১৭ আগস্ট ২০২২, ০২ ভাদ্র ১৪২৯, ১৮ মুহাররম ১৪৪৪

শেরপুরে বিএনপির দুই গ্রুপের ব্যাপক সংঘর্ষ, আহত-১০

শেরপুর জেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ২২ মার্চ, ২০২২, ৩:২৫ পিএম

শেরপুর জেলা বিএনপিসাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব হযরত আলী ও যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক সফিকুল ইসলাম মাসুদ সমর্থকদের মধ্যে ব্যাপক সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। মঙ্গলবার দুপুর ১টায় ডিসিগেইট মোড়ে এ সংঘর্ষ হয়। এতে জেলা ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদকসহ কমপক্ষে ১০ জন আহত হয়েছে। জেলা বিএনপির সূত্রে জানা যায়, দীর্ঘদিন থেকে হযরত আলী ও শফিকুল ইসলাম মাসুদ গ্রুপের মধ্যে দলীয় কোন্দল চলে আসতেছিলো। এরই অংশ হিসেবে আজ দুপুরে দ্রব্যমূল্য উধ্বগতির প্রতিবাদে বিএনপি এবং অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের নেতৃবৃন্দরা জেলা প্রশাসক বরাবর স্মারক লিপি দেওয়ার জন্য জেলা প্রশাসক চত্বরে জমায়েত হতে থাকেন। পরে আরেকটি গ্রুপ প্রবেশ করার সাথে সাথেই হাতাহাতি শুরু হয় সমর্থকদের মাঝে। পরে সিনিয়র নেতৃবৃন্দের সহযোগিতায় হাতাহাতি বন্ধ হলে তারপর জেলা প্রশাসক মো. মোমিনুর রশীদ এর হাতে স্মারক লিপি প্রদান করেন নেতৃবৃন্দরা। স্মারকলিপি প্রদান শেষ করে যাওয়ার পথে দুই গ্রুপের সমর্থকদের মাঝে সংঘর্ষ শুরু হয়। পরে পুলিশের পরিস্থিতি টের পেয়ে সমর্থকরা দৌড়ে পালিয়ে যান।
এঘটনায় শেরপুর জেলা বিএনপির সভাপতি মাহমুদুল হক রুবেলের সাথে মুঠোফোনে যোগাযোগ করার চেষ্টা করেও পাওয়া যায়নি।

এ ঘটনায় শেরপুর জেলা বিএনপির সভাপতি মাহমুদুল হক রুবেল জানান, আমরা এ বিষয়টি কেন্দ্রীয় কমিটিকে জানাবো। কেন্দ্রীয় সিদ্ধান্তনুযায়ী ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

এব্যাপারে সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ওসি মনসুর আহমেদ জানান, শেরপুর জেলা প্রশাসকের কাছে স্মারকলিপি প্রদান শেষ করে বিএনপির নেতৃবৃন্দ চলে যাওয়ার পথে ডিসি গেইটের রাস্তায় দুই গ্রুপের সমর্থকদের মাঝে বাকবিতণ্ড শুরু হয়। পরে পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে উভয় গ্রুপের লোকজন দৌড়ে পালিয়ে যান। বর্তমানে পরিস্থিতি স্বাভাবিক আছে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: সংঘর্ষে আহত


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ