Inqilab Logo

রোববার, ১৪ আগস্ট ২০২২, ৩০ শ্রাবণ ১৪২৯, ১৫ মুহাররম ১৪৪৪
শিরোনাম

গাজীপুরে র‌্যাব পরিচয়ে ডাকাতির ঘটনায় ৭ জন গ্রেফতার, লুন্ঠিত মালামাল উদ্ধার

গাজীপুর জেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ২৪ মার্চ, ২০২২, ৪:৩০ পিএম

গাজীপুরে র‌্যাব পরিচয়ে ডাকাতি ঘটনার দুই দিনের মাথায় আন্ত:জেলা ডাকাত দলের সংশ্লিষ্ট এক নারী সদস্যসহ ৭ জনকে বুধবার রাতে গ্রেফতার করেছে জিএমপি গাছা থানা পুলিশ। এসময় লুণ্ঠিত মালামাল, নগদ টাকা ও র‌্যাবের পোশাক সদৃশ জ্যাকেট উদ্ধার করা হয়।
গ্রেফতারকৃতরা হলো, বগুড়া জেলা সদরের ছোট গৌউরী গ্রামের নিজাম উদ্দিন খানের ছেলে হেমায়েত হোসেন ইমন ওরফে হিমু (৩৫)। সে ঢাকার কেরানীগঞ্জ থানার আমবাগীচা এলাকায় ভাড়া থাকতো। পিরোজপুর জেলা সদরের দক্ষিন কাকড়া বুনিয়া গ্রামের মৃত আক্কাস আলী হাওলাদারের ছেলে শহীদ হাওলাদার (৪৪)। সে গাজীপুর মহানগরের টঙ্গী পূর্ব থানার তিস্তার গেট এলাকায় ভাড়া থাকতো। ফেনী জেলা সদরের করুচিয়া গ্রামের মৃত আমিন হোসেনের ছেলে আল আমিন ওরফে মনির হোসেন (৫৫)। সে গাজীপুর মহানগরের টঙ্গী পশ্চিম থানার আউচপাড়ায় ভাড়া থাকতো। ভোলা জেলার লালমোহন থানার কচুয়াখালী গ্রামের আব্দুর রশিদের ছেলে শাহজাহান সাজু ওরফে কোট্টি (৩০)। সে সাভার বক্তারপুরে ভাড়া থাকতো। বরগুনা জেলার বামনা থানার বড় তালেশ^র গ্রামের হেমায়েত হোসেনের ছেলে আল আমিন (৩৫)। সে গাজীপুর মহানগরের টঙ্গী পূর্ব থানার দত্তপাড়া আশরাফ খানের বাড়িতে ভাড়া থাকতো। বরিশাল জেলার গৌরনদী থানার মধ্য হোসনাবাদ গ্রামের খোরশেদ আলমের স্ত্রী মোসাঃ মিতু (৩৫)। সে গাজীপুর মহানগরের টঙ্গী পূর্ব থানার দত্তপাড়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় সংলগ্ন রহিমার বাড়িতে ভাড়া থাকতো এবং একই এলাকার মৃত আব্দুর রবের ছেলে হাবিবুর রহমান (৪৫)। সে মিতুর বাসার কাছে টঙ্গীর এরশাদ নগর ৩ নং ব্লকে (বেরিবাঁদ) ভাড়া থাকতো।
বৃহস্পতিবার দুপুরে জিএমপি সদর দপ্তরে এক পেস ব্রিফিংয়ে জিএমপি ডিসি (দক্ষিণ) মোহাম্মদ ইলতুৎ মিশ জানান, গ্রেফতারকৃত ডাকাতরা আন্ত:জেলা ডাকাত দলের সদস্য এবং তাদের প্রত্যেকের বিরুদ্ধেই বিভিন্ন থানায় একাধিক মামলা রয়েছে। গ্রেফতারকৃত ডাকাতরা র‌্যাব পরিচয়ে অভিযানের নামে গত সোমবার রাতে গাছা থানাধীন কুনিয়া পশ্চিমপাড়া মদিনা মসজিদ সংলগ্ন রুপ মিয়া সুপার মাকের্টের আশপাশের রাস্তা বন্ধ করে দেয়। এসময় তারা নৈশপ্রহরীকে জিম্মি করে মার্কেটের বিউটি জেনারেল স্টোরের তালা ভেঙ্গে ভিতর প্রবেশ করে এবং নগদ ২০ হাজার টাকা ও বিভিন্ন কোম্পানীর প্রায় সাড়ে ৪ লাখ টাকার সিগারেট লুটে নেয়। ঘটনার পর পুলিশ ওই দোকান ও এলাকার বিভিন্ন সিসি টিভি ফুটেজ সংগ্রহ করে তদন্তে নামে। একপর্যায়ে গত বুধবার রাতে তথ্য প্রযুক্তির সহায়তা এবং গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে গাজীপুর ও ঢাকাসহ বিভিন্ন এলাকায় অভিযান চালিয়ে এ ডাকাত দলের ৭ সদস্যকে গ্রেফতার করা হয়। বাকিদের গ্রেফতারে অভিযান অব্যাহত আছে। গ্রেফতারকৃতদেরর হেফাজত হতে বিউটি জেনারেল স্টোর থেকে লুন্ঠিত নগদ সাড়ে ৮ হাজার টাকা, বিভিন্ন ব্র্যান্ডের ৭৪৪ প্যাকেট সিগারেট এবং ডাকাতি কাজে ব্যবহৃত পিকআপ (ঢাকা মেট্রো ২১-৪৫৯৮) উদ্ধার করা হয়।
এদিকে গাছা থানা পুলিশ অপর পৃথক অভিযানে দস্যুতার কাজে ব্যবহৃত পিস্তল সদৃশ্য খেলনা পিস্তল, ছুরি, চাপাতি ও চাকুসহ ৪ ছিনতাইকারীকে গ্রেফতার করেছে। গ্রেফতারকৃতরা হলো, আলমগীর হোসেন (৪২), মেহেদী হাসান মাসুদ (২১), শফিকুল ইসলাম (৩০) ও সাইফুল ইসলাম রাকিব ওরফে পাগলু রাকিব (৩০)। অভিযানে এদের কাছ থেকে বিভিন্ন ছিনতাই ঘটনায় লুণ্ঠিত মাবাইল ফোন, ল্যাপটপ এবং অন্যান্য লুণ্ঠিত মালামাল উদ্ধার করা হয়।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ডাকাত গ্রেফতার

২১ ফেব্রুয়ারি, ২০২২

আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ