Inqilab Logo

ঢাকা, বুধবার, ১৪ নভেম্বর ২০১৮, ৩০ কার্তিক ১৪২৫, ০৫ রবিউল আউয়াল ১৪৪০ হিজরী

যাত্রাবাড়ীতে ছিনতাইকারীর কবলে পড়ে আহত সাংবাদিক

প্রকাশের সময় : ১০ নভেম্বর, ২০১৬, ১২:০০ এএম

স্টাফ রিপোর্টার : রাজধানীর যাত্রাবাড়ী এলাকায় গতকাল বুধবার ছিনতাইকারীর কবলে পড়ে আহত হয়েছেন বিডি নিউজের সাংবাদিক এডভোকেট প্রকাশ বিশ্বাস। তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। 

প্রকাশ বিশ্বাস জানান, তিনি কোর্টে যাবার উদ্দেশ্যে গতকাল সকাল ৯টার দিকে যাত্রাবাড়ীর কাজলা বাসস্ট্যান্ডে গাড়ির জন্য অপেক্ষা করছিলেন। এ সময় সেখানে দাঁড়িয়ে থাকা একটি সাদা মাইক্রোবাসে সাধারণ যাত্রী তোলা হচ্ছিল। তিনিও ওই গাড়িতে ওঠেন। মাইক্রোবাসে যাত্রীবেশে আরো ৫ জন লোক ছিল। মাইক্রোবাসে ওঠার পর যাত্রীবেশি দুর্বৃত্তরা তার চোখ, মুখ, হাত, পা বেঁধে ফেলে। এরপর হাতুড়ি দিয়ে পিটিয়ে টাকা দাবি করে। পরে তার কাছ থেকে বিকাশের মাধ্যমে ২০ হাজার টাকা নিয়ে এবং তার ব্যবহৃত ২টি মোবাইল রেখে নারায়ণগঞ্জের সিদ্ধিরগঞ্জে একটি মাদ্রাসার পাশে ধাক্কা দিয়ে ফেলে যায়। পরে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে পাঠান। যাত্রাবাড়ী থানার ওসি আনিসুর রহমান জানান, বিষয়টি ক্ষতিয়ে দেখা হচ্ছে।



 

Show all comments
  • Md.Afzal Hussain ২০ ডিসেম্বর, ২০১৭, ১২:৫৮ পিএম says : 0
    বাংলাদেশের ধৃত অপরাধীরা যদি অপরাধ না করার নিশ্চিত শিক্ষা প্রশিক্ষণ শিক্ষকের নিকট থেকে গ্র্রহণ করত বা করার সুযোগ সৃষ্টি করা হত, প্রত্যেক নাগরিকের জন্য নৈতিক অপরাধমুক্ত থাকার শিক্ষা বাধ্যতামূলক করে তদারকী প্রবর্তন করা হত; দেশে অপরাধীদের সংখ্যা হ্র্রাস পেত । অপরাধী ধরার ঔৎ পেতে থাকা সরকারের একটা বাহিনীকে যদি নাগরিককে শিক্ষা প্রশিক্ষণ দিত তদারকী করত তবে দেশে সুনাগরিক সৃষ্টি হত । আর এইশিক্ষা প্রশিক্ষণের ব্যয় বহনের ট্যাক্স জনগণের উপর আরোপ করত , মানবতা বিরুধী রাষ্ট্রবিরুধী নাগরিক সমাজে সৃষ্টি হত না । ধর্মনিরপেক্ষ গণতান্ত্রিক মানব আবিস্কৃত শাষণ ব্যবস্থায় ব্যক্তি নিজের উদ্যোগে সুনাগরিক হবে আর সরকার জনগণের ট্যাক্সের টাকায় স্কুল কলেজ বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠা করে রাখবে; জনগণকে প্রত্যক্ষভাবে সরকারী বাহিনী দ্বারা শিক্ষা গ্রহণে উদ্বুদ্ধ না করে শুধু ভাযণ দিবে আর ধরপাকড় বাহিনীকে জনগণের টাকায় চাকুরী দিয়ে প্রত্যক্ষ শিক্ষা প্রশিক্ষণ দিয়ে অস্ত্রশস্ত্রে সুসজ্জিত করবে এটা অযৌক্তিক প্রকৃতি বিরুধী । মানুষ সৃষ্টি করেই সরাসরী শিক্ষা প্রদান করা হয়েছে ৷ অপরাধমুক্ত থাকার নির্দেশ দেয়া সত্বেও পাহারাদার না থাকায় মানুষের উপর জারীকৃত নির্দেশ কাযকরী হয় নাই ।বিতাড়িত শয়তান পাহারাদারের অনুপস্থিতিতে অপরাধ করতে বিভিন্ন পন্থা অবলম্বন করে সফল হয় । এই সত্য মানব জাতির নিকট মুসলমান জাতির মাধ্যামে অবগত করা সত্বেও মুসলমান শাসকরা নাগরিককে প্রত্যক্ষভাবে সরকারের তত্বাবধানে অপরাধমুক্ত থাকার শিক্ষা প্রশিক্ষণ ও পাহারাদার নিযুক্ত না করে ধরে আর মারে ওজেলে ভরে রাখে ।
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ